চট্টগ্রাম রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯

১৮ নভেম্বর, ২০১৯ | ২:৩৬ পূর্বাহ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক

৩১ নং আলকরণ ওয়ার্ড

অবৈধ দোকানে ম্লান রেল স্টেশনের সৌন্দর্য

চট্টগ্রাম রেল স্টেশন। যেখানে প্রতিদিন প্রায় ১৫ হাজার মানুষের আনাগোনা। প্রতিদিনই বিভিন্ন জেলার মানুষের পদচারণা হয় এই স্টেশন দিয়েই। রেল স্টেশনের ভেতরে কিছুটা ঝকঝকে-তকতকে হলেও বাইরের চিত্র এর উল্টো। স্টেশনের মূল ফটক থেকে শুরু করে পুরো এলাকায় দখলে নিয়ে ছোট ছোট দোকান বসিয়ে নষ্ট করছে স্টেশনের পুরো সৌন্দর্য। কর্তৃপক্ষ ও সিটি কর্পোরেশন থেকে ফুটপাত দখল করে দোকান বা হকার বসা নিষিদ্ধ থাকলেও স্থানীয় কিছু কতিপয় রাজনৈতিক প্রভাবশারীরা টাকার বিনিময়ে এসব দোকান বসিয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে। যার জন্য এসব দোকান থেকে প্রতিদিন ও সাপ্তাহিক চাঁদা আদায় করে।

সরেজমিনে দেখা যায়, চট্টগ্রাম রেল স্টেশরে মূল ফটক থেকে বের হওয়ার সময় হাতের ডানে-বামে রয়েছে একাধিক ছাতা। এসব ছাতার নিচে বসানো হয়েছে খাবার দোকান, মোবাইলের দোকানসহ অস্থায়ী ‘ভাত ঘর’ও। স্টেশনের সামনেই রয়েছে পুলিশের অস্থায়ী ক্যাম্প। এই ক্যাম্পের পাশেও রয়েছে একাধিক দোকান। এসব দোকানের কারণে সড়ক থেকে স্টেশন চেনাও খুব কষ্টকর।

যাত্রীরা জানায়, স্টেশনের ভেতরের পরিবেশ কিছুটা ঝকঝকে হলেও বাইরের অবস্থা দেখে ভিন্ন। পাশেই রেলওয়ে থানা। আবার স্টেশনের সামনেই অস্থায়ী একটি পুলিশ ক্যাম্পও রয়েছে। অথচ পুলিশ ক্যাম্পের পাশেই গড়ে তোলা হয়েছে একাধিক দোকান। যার জন্য পুরো স্টেশনের সৌন্দর্য ম্লান হয়ে আছে। দোকানগুলো থাকায় সড়ক থেকেও চট্টগ্রাম স্টেশনকে চেনা খুবই দায়। এসব দোকান তুলে দিলে স্টেশনের সৌন্দর্য আরও বৃদ্ধি পাবে বলে অভিমত তাদের। চট্টগ্রাম রেলওয়ে পুলিশের ওসি মোস্তাফিজুর রহমান পূর্বকোণকে বলেন, ‘এসব দোকানের অবস্থান রেলওয়ের বাইরে তথা ফুটপাতে।

যার কারণে আমরা চাইলেও উচ্ছেদ করার সুযোগ নেই। একমাত্র সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ উচ্ছেদ করতে পারে। তাহলেও স্টেশনের আরও সৌন্দর্য ফিরে আসবে’।

The Post Viewed By: 40 People

সম্পর্কিত পোস্ট