চট্টগ্রাম শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯

১৩ নভেম্বর, ২০১৯ | ৫:৩০ পূর্বাহ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রশান্তির নেভালে সন্ধ্যা নামলেই অস্বস্তি বাড়ে

৪১ নং দক্ষিণ পতেঙ্গা ওয়ার্ড

একটু প্রশান্তি আর বিনোদনের জন্য যেকোন বয়সের হাজারো মানুষ প্রতিদিন ভিড় জমায় নেভাল পাড়ে। পরিবার নিয়েও অনেকে বেড়াতে যায় ছুটির দিনে। কিন্তু দিনের আলো শেষে অন্ধকার নামার সাথে সাথে চিত্র বদলে যায় ওই এলাকার। মাদক সেবনসহ চলে অসামাজিক কার্যকালাপের মত নানা অপকর্ম। এ নিয়ে বিনোদনপ্রেমিদের মাঝে যেমন রয়েছে ক্ষোভ তেমনি স্থানীয়দেরও রয়েছে নানা অভিযোগ।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, নেভাল পাড়ের টিনসেটের দোকানগুলোতে চা-নাস্তা, কাঁকড়াসহ বিভিন্ন রকমের খাদ্য বিক্রির আড়ালে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী দেদারচ্ছে চালিয়ে যাচ্ছে মাদক ব্যবসা। এছাড়াও গোপনে কিছু দোকান ছোট ছোট রুম করে ঘণ্টা হিসেবে ভাড়ার ব্যবস্থাও করেছে। এসব নিয়ে কয়েকবার আইনশৃঙ্খলাবাহিনী সেখানে অভিযানও চালিয়েছে। কিন্তু তাতেও বন্ধ হয়নি এমন কার্যকালাপ।
স্থানীয়রা জানান, প্রতিদিন হাজারো পর্যটকের ভিড় জমে নেভাল পাড়ে। সমুদ্র পাড়ে বসে অপরূপ দৃশ্য পর্যটনদের কাছে টানে। কিন্তু এখানে এসে কিছু যুবক যুবতী নিজেদের জড়িয়ে ফেলেন বিভিন্ন অপরাধের সাথে। আর তাদের সহযোগিতা দিচ্ছে নেভাল পাড়ের দোকানিরা। এতে বাদ নেই নগরীর বিভিন্ন স্কুল, কলেজ পড়–য়া শিক্ষার্থীরাও। বেড়ানোর নাম করে আসার পর তারাও জড়িয়ে পড়ে এসব অপকর্মে। দিনের আলো কমার সাথে সাথে মাদকসহ বিভিন্ন অপকর্ম চলে পাড়ে গড়ে ওঠা দোকনগুলোতে। যার কারণে পর্যটনের চেয়ে সন্ধায় সেখানে মাদকসেবিদের আড্ডা বেশি বলেও জানান স্থানীয়রা।

এবিষয়ে জানতে চাইলে পতেঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) উৎপল বড়–য়া পূর্বকোণকে বলেন, ‘মাদকের ব্যাপারে পুলিশ সবসময় জিরো টলারেন্সে থাকে। ওই এলাকায় এমন হওয়ার কথা নয়। আমরা বহু আগেই সেখান থেকে সব কিছু বন্ধ করে দিয়েছি। এখনও নিয়মিত অভিযান চালানো হয়। তারপরও যদি এমন কোন অভিযোগ থাকে তা হলে আমাদের তথ্য দিন। তাদের বিষয়ে আমরা কঠোর ব্যবস্থা নিব।’

The Post Viewed By: 69 People

সম্পর্কিত পোস্ট