চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারি, ২০২০

সর্বশেষ:

১২ ডিসেম্বর, ২০১৯ | ৫:২৯ অপরাহ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক

সীতাকুণ্ডে তেলের ডিপুতে আগুন

সীতাকুণ্ডে অবৈধ কালো তেলের ডিপোতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে বিষাক্ত কালো ধোঁয়ায় ডিপো সংলগ্ন তিন শিশু শ্বাসকষ্ট রোগ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। তবে ফায়ার সার্ভিস দ্রুত গতিতে ঘটনাস্থলে যাওয়ায় প্রাণে রক্ষা পায় পাঁচশত পরিবার ও তাদের মূল্যাবান সম্পদ। উপজেলার ভাটিয়ারি ইউনিয়নের সালেহ কাপেট এলাকায় সালাম চৌধুরীর ডিপোতে আজ বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) ভোরে আগুন লাগার এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, উপজেলার ভাটিয়ারি ইউনিয়ন সালেহ্ কাপের্ট ঘন বসতি এলাকায় স্থানীয় সালাম চৌধুরী প্রায় ২০ ফুট উচ্চতার টিনের ঘেরা দিয়ে এবং ৫০ ফুট উপরে বিষাক্ত কালো ধোঁয়ার চুঙ্গি বসিয়ে কালো তেলের কারখানা গড়ে তুলে। প্রতি রাতে এই ডিপোতে পুরাতন জাহাজের ফেলে দেয়া তেলগুলো এনে রাতভর বিভিন্ন মেডিসিন দিয়ে আগুন জ্বালিয়ে রিপারিং করে। এতে ডিপোর বিষাক্ত ধোঁয়ায় আশেপাশে এলাকাবাসি ও শিশুরা বিভিন্ন রোগে আক্তান্ত হচ্ছে। বৃহস্পতিবার ভোরে তেল রিপারিং করার সময় আগুন লেগে যায়। এতে স্থানীয়রা আতংকিত হয়ে পড়ে। তবে ফায়ার সার্ভিস ঘটনার সাথে সাথে ঘটনাস্থলে আসলে স্থানীয় প্রায় পাঁচশত পরিবার প্রাণে রক্ষা পায়।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে সীতাকুণ্ডের কুমিরা ফায়ার সার্ভিসের ষ্টেশন কর্মকর্তা সুলতান মাহমুদ বলেন, ‘আমরা দ্রুত ঘটনাস্থলে যাওয়ায় ডিপোর আশেপাশে প্রায় পাঁচশত পরিবারকে রক্ষা করি। এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা মিল্টন রায় বলেন, আমি শুনেছি এর আগেও ডিপোটি বন্ধ করেছিল প্রশাসন। আগুনের বিষয়টি আমি শুনেছি, ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে আইনগত ব্যবস্থা নিব।

উল্লেখ্য, ঘন বসতি এলাকায় বিপদজনক এই কালো তেলের ডিপোর বিষয়ে একাধিকবার প্রশাসনের কাছে অভিযোগ দেয়ার পর প্রশাসন সিলগালা করে দেন। কিন্তু অজ্ঞাত কারণে মাস না যেতেই এই অবৈধ কালো তেলের ডিপো শুরু হয়ে যায়।

 

 

 

 

 

 

 

পূর্বকোণ/এম

The Post Viewed By: 85 People

সম্পর্কিত পোস্ট