চট্টগ্রাম রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯

২৬ অক্টোবর, ২০১৯ | ১:৩৮ অপরাহ্ন

অনলাইন ডেস্ক

কওমির পাঠ্যসূচিতে আসছে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস

এবার দেশের সব কওমি মাদ্রাসায় পাঠ্যভুক্ত হচ্ছে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস। এর আওতায় কওমি শিক্ষার্থীদের মধ্যে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, নীতিবোধ ও সর্বজনীন মানবাধিকার বিষয়ে স্বচ্ছ ধারণা দেয়া হবে। ইতিমধ্যেই ইংরেজি মাধ্যমে ‘বাংলাদেশ ও গ্লোবাল স্টাজিজ’ পাঠ্যভুক্ত করা আছে। আর বাংলা মাধ্যমে আগে থেকেই দেশের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস পড়ানো হচ্ছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, ইতিমধ্যে ইংরেজি মাধ্যমে চালু হওয়া ‘বাংলাদেশ ও গ্লোবাল স্টাজিজ’র আদলে কওমি শিক্ষার্থীদের জন্যও কোর্স চালু করা হবে। এর মাধ্যমে সাধারণ শিক্ষার পাশাপাশি ইংরেজি মাধ্যমের সঙ্গে কওমি মাদ্রাসার অভিন্ন কোর্স তৈরি করবে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি)। কওমি মাদ্রাসা বোর্ড সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আলোচনা করেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে মন্ত্রণালয়।
এই প্রসঙ্গে জানতে চাইলে মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব জাবেদ আহমেদ জানান, ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, নীতিবোধ ও সর্বজনীন মানবাধিকার স্বচ্ছ করতে অভিন্ন একটি কোর্স চালুর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। ইতিমধ্যেই ইংরেজি মাধ্যমে ‘বাংলাদেশ ও গ্লোবাল স্টাজিজ’ পড়ানো হচ্ছে। এনসিটিবি কোর্সটি তৈরি করবে। এ বিষয়ে মন্ত্রণালয় একটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, কওমি শিক্ষার্থীদের মধ্যে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, নীতিবোধ ও সর্বজনীন মানবাধিকার স্বচ্ছ করতে মন্ত্রণালয় গত সেপ্টেম্বরে মাসিক সমন্বয় সভায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী একটি অভিন্ন কোর্স করে কওমি মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের পড়ানো হবে।

এনসিটিবি সূত্রে আরো জানা গেছে, কওমি মাদ্রাসা ও ইংরেজি মাধ্যমের শিক্ষকদের প্রশিক্ষিত করতে শিক্ষাবিদরা অভিমত দিয়েছেন। ইংরেজি মাধ্যমের শিক্ষার্থীদের দেশি সংস্কৃতি শেখানোর বিষয়ে উদ্বুদ্ধ করার জন্য শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ দরকার। আর কওমি মাদ্রাসা শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ দিয়ে তাদের ধারণাও স্বচ্ছ করা প্রয়োজন। তা না হলে কোর্স থাকলেও তা ঠিকমতো পড়ানো বা শেখানোর পরিস্থিতি সৃষ্টি হবে না। তাই কোর্স তৈরির পাশাপাশি শিক্ষকদের এখনই প্রশিক্ষণ শুরু করা দরকার।

 

 

পূর্বকোণ/এম

The Post Viewed By: 156 People

সম্পর্কিত পোস্ট