চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২০ ফেব্রুয়ারী, ২০২০

সর্বশেষ:

১৬ জানুয়ারি, ২০২০ | ৩:৩১ পূর্বাহ্ণ

হালিশহর বেগমজান বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের পুনর্মিলনী প্রাণের টানে ৩০ বছর পর

সকাল থেকেই প্রচন্ড ঠা-া আর ঘন কুয়াশা, মেঘাচ্ছন্ন আকাশ। ৩০ বছর পর প্রিয় বন্ধুদের সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ার তাড়া সবার মধ্যে। পুনর্মিলনী উপলক্ষে দেশ-বিদেশের বিভিন্ন প্রান্তে অবস্থানরত প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা জড়ো হওয়ার কথা ছিল প্রিয় প্রাঙ্গণ হালিশহর বেগমজান বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের সবুজ চত্বরে। শঙ্কার সব মেঘ সরিয়ে ঘন কুয়াশার মধ্যেই ১০ জানুয়ারি সব বন্ধু এক হয়েছিল প্রিয় ক্যাম্পাসে। উপলক্ষ, হালিশহর বেগম জান বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ে এসএসসি ব্যাচ’৮৯ প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের দুইদিন ব্যাপী পুনর্মিলন অনুষ্ঠান। স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা মরহুম আবদুল মাবুদ সওদাগরের কবরে জিয়ারত ও পুষ্প শ্রদ্ধাঞ্জলির মাধ্যমে শুরু হয় পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান। স্কুল পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি জাহিদ হোসেন ও ‘বন্ধন’ এসএসসি ব্যাচ’৮৯ প্রাক্তন শিক্ষার্থী পরিষদের আহ্বায়ক মোহাম্মদ খোরশেদ আলম কর্তৃক জাতীয় ও বন্ধনের পতাকা উত্তোলন, শান্তির প্রতীক ‘পায়রা’ ও রঙ-বেরংয়ের বেলুন উড়িয়ে ২দিনব্যাপি ‘২য় পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান ২০২০ এর উদ্বোধন করা হয়। এরপর শুরু হয় আনন্দ র‌্যালি ‘এসো মিলি প্রাণের উচ্ছ্বাসে’। কমলা রঙের গেঞ্জি ও নীল রঙের টুপি পড়ে প্রাক্তন শিক্ষার্থী ও তাদের সন্তানরা র‌্যালিতে অংশগ্রহণ করেন। র‌্যালি শেষে নাস্তা, আড্ডা, গুল্পগুজব, প্রাক্তনদের ক্রীড়া প্রতিযোগিতাসহ মাঝে মধ্যে চলতে থাকে ফটোসেশন ও সেলফি। দুপুরে বিদ্যালয়ের পাশে স্মৃতি বিজড়িত মসজিদে জুমার নামাজ আদায়, একত্রে বসে দুপুরের খাওয়া ও পারস্পরিক কুশল বিনিময়ে পুরোটা দিন চলে যায়। এরপর চলতে থাকে ২য়দিনের প্রস্তুতি।

২য় দিনের অনুষ্ঠানমালার জন্য নির্ধারিত ভেন্যু চট্টগ্রাম বোটক্লাবে দুপুরের খাবারের পর বিকাল সাড়ে ৩ টায় শুরু হয় প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষকদের সম্মানে সম্বর্ধনা, আলোচনা ও স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠান। প্রাক্তন শিক্ষার্থী পরিষদের আহবায়ক মোহাম্মদ খোরশেদ আলমের সভাপতিত্বে, সদস্য সচিব মোহাম্মদ এমরান ও মহিলা বিষয়ক সম্পাদক শাহেদা আকতার (লিপি)’র যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. দেলোয়ার হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন স্কুল পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি জাহিদ হোসেন, প্রধান শিক্ষক মো. নাসিম উদ্দিন, নুরুল আলম, ডা. জাকিরুল ইসলাম। প্রাক্তন শিক্ষকদের মধ্যে যথাক্রমে মো. নুরুল কবীর, হুমায়ুন কবীর ও রেজাউল করিম। প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন পরিষদের যুগ্ম আহবায়কদ্বয় যথাক্রমে মো. সাবেত চৌধুরী ও সাদাত হোসেন চৌধুরী সাজ্জাদ, শেখ আলাউদ্দিন মো. ফারুক, ইকবাল চৌধুরী, মুজিবুর রহমান মজুমদার, উম্মে কুলসুম নাজমা, আনিসুর রহমান হাসেম, ফল্গুনী দত্ত প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি

The Post Viewed By: 52 People

সম্পর্কিত পোস্ট