চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ০২ মার্চ, ২০২১

১৭ নভেম্বর, ২০১৯ | ৩:৫০ পূর্বাহ্ণ

ইমাম হোসাইন রাজু

জনবল নিয়োগে সাড়া চমেক হাসপাতালে

আউটসোর্সিংয়ে চতুর্থ শ্রেণির ৫০৪ জন নিয়োগ প্রক্রিয়া

দীর্ঘদিনের জনবল সংকট নিরসনের উদ্যোগ নিয়েছে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতাল। নতুন করে চতুর্থ শ্রেণির ৫০৪ জনবলকে আউটসোর্সিংয়ের মাধ্যমে নিয়োগ চেয়ে মন্ত্রণালয়ের সাথে যোগাযোগ করেছে কর্তৃপক্ষ। ইতোমধ্যে এ বিষয়ে মন্ত্রণালয়ের সাড়াও পাওয়া গেছে। তবে এখন পর্যন্ত কতজন নিয়োগ দেওয়া হবে তা নিশ্চিত হয়নি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। তবুও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের আশা পূর্ণ জনবল নিয়োগ দেবে মন্ত্রণালয়। ফলে হাসপাতালের সেবার মান আরও বৃদ্ধি পাবে।

নিয়োগ চাওয়া এই ৫০৪ জনবলের মধ্যে পরিচ্ছন্নকর্মীই রয়েছে দুইশ’জন। এছাড়া ওয়ার্ড বয় একশ’ জন, আয়া ৫০ জন, স্ট্রেচার বেয়ারার ৪০ জন, ওটি এটেনডেন্ট ৩০ জন, সহকারী বাবুর্চি ৩০ জন ও লিফ্টম্যান ২০ জন। এর বাইরে লিফ্ট মেকানিক ১ জন, এসি মেকানিক ১ জন, স্যানিটারি মিস্ত্রি ২ জন, রং মিস্ত্রি ১ জন, ওয়েল্ডার ১ জন, সহকারী গার্ডেনার ২ জন, স্যানিটারি হেল্পার ১ জন, এসি মেকানিক হেল্পার ১ জন, ল্যাব এটেনডেন্ট ৮ জন, মশালছি ৬ জন ও হোস্টেল এটেনডেন্ট ১০ জন। চমেক হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, চলতি বছরের শুরুতে আউটসোর্সিংয়ের মাধ্যমে জনবল নিয়োগ চেয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের চিঠি দেয় কর্তৃপক্ষ। বিষয়টি এতদিন মন্ত্রণালয়ে থাকলেও চলতি মাসের ৪ তারিখ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ প্রশাসন-১ এর যুগ্নসচিব শাহিনা খাতুন পাঁচটি তথ্য চেয়ে ফের হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে চিঠি দেয়। তাতে বলা হয়, এসব জনবল কীভাবে ব্যবহার করা হবে, তাদের মাসিক বেতন কিভাবে দেয়া হবে এবং শূন্য পদের সংখ্যাসহ কয়েকটি বিষয় উল্লেখ করা হয়।

এ প্রসঙ্গে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাপসাতালের উপ-পরিচালক ডা. আখতারুল ইসলাম পূর্বকোণকে বলেন, ‘মন্ত্রণালয়ের চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে একটি খসড়া তৈরি করা হয়েছে। মন্ত্রণালয় যে সব বিষয়ে জানতে চেয়েছে, তা ওই খসড়াতে উল্লেখ করা হয়েছে। শীঘ্রই তা পাঠানো হবে। আশা করি এসব বিষয়ে দেখে আউটসোর্সিংয়ের মাধ্যমে নতুন করে জনবল নিয়োগ দেবে মন্ত্রণালয়। এতে করে সেবার মান আগের চেয়ে অনেক বেশি বৃদ্ধি পাবে’।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, চতুর্থ শ্রেণির অনুমোদিত পদ রয়েছে ৪৯৭টি। এরমধ্যে কর্মরত রয়েছে ৩৪২টি। বাকি ১৫৫টি পদই শূন্য। এর বাইরে একাধিকজন অবসরের অপেক্ষায় রয়েছে। তারা অবসরে গেলে আরও বেহাল অবস্থা হবে হাসপাতালের সেবা কাজে।
অন্যদিকে পাঁচ’শ শয্যা নিয়ে যাত্রা শুরু করা এই হাসপাতালটির বর্তমান শয্যা রয়েছে এক হাজার তিন’শ তেরটি। বিপরীতে প্রতিদিন বৃহত্তর চট্টগ্রামের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে তিন থেকে চার হাজার রোগী চিকিৎসা সেবা নিতে আসেন এই হাসপাতালে। জনবল সংকটের কারণে দীর্ঘদিন থেকেই হিমশিম খেতে হচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে। তবে নতুন করে এসব জনবল নিয়োগ পেলে এ সমস্যা কেটে যাবে বলে অভিমত সংশ্লিষ্টদের।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহসেন উদ্দিন আহমেদ বলেন, প্রতিদিন জরুরি বিভাগে আটশ’

রোগী চিকিৎসা সেবা নিতে ভর্তি হয়। তাদের বিভিন্ন ওয়ার্ডে স্ট্রেচার বেয়ারার মাধ্যমে নিয়ে যেতে হয়। হিসেব অনুযায়ী প্রতি ২ মিনিটে একজন রোগী ভর্তি হয় হাসপাতালের জরুরি বিভাগে। এছাড়া ৮ লাখ বর্গফুটের এ হাসপাতাল বর্তমানে ১১৯ জন পরিচ্ছন্ন কর্মী নিয়োজিত রয়েছেন। যাদের দিয়ে এত বড় একটি হাসপাতালের কাজ করা খুবই কষ্টসাধ্য। তবে নতুন করে ৫০৪ জন জনবল নিয়োগ হলে দৈনন্দিন পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন কাজ এবং অন্যান্য সেবাসমূহে অনেকাংশেই উন্নতি ঘটবে।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 271 People

সম্পর্কিত পোস্ট