চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ১২:৫৬ এএম

কর্ণফুলি বাঁচলে চট্টগ্রাম বাঁচবে

চট্টগ্রামের প্রাণ কর্ণফুলি নদীটি যেন এখন লাইফ সাপোর্টে আছে। মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। দখলদাররা অবৈধ ভাবে দখল সুপ্রতিষ্ঠিত করে নদী ভরাটের মাধ্যমে নদীর পাশে গড়ে তোলা হয়েছে একের পর এক অবৈধ স্থাপনা। উচ্ছেদ অভিযান শুরু করলেও রাঘব-বোয়ালদের স্থাপনাগুলো বহাল তবিয়তেই আছে। নামকাওয়াস্তে কিছু ঘর-বাড়ি উচ্ছেদ করা হয়। যা এখন আবার পুনরায় দখল করা হয়েছে। উচ্ছেদ অভিযানটি বহুল আশা-আকাক্সক্ষার প্রতীক ছিল। সাধারণ মানুষ আশায় বুক বেঁধেছিল এবার যদি কর্ণফুলি ভূমি দস্যুদের কবল থেকে রক্ষা পাওয়া যায়। না তা আর হলো কয়। অজ্ঞাত কারণে মাঝপথে তা বন্ধ করে দেওয়া হয়। এর পেছনে স্থানীয় প্রভাবশালীদের প্রভাব আছে বলে জনমনে গুঞ্জন রয়েছে। কর্ণফুলির দু’পাড় সংকুচিত হতে হতে এখন তার মরণ দশা। আর শিল্প কারখানার দূষিত রাসায়নিক বর্জ্য সমূহ প্রবাহিত করা হয় এই নদীতে। একসময় কর্ণফুলির পানিতে ডলফিন দেখা গেলেও এখন আর চোখে পড়ে না। নদীর নাব্যতা হারিয়েছে অনেকাংশে। তার জন্য জাহাজ চলাচলে বিঘœতা ঘটছে। নদীর নাব্যতা ফিরিয়ে আনতে প্রয়োজনীয় ড্রেজিং ও দু’ধারের সকল অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদাভিযান পুনরায় চালু করুন। কর্ণফুলিকে বাঁচান। কর্ণফুলি বাঁচলে চট্টগ্রাম বাঁচবে । কর্ণফুলিকে ফিরিয়ে দেয়া হোক তার হারানো যৌবন। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

সিরাজুল মুস্তফা
চট্টগ্রাম

The Post Viewed By: 91 People

সম্পর্কিত পোস্ট