চট্টগ্রাম বুধবার, ২৯ জানুয়ারি, ২০২০

১১ ডিসেম্বর, ২০১৯ | ২:৪২ পূর্বাহ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক

ভাঙা সড়কে নাজেহাল পতেঙ্গাবাসী

নগরীর সড়ক থেকে গাড়ির চাপ কমাতে এবং যানজট মুক্ত রাখতে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণ করছে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (চউক)। মূলত বিমানবন্দর সড়কটিকে যানজটমুক্ত রাখতে এ প্রকল্প গ্রহণ করে চউক। এক্সপ্রেসওয়েটি লালখান বাজার থেকে শুরু হয়ে চলে যাবে পতেঙ্গা পর্যন্ত। প্রকল্পটির কার্যক্রমও ইতিমধ্যে এগিয়ে গেছে অনেক দূর। পতেঙ্গার কাটগড় থেকে শুরু হওয়া এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের নির্মাণকাজ এখন দৃশ্যমান। মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছে এক্সপ্রেসওয়ের ১০টিরও বেশি পিলার।

কিন্তু এ উন্নয়নের চাপে পড়ে পিষে যাচ্ছেন এই এলাকার বাসিন্দারা। নির্মাণকাজ শুরুর পর থেকে রাস্তার বেহাল দশার সৃষ্টি হওয়ায় চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে তাদের। তবে মাসখানেক আগে ভাঙা সড়কের একপাশ সংস্কার করলেও অন্যপাশ রয়ে গেছে আগের মত। এতে করে ভাঙা সড়কটির বড় বড় গর্তে আটকা পড়ে কখনো কখনো উল্টে যাচ্ছে ভারী যানবাহনগুলো। সৃষ্টি হচ্ছে দীর্ঘ যানজটের। সড়ক সংকুচিত হওয়ায় যানজটের তীব্রতা আরও বেশি আকার ধারণ করে। এতে করে সকাল-সন্ধ্যা দুই সময় চরম দুর্ভোগের শিকার হয় এখানকার বাসিন্দারা।

আহমেদ কবির শাহ নামে স্থানীয় এক যুবক পূর্বকোণকে বলেন, ‘প্রায় এক বছর হল, এখানে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের কাজ শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যে অনেকগুলো পিলারও তৈরি হয়ে গেছে। আর এ নির্মাণকাজ সম্পন্ন করতে প্রতিদিন ভারী ভারী মালবাহী ট্রাক চলছে এ সড়ক দিয়ে। যার প্রভাবে সিমেন্ট ক্রসিং থেকে কাটগড় পর্যন্ত দুইপাশের সড়কে সৃষ্টি হয়েছে খানাখন্দের। তবে কয়েক মাস আগে সিমেন্ট ক্রসিং থেকে কাটগড় যাওয়ার রাস্তাটি সংস্কার করা হলেও আগের অবস্থায় রয়ে গেছে বিপরীত সড়কটি। এতে করে যানজট দুর্ভোগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে আমাদের। বিশেষ করে সকাল-সন্ধ্যা দুই বেলা এ যানজটের আকার চরম ধারণ করে। কারণ কর্ণফুলী ইপিজেডের শ্রমিকদের যাতায়াতের জন্য এই দুই টাইম সড়কে প্রচুর চাপ পড়ে।’

এ বিষয়ে স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর জয়নাল আবেদীন পূর্বকোণকে বলেন, ‘সড়কটি বেশ কয়েকমাস ধরেই ভাঙা। এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণের জন্য ভারী যানবাহন চলাচলের কারণে সড়কে এ ভাঙনের সৃষ্টি হয়। এ কারণে প্রতিনিয়ত যানজটের সৃষ্টি হত সড়ক দুটিতে। তবে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ ইতিমধ্যে সড়কের একপাশের সংস্কার কাজ শেষ করেছে। বাকি অংশের কাজও দ্রুত করা হবে বলে জানান তিনি।’

The Post Viewed By: 68 People

সম্পর্কিত পোস্ট