চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর, ২০১৯

২১ অক্টোবর, ২০১৯ | ২:১৮ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব সংবাদদাতা হ হাটহাজারী

ভোলার ঘটনার প্রতিবাদ

বিক্ষোভ-অবরোধ হাটহাজারীতে থানায় ইটপাথর নিক্ষেপ

ভোলার বোরহান উদ্দিনে জনতার মিছিলে পুলিশের গুলিতে ৪ জন নিহত হওয়ার ঘটনায় হাটহাজারীতে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে। তৌহিদি জনতার মিছিলে পুলিশি হামলার প্রতিবাদে হেফাজতের প্রধান কেন্দ্র দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম মাদ্রাসার ছাত্রদের বিক্ষোভ মিছিল থেকে থানায় ইট-পাথর নিক্ষেপ করে থানার গ্লাস ভাঙচুর, থানা ঘেরাও ও চট্টগ্রাম হাটহাজারী-খাগড়াছড়ি-রাঙামাটি মহাসড়ক অবরোধের ঘটনা ঘটেছে। রাত সোয়া ৮টায় পর্যন্ত ৩ ঘন্টা মহাসড়ক অবরোধ থাকায় দুই পার্বত্য জেলাসহ উত্তর চট্টগ্রামের শত শত গাড়িতে আটকে থাকা যাত্রীরা অবর্ণনীয় দুর্ভোগের শিকার হন। হাটহাজারী মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের উদ্যোগে রাত সোয়া আটটার দিকে অবরোধ প্রত্যাহার করে বিক্ষোভকারীরা। তবে রাতে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এ ঘটনায় থানায় কোন মামলা হয়নি বলে থানা সূত্র জানিয়েছে। পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে বলে জানিয়েছেন হাটহাজারী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বেলাল উদ্দিন জাহাঙ্গীর।

গতকাল রবিবার বিকেল পাঁচটার দিকে হাটহাজারী মাদ্রাসার ছাত্রদের এই প্রতিবাদী বিক্ষোভ শুরু হয়। বিক্ষোভ মিছিল খাগড়াছড়ি সড়কে হাটহাজারী বাজার হয়ে হাটহাজারী মডের থানা ভবন প্রদক্ষিণের সময় বিক্ষোভকারীরা থানা ভবনে ইট পাটকেল ছুড়তে থাকে। এসময় সময় পুলিশ কোন প্রতিরোধ করেনি। হামলায় থানার সামনের বেশ কিছু গ্লাস ভেঙ্গে যায়। এরপর থেকে হাটহাজারী বাজারসহ সদরের প্রায় দোকানপাট বন্ধ হয়ে যায়। অসমর্থিত সূত্রে বিক্ষোভকারীদের দুইজন আহত হয়েছে বলে জানা গেলেও তাদের নাম পরিচয় পাওয়া যায়নি। বিক্ষোভকারীরা মিছিল নিয়ে উপজেলা সদরের বাস স্টেশন কাচারী সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এসময় মহাসড়কের উপর দাড়িয়ে মাগরিবের নামাজ আদায় করে বিক্ষেভকারীরা। পরে হাটহাজারী বাস স্টেশনের জিরো পয়েন্টে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভকারীরা চট্টগ্রাম হাটহাজারী-খাগড়াছড়ি-রাঙামাটি মহাসড়ক অবরোধ করে। রাত আটটার দিকে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছিল। এসময় মহাসড়কে পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রকাশ্য কোন অভিযান দেখা যায়নি।

এদিকে, দফায় দফায় হাটহাজারী মাদ্রাসা থেকে মাইকে ঘোষণা দিয়ে হেফাজত মহাসচিব মাওলানা জোনায়েদ বাবুনগরী বিক্ষোভকারী ছাত্রদের মাদ্রাসার ভিতরে চলে যাওয়ার ঘোষণা দিলেও বিক্ষোভকারীরা মহাসড়ক ছাড়েনি। এক পর্যায়ে মাদ্রাসার সিনিয়র শিক্ষকদের উদ্যোগে মাওলানা জোনায়েদ বাবুনগরীর আহ্বানে বিক্ষোভকারীরা রাত প্রায় সোয়া আটটার দিকে মহাসড়ক ছেড়ে স্থান ত্যাগ করে। এরপর পরিস্থিতি স্বাভাবিকের দিকে যায়।
হাটহাজারী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বেলাল উদ্দিন জাহাঙ্গীর গতরাত ৯টায় ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে দৈনিক পূর্বকোণকে বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। বিক্ষোভকারীরা থানায় ইট-পাটকেল মেরেছে। কোন আহত বা গ্রেপ্তার নেই।

হেফাজতে ইসলামের বিবৃতি
ভোলা জেলার বোরহানউদ্দীনে আজ সকালে ছাত্র-জনতার শান্তিপূর্ণ মিছিলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বর্বরোচিত হামলায় আহত ও নিহত হওয়ার ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলামের আমীর, দারুল উলুম হাটহাজারীর মহাপরিচালক আল্লামা শাহ আহমদ শফী ও হেফাজত মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী। রবিবার (২০ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৭টায় গণমাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে হেফাজত নেতৃবৃন্দ এ প্রতিবাদ জানান।
বিবৃতিতে হেফাজত নেতৃদ্বয় বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের ম্যাসেঞ্জারে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) ও তার পরিবারবর্গ নিয়ে কটুক্তি ও অবমাননাকারী হিন্দু যুবক বিপ্লব চন্দ্র শুভকে আইনের আওতায় না এনে উল্টো ছাত্র জনতার শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ মিছিলে হামলা করে পুলিশ চরম ধৃষ্টতার পরিচয় দিয়েছে। অবিলম্বে রাসূল সা. এর কটুক্তিকারী হিন্দু যুবক এবং হামলাকারী পুলিশ সদস্যদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করুন। অন্যথায় নবীপ্রেমিক জনতা অসহযোগ আন্দোলন গড়ে তুলবে।

হেফাজত নেতৃদ্বয় আরো বলেন, বাংলাদেশে কিছুদিন পরপর এমন ঘটনা ঘটছে। নবী অবমাননা যেন আর না হয় আমি সরকারের কাছে নবী অবমাননার সর্বোচ্চ মৃত্যুদ- করে আইন পাশ করার জোর দাবি জানাচ্ছি। হেফাজত নেতৃদ্বয় আরো বলেন, বোরহান উদ্দীনে আজকের শান্তিপূর্ণ মিছিলে পুলিশ কর্তৃক বর্বরোচিত ঘটনায় যারা প্রাণ হারিয়েছে তাঁরা নিঃসন্দেেহ শহীদ। উক্ত শহীদদের শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি এবং আহত তাওহীদি জনতার আশুসুস্থতা কামনা করছি।

The Post Viewed By: 168 People

সম্পর্কিত পোস্ট