Array ( [trans_dt] => 1 [trans_cmnt] => 1 [trans_num] => 1 [trans_cal] => 1 [en_tz] => 6 [dt_change] => 0 [bangla_tz] => 6 [hijri_adjust] => -24 [separator] => , [ord_suffix] => 1 [last_word] => 1 ) দৈনিক পূর্বকোণ | বাংলাদেশে আধুনিক সংবাদপত্রের পথিকৃৎ অপহরণের ৫২ ঘণ্টা পর শিশু ছাত্রের লাশ উদ্ধার | দৈনিক পূর্বকোণ

চট্টগ্রাম সোমবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

২১ অক্টোবর, ২০১৯ | ২:১৮ am

এম জাহেদ চৌধুরী হ চকরিয়া-পেকুয়া

পেকুয়ায় খালাত ভাইসহ দু’জনকে আটক

অপহরণের ৫২ ঘণ্টা পর শিশু ছাত্রের লাশ উদ্ধার

১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ না পাওয়ায় শ^াসরোধ

কক্সবাজারের পেকুয়ায় প্রথম শ্রেণিতে পড়–য়া শিশু ছাত্রকে অপহরণের পর দাবিকৃত ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ না পেয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। অপহরণের ৫২ ঘণ্টা পর শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িত অভিযোগে নিহত শিশুর খালাত ভাইসহ দুইজনকে আটক করছে পুলিশ। শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে শিশুর মরদেহ উদ্ধার হয়।
নিহত শিশু আরাফাত বারবাকিয়া ইউনিয়নের কাদিমাকাটা এলাকার প্রবাসী রুহুল কাদেরের ছেলে। সে স্থানীয় একটি মাদ্রাসার নুরানী শাখার ১ম শ্রেণির ছাত্র।

আটকরা হলো, পেকুয়া উপজেলার মগনামা ইউনিয়নের দরদরিঘোনা এলাকার আবু তাহেরের ছেলে মো. রায়হান ও মিয়াজিপাড়া এলাকার আনোয়ার হোসেনের ছেলে মো. মানিক।

নিকটাত্মীয়, পাড়ার লোকজন ও পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টার দিকে বাড়ির কাছে বন্ধুদের সাথে খেলছিল শিশুছাত্র আরাফাত। খেলার ফাঁকে খালাতভাই রায়হান ও তার সহযোগী মানিক ফুসলিয়ে আরাফাতকে অজানা স্থানে নিয়ে যায়। ওইরাতে মুঠোফোনে আরাফাতের মায়ের কাছ থেকে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। এ ঘটনায় উদ্বিগ্ন শিশুটির মা সাথে সাথে পেকুয়া থানা পুলিশের শরণাপন্ন হন। পুলিশ ঘটনা শুনেই অপহরণকারীদের ধরতে অভিযান শুরু করে। সেদিন মধ্যরাত ও শুক্রবার বিকালে রায়হান ও মানিককে আটক করে। তাদের ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের পর স্বীকারোক্তি মোতাবেক দুইজনকে সাথে নিয়ে মগনামার মগঘোনা এলাকার ধান ক্ষেত থেকে শিশু আরাফাতের মরদেহ উদ্ধার করে শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে।
পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল আজম বলেন, অপরহরণের অভিযোগ পেয়ে পুলিশ অপহরণকারী দুইজনকে আটক করে। তাদের দেয়া তথ্যমতে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালায় পুলিশ। বিভ্রান্তিকর তথ্য দিয়ে তারা পুলিশকে দুইদিন ধরে বিভিন্ন জায়গায় ঘুরায়। পরে তাদের একজনের স্বীকারোক্তি মতে অপহৃত শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

ওসি কামরুল আজম আরো বলেন, এ ঘটনায় জড়িত আটক দুইজনের বিরুদ্ধে নিহত শিশুর মা রোজিনা আক্তার বাদি হয়ে অপহরণ ও হত্যার অভিযোগে মামলা দায়ের করেছেন। তাদের রবিবার (গতকাল) আদালতে পাঠানো হয়েছে। অপহরণ, হত্যার পূর্ণাঙ্গ তথ্য পেতে তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ড চেয়ে আবেদন করা হয়েছে।।

The Post Viewed By: 338 People

সম্পর্কিত পোস্ট