চট্টগ্রাম বুধবার, ২৯ জানুয়ারি, ২০২০

৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ | ৫:৪২ পূর্বাহ্ন

ইমরান বিন ছবুর

কে হচ্ছেন নতুন চেয়ারম্যান ?

চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ড মনোনয়ন দৌড়ে বিভিন্ন কলেজের চার অধ্যক্ষসহ ৮ জন

চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান পদে নিয়োগের জন্য আটজনের নাম শোনা যাচ্ছে। এদের মধ্যে দু’জন চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডেরই কর্মকর্তা। বাকি ছয়জনের মধ্যে চারজন বিভিন্ন কলেজের অধ্যক্ষ, একজন মাউশি’র চট্টগ্রাম অঞ্চলের পরিচালক এবং একজন অধ্যাপকের নাম রয়েছে। গত ২১ নভেম্বর চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর শাহেদা ইসলাম অবসরোত্তর ছুটিতে (পিআরএল) যান। ১৯ নভেম্বর তিনি চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ড থেকে বিদায় নেন। এরপর থেকেই শিক্ষা বোর্ডের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান পদের দায়িত্ব পালন করছেন বোর্ডের সচিব প্রফেসর আবদুল আলিম। এরমধ্যে বোর্ডের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের মাঝে অসন্তোষ প্রকাশ পায়। তাই শিক্ষা বোর্ডের কার্যক্রম স্বাভাবিকভাবে চালিয়ে যেতে শীঘ্রই চেয়ারম্যান নিয়োগ দেয়া প্রয়োজন বলে মনে করছেন বোর্ডের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের পরবর্তী চেয়ারম্যান হিসেবে নিয়োগের ক্ষেত্রে সম্ভাব্য প্রার্থীদের মধ্যে যে আটজনের নাম শোনা যাচ্ছে, তারা হলেন চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের বর্তমান সচিব প্রফেসর আবদুল আলিম ও কলেজ পরিদর্শক প্রফেসর জাহেদুল হক। এছাড়া, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা (মাউশি) চট্টগ্রাম অঞ্চলের পরিচালক প্রফেসর প্রদীপ চক্রবর্তী, চট্টগ্রাম সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর স্বপন চৌধুরী, চট্টগ্রাম সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মুজিবুল হক চৌধুরী, রাঙামাটি সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মাইন

উদ্দিন, কক্সবাজার সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ফজলুল করিম চৌধুরী ও চট্টগ্রাম সরকারি সিটি কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক মুস্তাফা কামরুল আক্তারের নাম রয়েছে। এদের মধ্যে অনেকেই বিভিন্নভাবে চেষ্টায় আছেন বলেও শোনা যাচ্ছে। এদের মধ্যে বেশ কয়জন ইতোমধ্যে একাধিক মন্ত্রী-এমপির ডিও লেটার নিয়েও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে জমা দিয়েছেন।

এ সম্পর্কে চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের একাধিক কর্মকর্তা-কর্মচারীর সাথে কথা হলে জানান, বোর্ডের বর্তমান সচিব মো. আবদুল আলিম ও কলেজ পরিদর্শক প্রফেসর মো. জাহিদুল হক দু’জনই নিঃসন্দেহে ভালো মানুষ। চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানের মত একটি গুরুত্বপূর্ণ পদে উনাদের মত সৎ ও যোগ্য কর্মকর্তা প্রয়োজন। উনাদের দু’জনের মধ্যে একজনের হাতে শিক্ষা বোর্ডের দায়িত্ব থাকলে শিক্ষা বোর্ডের জন্য ভালো হবে।

সম্প্রতি চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের মাঝে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বিশৃঙ্খলার সংবাদ পাওয়া যায়। একটি পক্ষ অন্য পক্ষের বিরুদ্ধে লিফলেট ও হ্যান্ডনোট বিলি করে। যার কিছু কপি দৈনিক পূর্বকোণের কাছে সংরক্ষিত রয়েছে। তবে চেয়ারম্যান নিয়োগ হলে এসব সমস্যা দ্রুত কেটে যাবে বলে মনে করছেন শিক্ষা বোর্ডের কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা।

এ সম্পর্কে জানতে চাইলে বোর্ডের সচিব প্রফেসর আবদুল আলিম জানান, আমাদের সবার ডাটা শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে আছে এবং শিক্ষা উপমন্ত্রী যেহেতু আমাদের চট্টগ্রামের, তিনি আমাদের সবার খোঁজ খবর রাখছেন। উনারা যাকে যোগ্য ও দক্ষ মনে করবেন, তাকেই শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান হিসেবে নিয়োগ দিবেন।

সম্প্রতি শিক্ষা বোর্ডে কিছু বিশৃঙ্খলার খবর শোনা যাচ্ছে এমন প্রশ্নের জবাবে সচিব আরো বলেন, একটি পরিবারে ছোট-বড় অনেক ঝামেলা হয়। তা আবার সমাধান হয়ে যায়। বিশেষ করে কর্মচারীরা বিভিন্ন শ্রেণী থেকে এসে এখানে কাজ করছে, তাই মাঝে মধ্যে সামান্য কিছু ঝামেলা হলেও তা আবার মিটমাট হয়ে যায়। কাজের মধ্যে থাকলে সব কিছু ঠিক হয়ে যাবে। বর্তমানে চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডে দক্ষ ও যোগ্য লিডারশিপের প্রয়োজন রয়েছে।

The Post Viewed By: 123 People

সম্পর্কিত পোস্ট