চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

৩১ আগস্ট, ২০১৯ | ২:৩৬ পিএম

অনলাইন ডেস্ক

আনন্দমুখর পরিবেশে সিআইইউতে ভর্তি পরীক্ষা

আনন্দমুখর পরিবেশে চিটাগং ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটিতে (সিআইইউতে) অনুষ্ঠিত হয়েছে ২০১৯ এর অটাম সেমিস্টারের ভর্তি পরীক্ষা। শনিবার (৩১ আগস্ট) সকালে নগরীর জামালখানের সিআইইউ ক্যাম্পাসে এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

বর্তমানে সিআইইউতে বিজনেস স্কুল, স্কুল অব সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, স্কুল অব লিবারেল আর্টস এন্ড সোশ্যাল সায়েন্সেস ও স্কুল অব ল প্রোগ্রামের অধীনে রয়েছে একাধিক সব সাবজেক্ট।

সকাল ১০টায় পরীক্ষায় অংশ নিতে দলে-দলে সিআইইউ ক্যাম্পাসে আসতে থাকেন শহরের বিভিন্ন কলেজের শিক্ষার্থীরা। সন্তানরা যখন ব্যস্ত পরীক্ষার হলে, ঠিক তখনই ওয়েটিং রুমে অপেক্ষায় ছিলেন তাদের অভিভাবকরা।

সকাল সাড়ে ১১টা পর্যন্ত লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার পর চূড়ান্তভাবে উর্ত্তীণরা অংশ নেন সাক্ষাৎকারে। এর আগে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের ক্যাম্পাসে স্বাগত জানান সিআইইউর উপাচার্য ড. মাহফুজুল হক চৌধুরী।

তিনি বলেন, সার্টিফিকেটমুখী শিক্ষার গতানুগতিক ধারণা থেকে বহু আগেই বেরিয়ে এসেছি আমরা। সিআইইউ গবেষণা, দক্ষতা ও নিত্য-নতুন জ্ঞান সৃষ্টির মাধ্যমে উচ্চশিক্ষায় অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের আস্থা অর্জনে বদ্ধপরিকর বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে স্কুল অব সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ডীন অধ্যাপক ড. মো. রেজাউল হক খান, সিআইইউ বিজনেস স্কুলের অধ্যাপক ও প্রক্টর ড. মীর মোহাম্মদ নুরুল আবসার নাহিদ,  স্কুল অব ল’র উপদেষ্টা অধ্যাপক মো. জাকির হোসেন, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক সরকার কামরুল মামুন, ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার আনজুমান বানু লিমা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

কর্তৃপক্ষ জানান, যেসব শিক্ষার্থী এসএসসি, এইচএসসি ও সমমানের দুই পরীক্ষায় ভালো ফলাফল করেছে কিংবা যারা ভর্তির পর সেমিস্টারগুলোতে ভালো ফলাফল করবে তাদের জন্য এখানে রয়েছে দারুণ সব স্কলারশিপ! রয়েছে পড়ালেখার পাশাপাশি ক্যাম্পাস জবের চমৎকার সুযোগ। মানে যেখানে পড়ালেখা সেখানেই চাকরি!

ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেয়া আরমান হোসেন নামের একজন শিক্ষার্থী বলেন, আমরা চার বন্ধু একসঙ্গে ফরম নিয়েছি। জমাও দিয়েছি। পরীক্ষা ভালো হয়েছে। আশা করছি স্বপ্ন পূরণে আরও একধাপ এগিয়ে যেতে পারবো।

নগরের হালিশহর এ ব্লক থেকে আসা আমেনা বেগম নামের একজন অভিভাবক বলেন, চট্টগ্রামে উচ্চশিক্ষায় ভালো মানের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ভীষণ অভাব রয়েছে। যুগোপযুগী সিলেবাস আর কর্মমুখী শিক্ষায় সন্তানকে গড়ে তোলার জন্য সিআইইউতে আমার আস্থা। এখানকার শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ দেখে মনটাই ভালো হয়ে গেলো।

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

পূর্বকোণ/পলাশ

The Post Viewed By: 242 People