চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

২২ অক্টোবর, ২০১৯ | ১:৫১ পূর্বাহ্ন

আঞ্চলিক আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় বিভাগীয় কমিশনার

ভোলার ঘটনাকে ইস্যু করে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করলে রেহাই নেই

চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান বলেছেন, সরকারের নির্দেশনায় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতার কারণে জঙ্গিবাদ প্রায় নির্মূল হয়ে গেছে। ক্যাসিনো, মাদক, সন্ত্রাস পুরোপুরি নির্মূল করতে না পারলেও কতটুকু প্রশমিত করা যায় সে বিষয়গুলো প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে দেখতে হবে। ফেসবুক পোস্ট নিয়ে ভোলার ঘটনায় সরকার কাউকে ছাড় দেবেনা। এ ঘটনাকে ইস্যু করে এখানে কেউ কোন ধরনের অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি বা ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা করা হলে রেহাই নেই। গতকাল সোমবার চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে পৃথকভাবে অনুষ্ঠিত চট্টগ্রাম আঞ্চলিক টাস্কফোর্স সভা, বিভাগীয় আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভা, জেলা প্রশাসক সমন্বয় সভা ও বিভাগীয় রাজস্ব সম্মেলনে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বিগত সভার সিদ্ধান্ত ও অগ্রগতি তুলে ধরেন বিভাগীয় কমিশনার অফিসের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ ইনামুল হাসান, মো. মোজাম্মেল হক ও মো. মামুন।

তিনি বলেন, টাস্কফোর্সের সকল অভিযানগুলো সন্তোষজনক পর্যায়ে রয়েছে। এ অভিযানগুলো আরো জোরদার করতে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, র‌্যাব, বিজিবি ও কোস্টগার্ডসহ সংশ্লিষ্টদেরকে আরো বেশি তৎপর হতে হবে। মাদক, চোরাচালান, ছিনতাই, ধর্ষণ, শ্লীলতাহানি, চুরি-ডাকাতি, ইভটিজিং, জায়গা-জমি সংক্রান্ত বিরোধ ও অন্যান্য অপরাধে প্রতিনিয়ত হাজার হাজার মামলা রুজু হচ্ছে। বিচারক সংকট, ধার্য তারিখে মামলার শুনানি না করা, আইনজীবীদের ব্যস্ততা ও বিভিন্ন কারণে আদালতগুলোতে মামলার জট লেগে আছে। ।

বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত পৃথক সভাগুলোতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জ ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক, সিএমপি কমিশনার মো. মাহাবুবর রহমান, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) শংকর রঞ্জন সাহা, বিভাগীয় স্থানীয় সরকার পরিচালক দীপক চক্রবর্তী, বিজিবি’র রিজিয়ন কমান্ডার ব্রি. জেনারেল মো. আমীরুল ইসলাম সিকদার, ডিজিএফআই’র পরিচালক ব্রি. জেনারেল মোহাম্মদ এমদাদ উল্লাহ ভূঁইয়া, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মো. নুরুল আলম নিজামী, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (রাজস্ব) মো. হাবিবুর রহমান, সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামসুদ্দোহা, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মো. নুরুল আলম নিজামী, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (রাজস্ব) মো. হাবিবুর রহমান, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন (চট্টগ্রাম) প্রমুখ।-বিজ্ঞপ্তি

The Post Viewed By: 52 People

সম্পর্কিত পোস্ট