চট্টগ্রাম শুক্রবার, ০৬ ডিসেম্বর, ২০১৯

৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ | ৪:২৬ পূর্বাহ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক

২৩নং উত্তর পাঠানটুলী ওয়ার্ড

পাঠদান সংকটের অবসান হচ্ছে আছমা খাতুন মহিলা কলেজের

নগরীর পোস্তারপাড় আছমা খাতুন সিটি কর্পোরেশন মহিলা কলেজ। যেখানে দীর্ঘদিন থেকেই কক্ষ সংকটের কারণে ব্যহত হচ্ছে পাঠদান। তবে সেই সংকটের অবসান ঘটিয়ে এবার বৃহৎ পরিসরে কার্যক্রম চালানো অপেক্ষায় রয়েছে কলেজ কর্তৃপক্ষ। ইতোমধ্যে কলেজের কক্ষ সংকট নিরসনে তৈরি করা হয়েছে নতুন পাঁচ তলা একটি আধুনিক ভবন। ভবনের নির্মাণকাজ সম্পূর্ণ হয়েছে। তবে ফিনিশিংয়ের কাজ শেষ হলেই শীঘ্রই তা উদ্বোধন করা হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। জানা যায়, শিক্ষা প্রকৌশলী অধিদপ্তরের একটি প্রকল্পে ২ কোটি ৭০ লাখ টাকা বাজেটে পোস্তারপাড় আসমা খাতুন সিটি কর্পোরেশন মহিলা কলেজের জন্য পাঁচ তলা ভবনের কাজ শুরু হয় ২০১৭ সালে। ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান হিসেবে কাজ পায় মেসার্স রয়েল এসোসিয়েট। ইতোমধ্যে ভবনের পূর্ণাঙ্গ কাজ শেষ করেছেন প্রতিষ্ঠানটি। তবে এই মাসের মধ্যেই পুরোপুরি কাজ শেষ করে হস্তান্তর করতে পারবে বলে জানিয়েছে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান। সরেজমিনে দেখা যায়, কলেজের পূর্বপাশে অবস্থিত ভবনটির প্রতি ফ্লোরে তিনটি কক্ষ রয়েছে। পাঁচতলা বিশিষ্ট এই ভবনে সর্বমোট কক্ষ রয়েছে ১৫টি। তারমধ্যে একটি হল রুম ও বাকিগুলো ক্লাস রুম হিসেবে তৈরি করা হয়েছে। এছাড়া পাঁচতলার এই আধুনিক ভবনে ১৬টি ওয়াশ রুম রাখা হয়েছে। কলেজটির অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) লাভলী মজুমদার এ প্রসঙ্গে পূর্বকোণকে বলেন, ‘শুরু থেকেই স্কুলের সাথে আমাদের পাঠদান কার্যক্রম চালিয়ে আসা হয়। পরে আলাদাভাবে কর্পোরেশন থেকে একটি ভবন তৈরি করা হলেও বর্তমানে শিক্ষার্থীর সংখ্যা প্রায় সাড়ে সাতশ’। যার জন্য ক্লাস নিতে গিয়েও অনেক সমস্যায় পড়তে হয়। তবে নতুন করে এই ভবন হওয়ায় এসব সমস্যা থাকবে না’। সাড়ে চার হাজার স্কয়ার ফিটের এই কলেজ ভবনের কাজ শেষ হলে সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে তা আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হবে বলে জানিয়েছেন কলেজটির গভার্নিং বডির সদস্য ও ২৩নং উত্তর পাঠানটুলী ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোহাম্মদ জাবেদ পূর্বকোণকে বলেন, ‘ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান ডিসেম্বরের মধ্যেই কাজ শেষ করে বুঝিয়ে দিবে বলেছে। বুঝিয়ে পাওয়ার পর মাসের শেষ দিকে আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করতে পারবো বলে আশা করছি। দীর্ঘদিন থেকে এই কলেজে শিক্ষার্থীদের পাঠদান নিয়ে সমস্যা ছিল। তবে এখন ভবনটি চালু হলে এসব সমস্যা কেটে যাবে’।

The Post Viewed By: 43 People

সম্পর্কিত পোস্ট