চট্টগ্রাম সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯

১৮ নভেম্বর, ২০১৯ | ২:৩৬ পূর্বাহ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রাণিসম্পদ বিভাগীয় উপপরিচালক দপ্তরে সিডিএফএ নেতৃবৃন্দ

গবাদি পশুর এলএসডি ভ্যাকসিনসহ পর্যাপ্ত চিকিৎসক দাবিতে স্মারকলিপি

লাম্পি স্কিন ডিজিজের (এলএসডি) ভ্যাকসিন ও পর্যাপ্ত চিকিৎসক নিশ্চিত করার দাবিতে চিটাগং ডেইরি ফার্ম এসোসিয়েশনের (সিডিএফএ) পক্ষ থেকে চট্টগ্রাম বিভাগীয় প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের উপপরিচালককে গতকাল রবিবার স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। এর আগে বিভাগীয় কার্যালয়ের সামনে এক সমাবেশ সংগঠনের সহ সভাপতি এয়ার মোহাম্মদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সহসভাপতি নুরুল আফছার চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক নাঈম উদ্দিন, যুগ্ম সম্পাদক শাহেদ আয়াতুল্লাহ খান, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. হানিফ, অর্থ সম্পাদক স্থপতি আরেফিন এম দোভাষ, সদস্য হারুন চৌধুরী, সুজিত কুমার দাশ, মাহাবুব আলম ও মোয়াজ্জেম বাবু।

এলএসডি’র ভয়াবহতা বর্ণনা করে বক্তারা বলেন, এমনিতেই ক্ষুরা রোগের ভ্যাকসিন অপ্রতুল। তার সাথে নতুনভাবে যোগ হয়েছে এলএসডি। দ্রুত এই রোগের ভ্যাকসিন সরবরাহের দাবি জানিয়ে বলেন, খামারিদের জন্য এটা উৎপাদন করে বা আপদকালীন আমদানি করতে হবে। একদিকে ক্ষুরারোগ খামারিদের সর্বশান্ত করছে। এখন এলএসডি মরার উপর খরার ঘা হয়ে দাঁড়িয়েছে। আরো দুঃখজনক বিষয় হল গবাদি পশুর চিকিৎসার জন্য খামারিরা সময়মত চিকিৎসক পাচ্ছেন না। চিকিৎসকরা খামারে যেতে অনীহা প্রকাশ করেন। কোন কোন উপজেলায় চিকিৎসকও নেই।

গুঁড়ো দুধ আমদানিতে অধিকমাত্রায় শুল্ক আরোপের দাবি জানিয়ে বলেন, দেশীয় ডেইরি শিল্পকে রক্ষা করতে হলে বিদেশি গুঁড়ো দুধের আগ্রাসন বন্ধ করতে হবে। হিমায়িত গরুর মাংস আমদানি বন্ধ করার দাবি জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশ এখন মাংসে স্বয়ংসম্পূর্ণ। গরু আমদানি না করেই আমরা কয়েক বছর কোরবানির ঈদ উদযাপন করতে সক্ষম হয়েছি। মাংস উৎপাদনে যেখানে আমাদের সক্ষমতা বেড়েছে, সেখানে হিমায়িত গরুর মাংস আমদানি করে আমাদের খামারিদের ক্ষতির দিকে ঠেলে দিচ্ছে।

বক্তারা বলেন, আজ আমরা উপপরিচালকের কাছ থেকে সময় নিয়েই তাকে স্মারকলিপি প্রদানের জন্য এসেছি। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত তাকে আমরা পাইনি। তাই তার কার্যালয়ের সংশ্লিষ্টদের কাছে স্মারকলিপিটি দিয়েছি। আশা করি তিনি ব্যবস্থা নেবেন।

The Post Viewed By: 33 People

সম্পর্কিত পোস্ট