চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২০

সর্বশেষ:

১৭ জানুয়ারী, ২০২০ | ১১:০৪ অপরাহ্ন

জাহেদুল আলম, রাউজান

রাউজানে তাফসিরুল কোরআন মাহফিলে আহমদ শফী

স্কুল-কলেজগুলো এখন যেনার বাজার

প্রধানমন্ত্রী যেভাবে লেখাপড়া করেছে, সেভাবে নারীর শিক্ষার উদ্যোগ নেয়ার আহবান জানিয়ে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের প্রধান আমির, দারুল উলুম মুইনুল ইসলাম হাটাহাজারী মাদ্রাসার পরিচালক আল্লামা আহমদ শফী বলেছেন ‘সহশিক্ষার কারণে এখন শুধু ছাত্র-ছাত্রীরা নয়, শিক্ষকরাও যেনা করে। স্কুল-কলেজগুলো এখন যেনার বাজার। সেজন্য মহিলাদের আলাদা পড়াশোনার ব্যবস্থা করুন।

তিনি বলেন ‘নারী পুরুষ একসাথে বসে পড়াশোনা করাকে সহশিক্ষা বলে। আমি নারী শিক্ষার বিরোধী নই। সহশিক্ষার বিরোধী। কেননা সহশিক্ষার কারণে ছাত্র-ছাত্রীরা অবৈধ সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে।  আপনারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অনুরোধ করবেন সে যেন নারীদের আলাদা শিক্ষা ব্যবস্থা চালু করেন। নারীদের নিরাপদ আলাদা শিক্ষা ব্যবস্থা চালু হলে নারীরা ধর্ষণ, যৌন হয়রানি থেকে রেহাই পাবে।
তিনি আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় রাউজান ইসলামী নবজাগরণ ও ইসলামী সম্মেলন সংস্থার যৌথ উদ্যোগে গহিরা উচ্চ বিদ্যালয় ময়দানে অনুষ্ঠিত তাফসিরুল কোরআন মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন। এতে প্রধান মুফাচ্ছির ছিলেন বিশিষ্ট দাঈ মাওলানা মুফতি নজরুল ইসলাম কাসেমী। প্রধান বক্তা ছিলেন মাওলানা ফরিদ উদ্দীন আল-মোবারক। 

আল্লামা শফি আরও বলেন, মুসলমানদের ঘরে এখন কোরআন তেলাওয়াত নেই। আপনারা আমার সাথে ওয়াদা করেন, আজ থেকে কোরআন পড়বেন। ঘরের সকল সদস্য নিয়মিত কোরআন তেলাওয়াত করবেন। আপনাদের বিবিদের পর্দা মেনে চলতে আদেশ করবেন। কেননা ইসলামে পর্দা ফরজ। যে মেয়েকে আপনি বিবাহ করতে পারবেন, তাদের সামনে বিবাহের পূর্বে পর্দা করতে হবে। এটা ইসলামের বিধান। ঘরে ঘরে পর্দার বিধান জারি করুন। পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ ফরজ। নিয়মিত নামাজ আদায় করবেন। অন্যথায় জাহান্নামের কঠিন আযাব ভোগ করতে হবে। মাতাপিতার হক আদায় করবেন। তাদের চেহারা দেখলে একটি হজের সওয়াব হয়। তাদের সাথে কখনও অসদাচরণ করবেন না। উচ্চবাক্যে কথা বলবেন না। অনেক কষ্ট করে আপনাকে লালন-পালন করেছেন। মদপানের টাকা না দিলে মা-বাবার উপর অত্যাচার করে। যুব সমাজ! সাবধান। সবাইকে মরতে হবে।

মাহফিলে আলোচক ছিলেন মাওলানা হারুন আজিজী নদভী, মাওলানা আজিজুল ইসলাম জালালী, মাওলানা মুফতি মেরাজুল হক মাজহারী, মুফতি নুরুল আমিন ফরিদী, মাওলানা ইসমাঈল খান, মাওলানা মোস্তাফা নূরী, গাজী মাওলানা ছানাউল্লাহ প্রমুখ। বক্তব্য দেন পৌরসভার প্যানেল মেয়র বশির উদ্দিন খান, কাউন্সিলর কাজী মো. ইকবাল, আওয়ামী লীগ নেতা সভাপতি নজরুল ইসলাম, ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রহমান চৌধুরী, ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আবছার বাশি, মুহাম্মদ হাবিবুল হক, রাউজান নব জাগরণের সভাপতি মুহাম্মদ হানিফ, মাওলানা আবু দারদা মাসুম, মাওলানা সাইফুল্লাহ ফয়জী, মাওলানা ওসমান খলিলাবাদী, হাফেজ জাকের, মুহাম্মদ বাবুল সওদাগর গহিরা, মুহাম্মাদ আবু তাহের, সম্মেলন সংস্থার সহ সভাপতি নুরুল আজিম,মুহাম্মদ জামাল উদ্দীন দলইনগর, আরিফ উদ্দীন, মাওলানা হারুনুর রশীদ, মাওলানা এরশাদুল ইসলাম, মহি উদ্দীন, মোরশেদুল আলম প্রমুখ।

 

 

পূর্বকোণ/ জে-এস

 

 

The Post Viewed By: 375 People

সম্পর্কিত পোস্ট