চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর, ২০১৯

২১ অক্টোবর, ২০১৯ | ২:১৮ পূর্বাহ্ণ

লামায় ৬ সন্তানের জননীকে জবাই করে হত্যা

বান্দরবানের লামা উপজেলার সদর ইউনিয়নে এক ৬ সন্তানের জননীকে জবাই করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল (রোববার) রাতের কোন এক সময় নিজ বাড়ির শয়নকক্ষে এ খুনের ঘটনা ঘটে।

নিহত গোলাপী বেগম (৪৮) সদর ইউনিয়নের চিউনী খাল পাড়ার মো. শাহজাহানের স্ত্রী। তার স্বামী মো. শাহজাহান বলেন, ‘ভোর ৫টায় মায়ের সাথে ঘুমানো তার ৪ বছরের সন্তান আছিয়া বেগম ঘুম থেকে উঠে চিৎকার করলে বাড়ির অন্যান্য লোকজন এসে রক্তাক্ত গোলাপী বেগমের জবাই করা লাশ পড়ে থাকতে দেখে। রাতে আমার ছোট মেয়ে আছিয়া বেগম (৪) ও বড় ছেলে মো. জসিমের মেয়ে আমেনা আক্তার (৩) নিহতের সাথে ঘুমিয়েছিল। যে দা দিয়ে আমার স্ত্রীকে জবাই করা হয়েছে সে দা’টি আমার ঘরের। জবাই করা লাশের পাশে দা-টি পড়ে থাকতে দেখা যায়। এই সংসারে আমার ২ ছেলে ও ৪ মেয়ে’।
তিনি আরো বলেন, ‘আমি গত কয়েকদিন যাবৎ আমার ছোট স্ত্রী জাহানারা বেগমের (৪৫) সাথে ছিলাম। গতরাতেও সেখানে ঘুমিয়েছি। ভোরে বড় ছেলে মো. জসিম আমাকে খবর দিলে আমি দৌড়ে আসি। বাড়িতে পাশের ঘরে আমার মা ও অন্য সন্তানরা ঘুমিয়েছিল।

নিহতের বড় ছেলে মো. জসিম বলেন, ‘আমি পাশে আলাদা বাড়িতে স্ত্রী নিয়ে বসবাস করি। সকালে কান্না ও চিৎকারের শব্দ পেয়ে এগিয়ে আসি। আমার মেয়ে আমেনা বেগম রাতে তার দাদীর সাথে ঘুমিয়েছিল। কী কারণে আমার মাকে খুন করা হয়েছে আমি জানি না’। এদিকে স্বজনদের আহাজারিতে নিহতের বাড়িতে শোকের ছায়া নেমে আসে।
খুনের ঘটনার খবর পেয়ে সঙ্গীয় পুলিশ সদস্যদের নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ অপ্পেলা রাজু নাহা। তিনি খুনের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, লাশের সুরতহাল করা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ বান্দরবান জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হবে।
সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মিন্টু কুমার সেন বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ও সেনাবাহিনী নিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়েছি। খুনের কারণ জানা যায়নি।

The Post Viewed By: 77 People

সম্পর্কিত পোস্ট