চট্টগ্রাম রবিবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৯

সর্বশেষ:

৮ অক্টোবর, ২০১৯ | ১০:৫৭ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রশ্ন ফাঁস ঠেকাতে এবার মেডিকেলে ভিন্ন পদ্ধতি

 

 

আগামী ১১ অক্টোবর দেশব্যাপী অনুষ্ঠিত হবে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের এমবিবিএসের ভর্তি পরীক্ষা। এ বছর প্রশ্ন ফাঁস ঠেকাতে  মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্নপত্রের বিন্যাস হবে ভিন্ন ভিন্ন। প্রশ্নপত্রের আকারও আট পৃষ্ঠা থেকে কমে হচ্ছে দুই পৃষ্ঠা। দেশব্যাপী একযোগে ১৯টি কেন্দ্রের ৩২টি ভেন্যুতে এমবিবিএস কোর্সের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সরকারি মেডিকেল কলেজের চার হাজার ৬৮টি ও বেসরকারি মেডিকেল কলেজের ছয় হাজার ৩৩৬টিসহ মোট ১০ হাজার ৪০৪টি আসনের জন্য ভর্তি পরীক্ষা হচ্ছে। এসব আসনের বিপরীতে ৭২ হাজার ৯২৮ জন ভর্তিচ্ছু পরীক্ষায় অংশ নিতে আবেদন করেছে।

গত বছরের তুলনায় এবার পরীক্ষার্থী সাত হাজার ৯ জন বেশি। সোমবার সচিবালয়ে মেডিকেল ভর্তি নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব মো. আসাদুল ইসলামের সভাপতিত্বে সম্মেলনে ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে বিস্তারিত তুলে ধরেন অতিরিক্ত সচিব সুপ্রিয় কুমার কুণ্ডু। পরীক্ষা সংক্রান্ত নিয়মাবলী তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ জানান, প্রতিটি প্রশ্নপত্রের বিন্যাস হবে ভিন্ন। অর্থাৎ, প্রশ্নপত্রের বিষয়বস্তু একই হবে, বিন্যাস হবে পুরোপুরি আলাদা। প্রশ্নের সঙ্গে সঙ্গে ভিন্নভাবে সাজানো থাকবে চারটি উত্তর।

এ বছর প্রশ্নপত্রে প্রযুক্তিগত পরিবর্তন আনা হয়েছে জানিয়ে স্বাস্থ্য শিক্ষা বিভাগের সচিবের দায়িত্বে থাকা অতিরিক্ত সচিব সুপ্রিয় কুমার কুণ্ডু জানান, প্রশ্নপত্র পাঠানোর জন্য ট্রাঙ্কের সঙ্গে সংযুক্ত ট্র্যাকিং ডিভাইস ইতোমধ্যে প্রস্তুত করা হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এবং গোয়েন্দা সংস্থা তাদের তৎপরতা ও নজরদারি জোরদার করেছে। সাইবার-ক্রাইম প্রতিরোধ এবং পরীক্ষার আগের দিন রাত ১০টা থেকে পরীক্ষার দিন সকাল ১১টা পর্যন্ত ইন্টারনেটের গতি সীমিত রাখতে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ এবং বিটিআরসিকে অনুরোধ জানানো হয়েছে বলে জানান তিনি।

পূর্বকোণ-রাশেদ

 

আফছার

 

The Post Viewed By: 186 People

সম্পর্কিত পোস্ট