চট্টগ্রাম শনিবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০২০

৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ | ৪:৪৮ পূর্বাহ্ন

নিজস্ব সংবাদদাতা, বাঁশখালী

বাঁশখালীর বাণীগ্রামে হঠাৎ বেড়েছে মাদকসেবীদের দৌরাত্ম্য

বাঁশখালী উপজেলার সাধনপুর ইউনিয়নের বাণীগ্রামে হঠাৎ করেই বেড়ে চলেছে মাদক সেবীদের দৌরাত্ম্য। মাদক সেবীরা ইয়াবা, মদ, গাঁজা সেবন করে প্রতিনিয়ত এলাকায় বিভিন্ন ধরনের অপরাধ সংঘটিত করছে। যার ফলে যুব সমাজ দিনের পর দিন ধংসের দিকে ধাবিত হচ্ছে। এই যখন এলাকার চিত্র তখন প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে কৌতুহলী হয়ে পড়েছে স্থানীয়রা।

স্থানীয়রা জানান, সাধনপুর ইউনিয়নের বাণীগ্রাম বাজার এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে ইয়াবা ও মদ বিক্রি করে যাচ্ছে সাইফুল ইসলাম, সাহেবের হাট এলাকার আবদুর রহিম, বাদশা ও আলম। ওই মাদক ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে প্রতিনিয়ত এলাকার মাদকসেবীরা ইয়াবা ও চোলাই মদ সেবন করে এলাকায় বিভিন্ন ধরনের অপরাধের সাথে জড়িয়ে পড়ছে। এলাকাবাসীদের অভিযোগ, প্রতিদিন স্কুল-কলেজে যাওয়া আসাকারী মেয়েদেরকে রাস্তা-ঘাটে ইভটিজিংসহ বিভিন্ন ধরনের অশ্লীল কথাবার্তা বলে উত্তেজিত করে এসব মাদক সেবীরা। প্রতিবাদ করলে তারা খুন জখমের হুমকি-ধমকিও প্রদান করে।

জানা যায়, সাধনপুর ইউনিয়নের পাহাড়ি এলাকায় এসব চোলাই মদ উৎপন্ন করার পর ব্যবসায়ীরা ওই চোলাই মদগুলো বিভিন্ন স্থানে পাচার ও সাধারণ মাদক সেবীদের বিক্রি করে আসছে। এই চিত্র দীর্ঘদিনের হলেও কারো মাথা ব্যাথা না থাকায় সাধনপুরের বাণীগ্রাম এলাকায় গড়ে উঠেছে মাদকের সা¤্রাজ্য।

এলাকাবাসীরা জানান, বাণীগ্রাম ৫ নং ওয়ার্ড এলাকার পাহাড়ের পাদদেশে, দিঘীর পাড়ে, পাল পাড়া, জলদাশ পাড়া ও সহদেব পাড়া রাস্তার বিভিন্ন স্থানে রাতের অন্ধকারে মাদক সেবীরা মদ খেয়ে উল্লাস করতে থাকে। রাস্তার ধারে অটোরিকশায় বসেই মদ পান করে প্রতিনিয়ত। উশৃঙ্খল ও বখাটে যুবক হওয়ায় তাদের এসব কর্মকা- স্থানীয় লোকজন দেখেও প্রতিবাদ করার সাহস করে না। প্রতিবাদ করলে বিভিন্নভাবে নাজেহাল হতে হয় বলেও অভিযোগ করেন অনেকে। এলাকাবাসীরা জানান, স্থানীয় কতিপয় ব্যক্তি রাজনৈতিক নেতা হিসেবে পরিচয় দিয়ে ওই মাদক ব্যবসায়ী ও সেবনকারীদের আশ্রয় প্রশ্রয় দিয়ে যাচ্ছে।

সাধনপুর ইউপি সদস্য আবদুল হক জানান, বাণীগ্রাম এলাকা হতে কিছু খারাপ প্রকৃতির যুবক মোটর সাইকেল যোগে ইয়াবা ট্যাবলেট বিভিন্ন স্থানে বিক্রি করতে দেখা যাচ্ছে। তাদেরকে চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা প্রয়োজন।
সাধনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন চৌধুরী খোকা বলেন, সাধনপুরে সম্প্রতি সময়ে মাদক ব্যবসায়ীদের তৎপরতা লক্ষ্য করে একজনকে আটক করে থানা পুলিশকে সোপর্দ করা হয়েছে। মাদক ব্যবসায়ীদের চিহ্নিত করা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে বাঁশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. রেজাউল করিম মজুমদার বলেন, সাধনপুরে মাদক ব্যবসায়ী ও সেবনকারীদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে। মাদক ব্যবসায়ী ও সেবনকারীদের সাথে কোন আপোষ নেই।

The Post Viewed By: 45 People

সম্পর্কিত পোস্ট