চট্টগ্রাম শনিবার, ১৬ অক্টোবর, ২০২১

১১ অক্টোবর, ২০২১ | ১১:৪১ পূর্বাহ্ণ

ওয়াসির জাওয়াদ

ব্যারিস্টার হওয়ার স্বপ্ন পূরণে

লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয়ের এক্সটার্নাল স্টাডি সেন্টার চট্টগ্রামে

আইনবিদ্যায় বার-এট-ল ডিগ্রি অর্জন বাংলাদেশে তো নয়ই বিশ্বের বহুদেশে এখনও সম্ভব নয়। আইন বিষয়ে সর্বোচ্চ মেধার এই ডিগ্রি কেবল যুক্তরাজ্যেই করা সম্ভব। আর বাংলাদেশ থেকে সূদুর লন্ডনে গিয়ে এল.এল.বি (অনার্স) করে ব্যারিষ্টার-এট-ল কোর্সে ভর্তি হওয়া যায় না, এমনকি ফার্স্ট ক্লাস পাওয়ার পরও। কারণ লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব নিয়মেই বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে তিন বছর মেয়াদী এল.এল.এল বি (অনার্স) করতে হবে। এর পরই বার-এট-ল কোর্স।

তাই আইন বিদ্যায় মর্যাদাপূর্ণ আন্তর্জাতিক মানের ব্যারিস্টার হতে লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয়ের এল.এল.বি (অনার্স) কোর্স চট্টগ্রামে বসে অর্জন করার দূর্লভ সুযোগ নিয়ে এসেছে ইউনিভার্সিটি অব লন্ডন অনুমোদিত বাংলাদেশ এক্সটার্নাল স্টাডি সেন্টার NEW CASTLE LAW ACADEMY। পূর্ব নাসিরাবাদ সিডিএ এভিনিউতে অবস্থিত একাডেমিক ক্যাম্পাসে কথা হয় একাডেমির উপদেষ্টা চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালযের আইন অনুষদের প্রাক্তন অধ্যাপক ও বর্তমানে এডিথ কাওয়ান ইউনিভার্সিটি, অস্ট্রেলিয়ার শিক্ষক ডক্টর মোস্তফা মাহমুদ নাসের এর সাথে। University of London সম্পর্কে তিনি বলেন, ১৮৩৬ সালে প্রতিষ্ঠিত এই বিশ্ববিদ্যালয় পৃথিবীর অন্যতম খ্যাতিসম্পন্ন বিশ্ববিদ্যালয়। এখানকার এল.এল.বি ডিগ্রি ইল্যান্ডের ‘ল’ সোসাইটি এবং বার কাউন্সিল কর্তৃক স্বীকৃত। পাশাপাশি সারা বিশ্বের ১৮৩টি দেশে প্রায় ৫৪,০০০ ছাত্র-ছাত্রী এই বিশ্ববিদ্যালয় স্বীকৃত এক্সার্টানাল স্টাডি সেন্টারে এল.এল.বি (অনার্স) পড়ছে। বাংলাদেশস্থ নিউ ক্যাসল ল’ একাডেমী চট্টগ্রামে ২০০৫ সাল হতে লন্ডন ইউনিভার্সিটি অনুমোদিত বাংলাদেশ স্টাডি সেন্টার হিসাবে অত্যন্ত সফলতার সাথে এল.এল.বি (অনার্স) কোর্স পরিচালনা করে আসছে। পূর্বে ব্যারিস্টার হওয়ার স্বপ্ন পূরণের জন্য প্রচুর অর্থ ব্যয় করে সুদূর বিলেতে গিয়ে পড়তে হত। কিন্তু এখন এই বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে এল.এল.বি (অনার্স) কোর্স চট্টগ্রামে পড়া যাবে এবং কোর্স শেষে লন্ডনে গিয়ে মাত্র ১ বছরে বার-এট-ল অর্জন করা যাবে। এটি নিঃসন্দেহে চট্টগ্রামের মেধাবী প্রজন্মের জন্য একটি দূর্লভ সুযোগ।

স্টাডি সেন্টার এর বিষয়টি জানতে চাইলে Head of Administration জাহিদ বিন হোসাইন বলেন, ইউনিভার্সিটি অব লন্ডন এল.এল.বি কোর্সের যাবতীয় শিক্ষাক্রম পরিচালনা করে ছাত্র-ছাত্রীদের ফাইনাল পরীক্ষার উপযুক্ত করে তোলার দায়িত্ব দিয়েছে আমাদের। এই কোর্সের সম্পূর্ণ সিলেবাস এবং কারিকুলাম ও প্রশ্নপত্র লন্ডন ইউনিভার্সিটি কর্তৃক প্রণীত। নির্দিষ্ট সিলেবাস শেষে ফাইনাল পরীক্ষাটি হবে ব্রিটিশ কাউন্সিল পরীক্ষা হলে এবং কঠোর অনুশাসনে পরীক্ষা গ্রহণ করবেন ব্রিটিশ কাউন্সিল কর্তৃপক্ষ। ফলাফল এবং সার্টিফিকেট ইস্যু করবে University of London কর্তৃপক্ষ। এই এল.এল.বি (অনার্স) সার্টিফিকেট লাভের পরই Bar Vocational Course করার যোগ্যতা লাভ করবে একজন শিক্ষার্থী এবং ১ বছরের এই কোর্সটি শেষ করতে হবে লন্ডনে গিয়ে সরাসরি ইউনির্ভাসিটি অব লন্ডনে। এর পরই একজন শিক্ষার্থী ব্যারিস্টার-এট-ল ডিগ্রী অর্জনের সম্মান লাভ করবে। ব্যারিস্টার-এট-ল সম্পন্ন না করেও শিক্ষার্থী এল.এল.বি(অনার্স) সম্পন্ন করে এল.এল.এম করতে পারবে এবং এদেশেই প্র্যাকটিস্ করতে পারবে। উপরন্তু এল.এল.বি. কোর্সকালীন সময়ে এক বছর পর London, Canada, Australia সহ বিশ্বের যে কোন দেশে ক্রেডিট ট্রান্সফার করতে পারবে।
জাহিদ বিন হোসাইন আরও জানান, চট্টগ্রাম কেন্দ্রে ১০ জন অভিজ্ঞ ব্যারিস্টার-এট-ল শিক্ষকসহ ইউনিভার্সিটি অব লন্ডন হতে এল.এল.বি (অনার্স) ডিগ্রীধারী শিক্ষকগণ পরম আন্তরিকতায় ক্লাস নিয়ে থাকেন। প্রতি ব্যাচে মাত্র ২০ জন ছাত্র-ছাত্রীকে ব্যক্তিগত পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে অত্যন্ত সহজ উপস্থাপনা সমৃদ্ধ লেকচার প্রদান করা হয় যাতে সবধরণের শিক্ষার্থী তা আত্মস্থ করতে সক্ষম হয়। এখানে যে কোন জটিল বিষয়ে পুনরালোচনার জন্য শিক্ষকদের দ্বার সব সময় উম্মুক্ত। প্রয়োজনীয় লেকচারশীট এবং হ্যান্ডনোটও প্রদান করা হয়। কম্পিউটার ল্যাব-এ ইন্টারনেট ব্রাউজিং এর মাধ্যমে বিশ্বের সেরা লাইব্রেরীতে যে কোন বইয়ের যে কোন তথ্য ডাউনলোড করতে পারে ছাত্র-ছাত্রীরা। মূল্যায়নের জন্য নেয়া হয় Weekly Test, Tutorial Exam, Monthly test, Final Exam এর পূর্বে Special Mock Test যা শিক্ষার্থীদের পরীক্ষাভীতি দুর করে আত্মবিশ্বাসী করে তোলে। তাই মেধাবী, পরিশ্রমী এবং একান্ত আগ্রহী শিক্ষার্থীরাই কেবল আন্তর্জাতিক মানের এই পরীক্ষায় মানসম্মত শ্রেণীতে উত্তীর্ণ হয়।
এই বিবেচনায় New Castle Academy বিশেষ কৃতিত্বের দাবীদার। কারণ প্রতিবছর এই Academy’র শতকরা ৯০ ভাগ ছাত্র-ছাত্রী পাশ করে আসছে এবং আনন্দের সাথে জানাচ্ছি যে, ২০০৭ সালে লন্ডনে Bar Vocational Course এ নিউ ক্যাসল ল’ একাডেমী’র ৪৪ জন ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি হওয়ার সুযোগ পেয়েছে যা বাংলাদেশে সর্বোচ্চ। এই একাডেমীর মাধ্যমে ব্যারিষ্টার হয়ে বাংলাদেশ হাইকোর্ট এবং সুপ্রীম কোর্টে খ্যাতির সাথে আইন পেশায় নিয়োজিত রয়েছেন বহুসংখ্যক আইনজীবি।
এমন একজন তরুণ ব্যারিস্টার লাবিব সাইফ হোসাইন হামিম যিনি সম্প্রতি বার-এট- ল পাশ করে কর্মজীবনে প্রবেশ করেছেন। নিউ ক্যাসল ল’ একাডেমী সম্পর্কে তিনি বলেন, ঘরের কাছে চট্টগ্রামে বসে লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয়ের কোর্স শেষ করেছি। লন্ডনে সময় দিতে হয়েছে মাত্র এক বছর। আজ ব্যারিস্টার হয়ে কর্মজীবনে প্রবেশ করেছি, এর জন্য নিউ ক্যাসল ল’ একাডেমীর প্রতি চরম কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। আন্তর্জাতিকমানের এই কোর্স সমাপণে এখানকার শিক্ষা পরিবেশ ছিল অত্যন্ত সহায়ক।

কোর্স ও ভর্তি যোগ্যতা : তিন বছর মেয়াদী LLB (Hon’s) এবং ১ বছর মেয়াদী Certificate in Higher Education In Common Law অফার করছে। এস.এস.সি/ও’লেভেল, এইচএসসি/এ’লেভেল, ডিপ্লোমা/গ্রাজুয়েট/মাস্টার্স ডিগ্রীধারী যে কোন বয়সের শিক্ষার্থী আবেদন করতে পারবেন। অনার্স ও মাস্টার্স ডিগ্রীধারীগণ এই কোর্সে ১ বছরের Exemption পাবেন। অভিজ্ঞ এডভোকেটগণের জন্য রয়েছে Bar Transfer Test কোর্স, যার মাধ্যমে তারাও ব্যারিস্টার হতে পারবেন।
আরও বিস্তারিত জানতে খান-ভিলা,১০০৫/১০, পূর্ব নাসিরাবাদ, সি.ডি.এ এভিনিউ (২নং গেইট, সাইথ ইষ্ট এর ব্যাংকের বিপরীতে), চট্টগ্রাম ঠিকানায় ও ০১৮১৯-৩৭৯৮০৮ নম্বরে যোগাযোগ করা যাবে। লগ ইন করতে পারেন Facebook.com/newcastlelawacademychittagongcentre তে।

 

 

পূর্বকোণ/এসি

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 296 People

সম্পর্কিত পোস্ট