চট্টগ্রাম শনিবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০২০

১০ ডিসেম্বর, ২০১৯ | ৪:১৫ পূর্বাহ্ন

জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া মাদ্রাসার সালানা জলসা

‘ইসলামের শাশ^ত আদর্শ প্রতিফলনে মাদরাসা শিক্ষার গুরুত্ব অপরিসীম’

জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়া কামিল মাদরাসার সালানা জলসা গত ৮ ডিসেম্বর ষোলশহরস্থ জামেয়া ময়দানে অনুষ্ঠিত হয়। আওলাদে রসূল আল্লামা সৈয়্যদ মুহাম্মদ তাহের শাহ্ (মু.জি.আ)র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জলসায় প্রধান অতিথি ছিলেন আল্লামা সৈয়্যদ মুহাম্মদ কাসেম শাহ্ (মু.জি.আ.), প্রধান বক্তা ছিলেন আল্লামা সৈয়্যদ মুহাম্মদ হামিদ শাহ্ (মু.জি.আ.)। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে লাখো ধর্মপ্রাণ মুসলিম এতে অংশগ্রহণ করেন। প্রধান অতিথি আল্লামা সৈয়্যদ মুহাম্মদ কাসেম শাহ্্ বলেন, ইসলামের শাশ^ত আদর্শ প্রতিফলনে মাদরাসা শিক্ষার গুরুত্ব অপরিসীম। এ শিক্ষার উৎকর্ষ সাধনে জামেয়া প্রশংসনীয় ভূমিকা রেখে যাচ্ছে। জামেয়ার যোগ্য শিক্ষার্থীরা এ দেশের সরকারি বেসরকারি বিভিন্ন পদে অধিষ্ঠিত হয়ে যথাযথ দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি নৈতিকতা বিকাশে ভূমিকা পালন করছে। প্রধান আলোচক সৈয়্যদ মুহাম্মদ হামিদ শাহ্ বলেন, আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আতের আক্বীদাহ্ বিস্তারে জামেয়া অগ্রণী ভূমিকা রেখে যাচ্ছে। আনজুমান-এ রহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্ট-এর ব্যবস্থাপনায় ও গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশের সহযোগিতায় এ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে সুন্নী আক্বীদায় প্রতিষ্ঠিত মাদরাসাগুলো ইসলামী শিক্ষা বিস্তারে ব্যাপক অবদান রাখছে। প্রতিষ্ঠানগুলোর যুগোপযোগী উন্নয়নে স্ব-স্ব অবস্থান থেকে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। এতে বক্তব্য রাখেন পিএইচপি ফ্যামেলির চেয়ারম্যান সুফি মুহাম্মদ মিজানুর রহমান, আনজুমান-এ রহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্টের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট মুহাম্মদ মহসিন, সেক্রেটারি জেনারেল মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, এডিশনাল সেক্রেটারি জেনারেল মোহাম্মদ সামশুদ্দিন, জয়েন্ট সেক্রেটারি মোহাম্মদ সিরাজুল হক, এসিসট্যান্ট সেক্রেটারি গিয়াস উদ্দীন সাকের, প্রেস এন্ড পাবলিকেশন সেক্রেটারি অধ্যাপক কাজী সামশুর রহমান, গাউসিয়া কমিটি’র চেয়ারম্যান পেয়ার মুহাম্মদ কমিশনার, ওরস শরীফ উদ্যাপন উপ-কমিটির সচিব মুহাম্মদ সাদেক হোসেন পাপ্প প্রমুখ। জলসায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন মাদরাসা গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান প্রফেসর মোহাম্মদ দিদারুল ইসলাম। বার্ষিক প্রতিবেদন পেশ করেন মুফতী সৈয়্যদ মুহাম্মদ অছিয়র রহমান। তাকরীর করেন মুফতী কাজী মুহাম্মদ আবদুল ওয়াজেদ। সিলসিলার কার্যক্রম পরিচালনা করেন মুফতী মুহাম্মদ ওবাইদুল হক নঈমী। সঞ্চালনা করেন মাওলানা ড. মুহাম্মদ লিয়াকত আলী ও মাওলানা মুহাম্মদ আনিসুজ্জামান। মিলাদ-ক্বিয়ামের পর বিশ^ মুসলিমসহ এদেশের মুসলিম মিল্লাতের শান্তি, সংহতি ও সমৃদ্ধি কামনা করে মুনাজাত করেন জলসার সভাপতি মুর্শিদে বরহক আল্লামা সৈয়্যদ মুহাম্মদ তাহের শাহ্।-বিজ্ঞপ্তি

The Post Viewed By: 41 People

সম্পর্কিত পোস্ট