চট্টগ্রাম শনিবার, ০৭ ডিসেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৩ নভেম্বর, ২০১৯ | ৫:৪২ পূর্বাহ্ন

সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী খতিজা

সীতাকু-ে বৃদ্ধ মহিলাকে ভিটা থেকে উচ্ছেদের অভিযোগ

সীতাকু-ে ভাটিয়ারী ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড জাহানাবাদের বাসিন্দা মৃত নুরুল আলমের স্ত্রী নিরীহ বৃদ্ধা খতিজা বেগমকে তার দীর্ঘদিনের দখলকৃত বসতভিটা থেকে উচ্ছেদ করার পায়তারা করছে বলে অভিযোগ উঠেছে। গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১১টায় সীতাকু- প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য তিনি এ অভিযোগ করেন। ভুক্তভোগী বৃদ্ধা খতিজা বেগম বক্তব্যে বলেন, চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের আওতাধীন এল এ শাখার মামলা নং ০৭/২০১৭-১৮ইং মূলে গ্যাস পাইপ লাইন আমার ভিটার উপর দিয়ে পড়লেও আমাকে তারা কোনো নোটিশ দেননি। কিন্তু দুঃখের সঙ্গে বলতে হয় সিটিজিএল গ্যাস কোম্পানি কর্মকর্তা কার্তিক, হাসেম, সফিক এবং রুবেল ও ফরহাদের নেতৃত্বে জোরপূর্বক আমার দীর্ঘদিনের লাগানো গাছ নির্বিচারে কেটে ফেলে। শুধু তাই নয়, আমার বসতঘরের পেছনের সেমিপাকা গোসলখানা ও রান্নাঘর ভেঙে ফেলেছে তারা। এল এ শাখার সার্ভেয়ার সেলিম, মঞ্জু ও ইব্রাহীমের যোগসাজশে আমার বসতঘর ও গাছের ক্ষতিপূরণের কোন নোটিশ না দিয়ে উত্তর পাশের্^র ঘরের মালিক মানিক চৌধুরী ও পূর্ব পাশের্^ নাছির চৌধুরীকে ৬ লাখ ৯০ হাজার ২৯৩ টাকা করে দিলেও আমাকে টাকা বা নোটিশ দেওয়া হয়নি। তাই কোন উপায় না দেখে এর প্রতিকার চেয়ে বাধ্য হয়েছি প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করতে। তাই প্রধানমন্ত্রী এবং গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়, ভূমি মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি আমার ন্যায্য পাওনা যেন আমি পেতে পারি। এসময় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ভুক্তভোগী বৃদ্ধার ছেলে কামাল হোসেন বাবলু, শওকত হোসেন, পুত্রবধূ ফারজানা আক্তার, জানে আলম, মামুন চৌধুরী, মো. সালাউদ্দিন, তাহের ও জয়নাল আবেদীন প্রমুখ। এদিকে অভিযুক্ত কার্তিকের কাছে সাংবাদিকরা জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটি খাস ভূমি হলেও অন্যায়ভাবে আমরা কিছু করিনি। ভুক্তভোগীরা ক্ষতিপূরণ চাইলে তা আলাপ আলোচনার মাধ্যমে তাদের ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা করা হবে।

The Post Viewed By: 37 People

সম্পর্কিত পোস্ট