চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

৮ নভেম্বর, ২০১৯ | ২:৫১ পূর্বাহ্ন

নিজস্ব সংবাদদাতা হ হাটহাজারী

ভল্টের চাবি নিয়ে যাওয়ায় লেনদেনে বিড়ম্বনা, অভিযোগ থানায়

অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে সোনালী ব্যাংক হাটহাজারী শাখার ক্যাশ ইনচার্জ

সোনালী ব্যাংক হাটহাজারী শাখার ক্যাশ ইনচার্জকে অজ্ঞান করে ভল্টের চাবি নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা । ব্যাংকের ক্যাশ ইনচার্জ জাফর আহমেদ নগরীর মুরাদপুর থেকে হাটহাজারীতে ব্যাংকে আসার পথে দ্রুতযান বাস সার্ভিসের বাসে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়েন। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে এ ঘটনায় হাটহাজারী থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বলে সূত্রে প্রকাশ। সূত্রে জানা গেছে, ব্যাংকের ক্যাশ ইনচার্জ জাফর আহমেদ গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৯ টায় ব্যাংকে আসার উদ্দেশ্যে নগরীর মুরাদপুর থেকে দ্রুতযান বাসে উঠেন। বাস কিছুদূর আসার পর সিটে বসা যাত্রীবেশী অজ্ঞান পার্টি চক্রের সদস্য জাফর

আহমেদকে মাথায় এক ধরনের পাউডার ছিটিয়ে দেয়। সাথে সাথে তিনি অজ্ঞান হয়ে পড়েন। এসময় জাফরের সাথে থাকা চাবির ব্যাগটি টাকার ব্যাগ মনে করে নিয়ে নেয়। ব্যাগটিতে টাকা না থাকলেও সোনালী ব্যাংক হাটহাজারী শাখার ক্যাশ ভল্টের সবগুলো চাবি ছিল। পরে প্রায় ১৫ মিনিট পর জাফরের জ্ঞান ফিরলে তিনি অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়ার বিষয়টি পার্শ্বের যাত্রীদের জানান। কিন্তু ততক্ষণে অজ্ঞান পার্টির চক্রের সদস্য হাওয়া । পরে জাফর আহমদ হাটহাজারীতে ব্যাংকে পৌঁছে ব্যবস্থাপককে বিষয়টি জানান।

এদিকে ব্যাংকের চাবি নিয়ে যাওয়ার কারণে ভল্ট খুলতে না পারায় দিনভর বিড়ম্বনার শিকার হয় ব্যাংকের গ্রাহকরা। অবশ্য ব্যাংক কর্তৃপক্ষ লোকাল ব্যাংক থেকে সাময়িক ধার করা টাকায় গ্রাহকের চাহিদা মেটায়। ছোট লেনদেন হলেও বড় অংকের লেনদেন করা যায়নি। পরে বিকেল সোয়া চারটার দিকে সোনালী ব্যাংক লালদিঘি কর্পোরেট শাখা থেকে ব্যাংকের বিকল্প চাবি এনে হাটহাজারী শাখার ভল্ট খোলা হয়। দিনের লেনদেন শেষে ব্যাংকের ভল্টে রক্ষিত সব টাকা রাতে লালদিঘি শাখায় পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।

সোনালী ব্যাংক হাটহাজারী শাখার ব্যবস্থাপক সিনিয়র প্রিন্সিপাল অফিসার মিন্টু রাম দাশ জানান, বিকল্প মাধ্যমে টাকা সংগ্রহ করে সীমিত আকারে লেনদেন চালু করা গেলেও বড় অঙ্কের লেনদেনগুলো করতে সমস্যা হয়েছে। তবে বিকেলে সোনালী ব্যাংকের লালদিঘি শাখা থেকে বিকল্প চাবি এনে ভল্ট খোলা হয়েছে। নিরাপত্তার স্বার্থে ব্যাংকের ভল্টে রক্ষিত সব টাকা গতরাতে লালদিঘি শাখায় পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। আগামী সোমবার ব্যাংকের হেড অফিস থেকে লোকজন এসে ভল্টের নতুন চাবি দেবে বলে উল্লেখ করে ব্যবস্থাপক বলেন এ ঘটনায় হাটহাজারী থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে ।

The Post Viewed By: 73 People

সম্পর্কিত পোস্ট