চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২০

২৪ জানুয়ারি, ২০২০ | ৮:২৮ পূর্বাহ্ণ

এস এম মোরশেদ মুন্না হ নাজিরহাট

আজ সৈয়দ আহমদ উল্লাহ মাইজভা-ারীর ওরশের প্রধানতম দিবস

গাউছুল আজম মাইজভা-ারী হযরত মাওলানা শাহসূফি সৈয়দ আহমদ উল্লাহ প্রকাশ হযরত সাহেব কেবলার ১১৪ তম বার্ষিক ওরশের প্রধান ও শেষ দিন আজ (শুক্রবার) কলিকাতা আলীয়া মাদ্রসার সাবেক ছাত্র হযরত সাহেব কেবলা ১৯০৬ সালের ২৩ জানুয়ারি, হিজরী ১৩২৩ এর ২৭ জিলক্বদ বাংলার ১৩১৩ সালের ১০ মাঘ সোমবার ৭৯ বছর বয়সে দুনিয়া ত্যাগ করেন। সে থেকে অদ্যাবদি আজকের দিনটিতে ব্যাপক কর্মসূচির মধ্য দিয়ে গাউছুল আজম হযরত সাহেব কেবলার ওরশ ফটিকছড়ির মাইজভা-ার দরবারে অনুষ্ঠিত হয়। শত বৎসরের ঐতিহ্যের ধারাবাহিকতায় প্রতিবছর

এই মহান অলীর ওফাত (তিরোধান) দিবসে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল ছাড়াও বিশ্বের বিভিন্ন দেশ হতে ভক্ত, অনুরাগ-আশেকরা দরবারে সমাবেত হন।
গতকাল (বৃহস্পতিবার) দিনের বেলায় পৃথক পৃথকভাবে ওরশের আনুষ্ঠানিকতার সূচনা হয়। আঞ্জুমানে মোত্তাবেয়ীনে গাউছে মাইজভা-ারীর পক্ষে গতকাল সকাল ১০ টায় কোরআনখানি, খতমে গাউছিয়া আদায়ের মাধ্যমে পবিত্র ওরশ শরীফের কর্মসূচি আনুষ্ঠানিকভাবে সূচনা হয়।

বিকাল ৩টায় রওজা-এ-পাকে গিলাফ চড়ানো ও গোসল শরীফ সম্পন্ন করা হয়েছে। আজ (শুক্রবার) শাহী ময়দানে ওয়াক্তিয়া নামাজ আদায় শেষে বা’দ এশা বয়ানে শানে গাউসুল আজম মাইজভা-ারী মাহফিলে ওলামায়ে কেরামগণ শানে বেলায়ত ও গাউসুল আজম মাইজভা-ারী প্রবর্তিত মাইজভা-ারী তরিকা নিয়ে বক্তব্য উপস্থাপন করবেন।
মাহফিল শেষে রাত ১১টায় গাউছিয়া আহমদিয়া মঞ্জিলের জিম্মাদার, সাজ্জাদানশীন এবং আঞ্জুমানে মোত্তাবেয়ীনে গাউছে মাইজভা-ারীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদের সভাপতি আলহাজ শাহসুফী ডা. সৈয়দ দিদারুল হক মাইজভা-ারী (ম.) এর ব্যবস্থাপনায় গাউছিয়া আহমদিয়া মঞ্জিলস্থ গাউসুল আযম মাইজভা-ারীর দোয়ার মেহরাব হতে মিলাদে নববী ও তাওয়াল্লোদে গাউসিয়া শেষে দেশ, জাতি ও বিশ্ব মানবতার কল্যাণ কামনায় আখেরি মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে। মুনাজাতের মাধ্যমে ওরশ শরীফের কার্যক্রম সমাপ্ত হবে।
এছাড়া আন্জুমানে মোত্তাবেয়ীনে গাউছে মাইজভা-ারী (শাহ এমদাদীয়ার) পক্ষে গোসল শরীফ, খতমে কোরআন, গিলাপ চড়ানো ও মিলাদের মাধ্যমে ওরশের আনুষ্ঠানিক শুভ সূচনা করা হয়েছে বলে জানা যায়। আজ (শুক্রবার) রাত ১২টায় আন্জুমানে মোত্তাবেয়ীনে গাউছে মাইজভা-ারী (শাহ এমদাদীয়ার) পক্ষে সর্বশেষ আখেরি মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে। আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন সাজ্জাদানশীনে গাউছিয়া আহমদিয়া মঞ্জিল আলহাজ শাহ ছুফি সৈয়দ এমদাদুল হক মাইজভা-ারী। দরবারের অন্যান মঞ্জিলেও রাত ১২টার পর হতে আখেরি মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে ওরশ উপলক্ষে গত তিনদিনে দেশ বিদেশের ভক্তরা বিভিন্নভাবে দরবারে সমবেত হয়েছে। আজ মধ্যরাতের আগ পর্যন্ত ভক্তরা দরবারে আসবেন বলে জানা যায়।
হযরত কেবলার রওজাসহ দরবারের প্রতিটি মাজার এবং আশপাশের এলাকায় সার্বিক আইন-শৃংখলা রক্ষায় একজন ভ্রাম্যমাণ ম্যাজিস্ট্রেট, বিপুল পরিমাণ পুলিশ, মহিলা পুলিশ, আনসার-ভিডিপি ও স্বেচ্ছাসেবক মোতায়েন করা করা হয়েছে। দরবারের আশপাশের প্রায় ৩ কি.মি এলাকাজুড়ে লাইটিং ও বিদ্যুৎ সরবরাহ নিরবচ্ছিন্ন রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে। ইতিপূর্বে দরবার শরীফ এলাকায় সকল ধরনের অনৈতিক কর্মকা-, মদ-জুয়া-হাউজি, সার্কাস, ভেরাইটি শো ইত্যাদি সম্পূর্ণরূপে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।

এদিকে ভক্তরা ঢোলের তালে তালে গরু-মহিষ নিয়ে দরবারে দলে দলে যোগদান করছেন। ভক্তগণ আহমদিয়া মঞ্জিল কর্তৃক নির্মিত অস্থায়ী ক্যাম্পে অবস্থান করছেন। তারা এক মাজার হতে অন্য মাজারে ছুটোছুটি করে কোরানখানি, জেয়ারত, মিলাদ, জিকিরে ছেমা ও ভা-ারী গানের মধ্যদিয়ে সময় পার করছেন।
এদিকে প্রতিবছরের মত ১০ মাঘের লোকজ মেলা জমে উঠেছে। চট্টগ্রামের উল্লেখযোগ্য লোকজ মেলার মধ্যে দরবারের ‘দশের মেলা রসের খেলা’ খ্যাত লোকজ মেলাটি অন্যতম। সারা দেশজুড়ে এই মেলার খ্যাতি রয়েছে। স্থানীয় এবং দেশের বিভিন্ন অঞ্চল হতে ব্যবসায়ীরা দশের মেলায় দোকান-পাট নিয়ে বসেন।

The Post Viewed By: 92 People

সম্পর্কিত পোস্ট