চট্টগ্রাম বুধবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯

১২ নভেম্বর, ২০১৯ | ১১:৩১ অপরাহ্ন

অনলাইন ডেস্ক

বেতন বাড়ছে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বেতন বাড়ছে। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব মো. আকরাম-আল-হোসেন অর্থবিভাগের সম্মতি পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। অর্থবিভাগ প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়কে বেতন বৃদ্ধির বিষয়ে সম্মতি দিয়ে চিঠি দিয়েছে। পাশাপাশি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী প্রধান শিক্ষকের পদ সৃষ্টির জন্য জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সম্মতিসহ প্রস্তাব পেলে এই পদেরও বেতন স্কেল নির্ধারণ করা হবে বলে জানা গেছে।  প্রস্তাবিত এ বেতন স্কেল কার্যকর হলে বেতন গ্রেড ১১তম অনুযায়ী একজন শিক্ষকের শুরুতে মূল বেতন হবে ১২ হাজার ৫০০ টাকা। আর ১৩তম গ্রেডে শুরুতে একজন শিক্ষকের মূল বেতন হবে ১১ হাজার টাকা।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব মো. আকরাম-আল-হোসেন গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, কিছু আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে জারি করা হবে প্রজ্ঞাপন। যদিও আন্দোলনকারী শিক্ষকেরা বলছেন, বেতন বৃদ্ধির এমন সিদ্ধান্ত তাঁরা মানবেন না।

বর্তমানে প্রশিক্ষণ পাওয়া প্রধান শিক্ষকেরা ১১তম গ্রেডে এবং প্রশিক্ষণবিহীন প্রধান শিক্ষকেরা বেতন পান ১২তম গ্রেডে । অন্যদিকে, প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষকেরা ১৪তম গ্রেডে ও প্রশিক্ষণবিহীন শিক্ষকেরা বেতন পান ১৫তম গ্রেডে। আর বর্তমানে সহকারী প্রধান শিক্ষক নামে কোনো পদ নেই।

প্রসঙ্গত, প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকেরা দীর্ঘদিন ধরে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের বেতন ১০ম এবং সহকারী শিক্ষকদের বেতন ১১তম গ্রেডে উন্নীত করার দাবিতে আন্দোলন করে আসছেন। আসন্ন প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা বর্জনেরও হুমকি দিয়েছিলেন তাঁরা। (সংশোধিত) অবশ্য পরে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব মো. আকরাম-আল-হোসেনের সঙ্গে বৈঠক করার পর শিক্ষকেরা পরীক্ষা বর্জনের কর্মসূচি প্রত্যাহার করেন।

আন্দোলনের এই ধরণের পরিস্থিতিতে গত বৃহস্পতিবার বেতন বৃদ্ধির সম্মতি দেয় অর্থ বিভাগ, যা আজ মঙ্গলবার হাতে পেয়েছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা। আন্দোলনকারী বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক ঐক্য পরিষদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, যেভাবে বেতন বৃদ্ধি করার বিষয়ে অর্থ বিভাগ সম্মতি দিয়েছে সেটা তাঁরা মানবেন না। তাঁদের চাওয়া প্রধান শিক্ষকদের বেতন গ্রেড হবে ১০ তম এবং সহকারী শিক্ষকদের বেতন গ্রেড হবে ১১ তম গ্রেডে। আন্দোলনকারীরা জানান, তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ১৭ ডিসেম্বরের মধে্য সাক্ষাত চেয়েছেন, দেখা করার পর প্রধানমন্ত্রী যে বেতন গ্রেড নির্ধারণ করে দেবেন সেটাই তারা মানবেন।

পূর্বকোণ/ এস

The Post Viewed By: 178 People