চট্টগ্রাম বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩

সর্বশেষ:

১৫ মে, ২০১৯ | ২:১৯ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব সংবাদদাতা , কক্সবাজার

কক্সবাজারে বৃদ্ধকে হাতুড়ি দিয়ে পেটালেন আ. লীগ নেতা

কক্সবাজার শহরে হারুনুর রশিদ নামের এক বৃদ্ধকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগে জেলা আওয়ামী লীগের এক নেতার বিরুদ্ধে থানায় এজাহার দায়ের করা হয়েছে। গত সোমবার রাত সাড়ে ১২ টার দিকে আহত ব্যক্তির বড় ছেলে সিকান্দার আবু জাফর কক্সবাজার সদর মডেল থানায় এজাহার জমা দিয়েছেন বলে জানান ওসি (তদন্ত)। উক্ত এজাহারে অভিযুক্ত হচ্ছেন আ. লীগ নেতা খোরশেদ আলম কুতুবীসহ অজ্ঞাত আরো ৩ জন। খোরশেদ আলম কক্সবাজার জেলা আ. লীগের সমবায় ও কৃষি বিষয়ক সম্পাদক বলে জানা গেছে। ঘটনায় আহত ব্যক্তি শহরের

সমিতিপাড়া এলাকার মৃত জিন্নাত আলীর পুত্র ও স্ক্র‌্যাব ব্যবসায়ী। এজাহার সূত্রে জানা যায়, শামসুল আলম কুতুবীর বাড়ির পরিত্যক্ত একটি টিনশেড রুম চুক্তির মাধ্যমে ভাঙার জন্য মোহাজের পাড়া যান বৃদ্ধ হারুন মাঝি। লেবারসহ গত রোববার বিকালে উক্ত বাড়ির সামনে বৃদ্ধ উপস্থিত হলে হঠাৎ অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ করে অতর্কিত হামলা চালিয়ে গুরুতর আহত করে শামসুল আলমের ভাই আওয়ামী লীগ নেতা খোরশেদ।
শামসুল আলম কুতুবী জানান, আমার বাড়ির পরিত্যক্ত একটি টিনশেড রুম ভাঙার জন্য চুক্তি করতে আসেন বৃদ্ধ হারুন মাঝি। এসময় বাড়ির সামনে বৃদ্ধ হারুনকে দেখে মদ্যপান অবস্থায় হঠাৎ অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ করে অতর্কিত হামলা চালিয়ে গুরুতর আহত করে খোরশেদ।
আহত বৃদ্ধ হারুন মাঝি কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, ‘আওয়ামী লীগ নেতা পরিচয় দিয়ে অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ করে আমার উপর অতর্কিত হামলা চালায় খোরশেদ কুতুবী। তার হাতে থাকা হাতুড়ি ও অবৈধ অস্ত্রের বাট দিয়ে এলোপাতাড়ি আঘাত করে। এতে আমার দুই পা ভেঙে যায়। মুখে আঘাত লাগে। এসব বিষয় নিয়ে কারো কাছে বললে গুলি করে জীবনে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে চলে যায় খোরশেদ। বর্তমানে আহত বৃদ্ধা কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) খায়রুজ্জামান জানান, ঘটনার বিষয়ে এজাহার পেয়েছি। এজাহারের আলোকে তদন্ত চলছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে দ্রুত সময়ে।

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট