চট্টগ্রাম শনিবার, ০৭ ডিসেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

২০ নভেম্বর, ২০১৯ | ২:৪৩ পূর্বাহ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক

ইউকে ট্রেড ও চিটাগাং চেম্বারের মতবিনিময় সভা

দ্রুত বর্ধনশীল টাইগার অর্থনীতি হিসেবে ব্যাপক পরিচিতি পাচ্ছে বাংলাদেশ

বাংলাদেশ দ্রুত বর্ধনশীল টাইগার অর্থনীতি হিসেবে বিশে^ ব্যাপক পরিচিতি পাচ্ছে। ব্যবসা ও বিনিয়োগে যুক্তরাজ্যের উদ্যোক্তাদের আগ্রহ দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। দু’দেশের সম্ভাবনাগুলো কাজে লাগিয়ে দ্বিপাক্ষিক ব্যবসা-বাণিজ্য ও বিনিয়োগ অধিকতর বৃদ্ধি করা সম্ভব। গতকাল মঙ্গলবার সকালে আগ্রাবাদ ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারস্থ বঙ্গবন্ধু কনফারেন্স হলে অনুষ্ঠিত ইউকে ট্রেড ও দি চিটাগাং চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি’র মতবিনিময় সভায় এসব কথা জানায়

দু’দেশের ব্যবসায়ীরা। চিটাগাং চেম্বার প্রেসিডেন্ট মাহবুবুল আলম’র সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় ইউকে ট্রেডের ১৮ সদস্য অংশ গ্রহণ করেন।
সভায় ইউকে প্রতিনিধি দলের দল নেতা রাজা আলী, বাংলাদেশের বর্তমান অগ্রগতি ও প্রবৃদ্ধির প্রশংসা করে ব্যবসা ও বিনিয়োগে যুক্তরাজ্যের উদ্যোক্তাদের আগ্রহের কথা জানান। একই সাথে তিনি বন্দরনগরী চট্টগ্রামকে পোর্টসমাউথের ‘সিস্টার সিটি’ হিসেবে ঘোষণা করেন। একই সাথে দ্বিপাক্ষিক অধিকতর সম্পর্কোন্নয়নে চিটাগাং চেম্বারের সাথে একটি সমঝোতা স্মারক চুক্তি সম্পাদন করার কথাও উল্লেখ করেন তিনি।

চট্টগ্রাম ও পোর্টসমাউথ’র মধ্যে শত বছরের ব্যবসায়িক ইতিহাস ও ঐতিহ্যগত সম্পর্ক রয়েছে বলে মন্তব্য করে চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম দু’সিটির মধ্যে আগামী দিনগুলোতে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করার উপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি যুক্তরাজ্যের শিক্ষা, জাহাজ তৈরি, প্লাষ্টিক, শিপিং, ক্যাটারিং, কনসালটেন্সি, মেরিটাইম, ট্যুরিজম, আইটি, ফার্নিচার, প্যাকেজিং, কৃষি, ফিশারিজ খাতের উন্নত ও সমৃদ্ধতার প্রশংসা করে বাংলাদেশের এসব খাতে ব্রিটিশ কারিগরি ও বিনিয়োগ প্রত্যাশা করেন।

সভার শুরুতে যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন ইকোনোমিক নিয়ে তথ্যচিত্র উপস্থাপন করেন করেন পোর্টসমাউথ সিটি কাউন্সিলের ইকনোমিক গ্রোথ ম্যানেজার মার্ক পেমব্লেটন ও সলেন্ট লোকাল এন্টারপ্রাইজ পার্টনারশীপ (এলইপি)’র জেমস ফোর্ড।

অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চেম্বার পরিচালক এস এম আবু তৈয়ব, প্রাক্তন পরিচালক মাহফুজুল হক শাহ, বাংলাদেশ ইনভেস্টমেন্ট ডেভেলাপমেন্ট

অথরিটি (বিডা)’র পরিচালক মোহাম্মদ ইয়াছিন, ইস্ট ডেল্টা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর সিকান্দর খান, জাপানের অনারারী কনস্যুল জেনারেল মো. নুরুল ইসলাম, উইম্যান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি’র সিনিয়র সহ-সভাপতি আবিদা মোস্তফা, চিটাগাং ক্লাব লিঃ’র প্রাক্তন চেয়ারম্যান মিয়া আবদুর রহিম, জেএফ (বাংলাদেশ)’র সিইও এ কিউ আই চৌধুরী, শান শাইন কলেজ’র প্রিন্সিপাল গাজী সাফিয়া রহমান ও লিটল জুয়েলস স্কুলের প্রিন্সিপাল দিলরুবা আহমেদ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন চেম্বার পরিচালক সৈয়দ জামাল আহমেদ, এ কে এম আক্তার হোসেন, মো. অহীদ সিরাজ চৌধুরী স্বপন, অঞ্জন শেখর দাশ, বেনাজির চৌধুরী নিশান, সাকিফ আহমেদ সালাম, শাহজাদা মো. ফৌজুল আলেফ খান, দক্ষিণ আফ্রিকার অনারারী কনসাল মো. সোলায়মান আলম শেঠ, উইম্যান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি’র সহ-সভাপতি ডা. মুনাল মাহবুব ও পরিচালক লুৎমিলা ফরিদ, প্রান্তিক গ্রুপের এমডি ইঞ্জি. গোলাম সরওয়ার, বিএসআরএম’র লীড সিএসআর রুহী মুর্শিদ আহমেদ ও সাহাবুদ্দিন রাজ, উইলিয়াম কেরী একাডেমী’র ডাইরেক্টর পল বেটি প্রমূখ।

The Post Viewed By: 27 People

সম্পর্কিত পোস্ট