চট্টগ্রাম শনিবার, ০৭ ডিসেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৩ নভেম্বর, ২০১৯ | ৫:৫০ পূর্বাহ্ন

আদালত প্রতিবেদক

সুদীপ্ত হত্যা মামলা

আ. লীগ নেতা দিদারুল আলম মাসুম কারাগারে

ছাত্রলীগ নেতা সুদীপ্ত বিশ্বাস হত্যা মামলায় আওয়ামী লীগ নেতা দিদারুল আলম ওরফে মাসুমকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। হাইকোর্টের

নির্দেশে গতকাল (মঙ্গলবার) চট্টগ্রাম চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন তিনি। শুনানি শেষে সিএমএম আদালতের বিচারক মো. ওসমান গণি অভিযুক্তের আবেদন নাকচ করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এর আগে তিনি উচ্চ আদালত থেকে জামিন লাভ করেন। পরবর্তীতে মামলার বাদি ও সুদীপ্তর বাবা মেঘনাথ বিশ্বাসের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্ট অভিযুক্তের জামিন বাতিলের আদেশ দেন। একইসাথে ৪ সপ্তাহের মধ্যে তাকে সিএমএম আদালতে আত্মসমর্পণ করার নির্দেশ দেন। ২৮ অক্টোবর আদেশের কপি সিএমএম আদালতে এসে পৌঁছে।

গত ১৫ সেপ্টেম্বর হাইকোর্ট থেকে জামিন পান মাসুম। এর আগে ৪ আগস্ট ঢাকার বনানী থেকে মাসুমকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। পরে তাকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদও করা হয়। গ্রেপ্তারের পর ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তার জামিনের আবেদন করা হয়। সেখানে আবেদন নাকচ হওয়ার পর মহানগর দায়রা জজ আদালতে আবেদন করেন তার আইনজীবী ২৯ আগস্ট। সেখানে নাকচ হওয়ায় পর তারা উচ্চ আদালতে যান। মাসুম নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের অনুসারী হিসেবে পরিচিত।
নগর ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক সুদীপ্ত বিশ্বাসকে খুনের নির্দেশদাতা ও পরিকল্পনাকারী ‘বড় ভাই’ হিসেবে দিদারুলের নাম উঠে আসে ছাত্রলীগ কর্মী মিজানুর রহমানের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে। ১২ জুলাই চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার জাহান এর আদালতে মিজান এ জবানবন্দি দেন।

মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী কমিশনার (প্রসিকিউশন) কাজী শাহাবুদ্দিন আহমেদ পূর্বকোণকে বলেন, আদালত আসামির জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন। তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
প্রসঙ্গতঃ ২০১৭ সালের ৬ অক্টোবর নগরের সদরঘাট থানার দক্ষিণ নালাপাড়ার বাসা থেকে ডেকে নিয়ে সুদীপ্তকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। তিনি আওয়ামী লীগের প্রয়াত নেতা এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর অনুসারী হিসেবে পরিচিত ছিলেন।

The Post Viewed By: 46 People

সম্পর্কিত পোস্ট