চট্টগ্রাম শনিবার, ২৩ নভেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

৮ নভেম্বর, ২০১৯ | ২:২৭ পূর্বাহ্ন

চার দিনব্যাপী ঈদে মিলাদুন্নবী (স.) উদ্বোধনে বায়তুশ শরফের পীর ছাহেব

প্রতিটি সৃষ্টি আনন্দে আত্মহারা রাসূল (সা.)-এর আগমনে

বায়তুশ শরফ আনজুমনে ইত্তেহাদ কর্তৃক পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (স.) উদ্যাপন উপলক্ষে ৪ দিনব্যাপি ইসলামী সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা, পাখ-পাখালীর আসর, শানে মোস্তফা (স.), গুণীজন সংবর্ধনা ও আজিমুশশান ওয়াজ মাহফিলের উদ্বোধন অনুষ্ঠান গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় বায়তুশ শরফ কমপ্লেক্সে অনুষ্ঠিত হয়। বায়তুশ শরফের পীর বাহরুল উলুম আল্লামা শাহ মোহাম্মদ কুতুব উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও মজলিসুল ওলামার মহাসচিব মাওলানা মামুনুর রশিদ নুরীর পরিচালনায় এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বায়তুশ শরফ আদর্শ কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. মাওলানা সাইয়েদ মুহাম্মদ আবু নোমান। মিলাদ শরীফ পাঠ করেন বায়তুশ শরফ মসজিদের খতিব মাওলানা নুরুল ইসলাম। আরও উপস্থিত ছিলেন, মোহাম্মদ মীর আনোয়ার আহমদ, রফিক আহমদ, লুৎফল করিম, মাওলানা মোহাম্মদ ওবায়দুল্লাহ, হাফেজ মোহাম্মদ আমান উল্লাহ, মাওলানা আবুল হায়াত মোহাম্মদ তারেক, উপাধ্যক্ষ মাওলানা মুহাম্মদ আমিনুল ইসলাম, মোহাম্মদ জাফর উল্লাহ, মাওলানা সালাহ উদ্দিন মোহাম্মদ বেলাল, মোহাম্মদ আবদুল কাইয়ুম, মুহাদ্দিস মাওলানা মুহাম্মদ জুনাইদ, মাওলানা কাজী জাফর আহমদ প্রমুখ। সভাপতির ভাষণে আল্লামা শাহ মোহাম্মদ কুতুব উদ্দিন বলেন, আল্লাহর পক্ষ থেকে একটি নূর এসেছেন এবং একটি সু-স্পষ্ট কিতাব অবতীর্ণ হয়েছে। রাসূল (সা.)-এর আগমনে আসমান-জমিনের প্রতিটি সৃষ্টি খুশিতে আত্মহারা। আল্লাহর প্রতিটি সৃষ্টি তাদের নিজেদের ভাষায় তাঁর তা’জীম করেন। যুগে যুগে মানুষের কল্যাণের দিক নির্দেশনার জন্য আল্লাহ পয়গম্বর প্রেরণ করেছেন। তাদের মধ্যে যিনি সর্বশ্রেষ্ঠ, যিনি সর্বশেষে আবির্ভূত হয়েছেন তিনি হলেন নবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)। তিনি সারা বিশ্বের জন্য রহমত স্বরূপ।-বিজ্ঞপ্তি

The Post Viewed By: 38 People

সম্পর্কিত পোস্ট