চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারি, ২০২১

সর্বশেষ:

১৮ মে, ২০১৯ | ৩:১০ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব সংবাদদাতা হ বাঁশখালী

বাঁশখালীতে পৃথক সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধসহ আহত ২৮

বাঁশখালী উপজেলার বাহারছড়া,সরল ও শেখেরখীল ইউনিয়নে আধিপত্য বিস্তার ও সীমানা বিরোধকে কেন্দ্র করে গতকাল শুক্রবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত পৃথক পৃথক সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধসহ ২৮ জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে ১৩জনকে চমেক হাসপাতাল ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি দেয়া হয়েছে। অন্য আহতরা বাঁশখালী হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। পুলিশ উভয় ঘটনার জন্য এলাকা পরিদর্শন করেছেন।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বাহারছড়া ইউনিয়নের ইশলা গ্রামে ব্রিক ফিল্ড ব্যবসায়ী নুরুল আবচার ও ব্রিক ফিল্ড ব্যবসায়ী কালা ঝন্টুর মধ্যে এলাকার সামাজিক কোন্দল দীর্ঘদিন থেকে চলে আসছিল। এলাকার প্রভাব বিস্তার ও আধিপত্য নিয়ে তাদের মধ্যে বিরোধের জের ধরে গতকাল দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে দুপক্ষ মুখোমুখি অবস্থান নেয়। ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটে । এতে আহত হয়েছেন, নুর আহমদের স্ত্রী রেনু আক্তার(৩০) দলিলুর রহমানের ছেলে মোহাম্মদ আনসার(৩২), কামাল আহমদের ছেলে মোহাম্মদ ওসমান (২৪) বদি আহমদের ছেলে মোর্শেদ (২৮) মনিরুজ্জামানের ছেলে ছুর আহমদ (৩২) মৃতসিরাজ আহমদের ছেলে শাহজাহান (৩০), শেকান্দর আহমদের ছেলে মোহাম্মদ জাহেদ (২৪)।
শেখেরখীল ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের গুইল্যাখালী গ্রামে বাড়ির সীমানায় খুটি দেয়াকে কেন্দ্র করে নুর মাঝি ও আমির হোসেনদের মধ্যে দীর্ঘদিন থেকে বাড়ির সীমানা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এই বিরোধের জের ধরে গতকাল দুপুর ১টার দিকে দা কিরিচ নিয়ে দুপক্ষের সংঘর্ষ বেঁধে যায়। সংঘর্ষে আহতরা হলেন, আবদুর রহিমের স্ত্রী নুরুন্নাহার (৫০), আবদুর রহিমের ছেলে নেজাম উদ্দিন (২০)মৃত জাফর আহমদের ছেলে আহমদ হোসেন(৩২),আমির হোসেন (৩৫), শীলকুপ ইউনিয়নের হাসান আহমদের স্ত্রী মাজেদা বেগম(৬০), আবদুর রহিমের স্ত্রী জান্নাতুন মাওয়া(২৫), মোহাম্মদ হোছাইনের ছেলে নেছারুল ইসলাম (৪৩) জফুর উদ্দিন (২৭), ফরিদুল আলমের স্ত্রী মর্তুজা বেগম (৪৫), নেছারুল ইসলামের স্ত্রী রোকসানা আক্তার(৪০), নেছারুল ইসলামের ছেলে ইময়ানুল ইসলাম (১০),কামরুল ইসলামের ছেলে জেরিন আক্তার (১৩)
সরল ইউনিয়নের ৪নম্বর ওয়ার্ড কাহারঘোনা ও ৬ নম্বর ওয়ার্ড মিনিজিরিতলা গতকাল সকালে সংঘর্ষের ঘটনায় আহতরা হলেন নাছির উদ্দিনের স্ত্রী মোবাশ্বেরা (১৮), নজির উল্লার ছেলে আজম উদ্দিন (২০), তাজুর মুল্লুকের ছেলে সিরাজুল হক, আবুল হোসেনের ছেলে রিনা আক্তার (১১), মোহাম্মদ ইদ্রিসের স্ত্রী রুবি আক্তার (৩২), মোস্তাক আহমদের স্ত্রী মিনু আক্তার (২২), মাহমুদুল হক এর স্ত্রী নুরুন্নাহার (৭০), মোহাম্মদ ইছহাকের স্ত্রী সাজু আক্তার (২৩), জসিম উদ্দিনের স্ত্রী রিকু আক্তার (২০)।
বাঁশখালী হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডাক্তার আয়েশা মুনমুন বলেন, বাঁশখালী হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়া রোগীদের মধ্যে গতকাল ৪০ জনের মত মারামারির রোগীকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। তন্মধ্যে ৬ জনকে চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
বাঁশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ কামাল হোসেন বলেন, বাঁশখালীতে সরল, বাহারছড়া, শেখেরখীলে মারামারির ঘটনা ঘটে। মহিলাসহ আরো অনেকে আহত হয়েছে। অভিযোগ পাওয়ার পর মামলা নেয়া হবে।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 297 People

মন্তব্য দিন :

সম্পর্কিত পোস্ট