চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

২০ অক্টোবর, ২০১৯ | ১০:২৫ অপরাহ্ন

হাটহাজারী সংবাদদাতা

ভোলায় ৪ জন নিহত হওয়ার প্রতিবাদ

হাটহাজারীতে বিক্ষোভ, মহাসড়ক অবরোধ, থানা ঘেরাও

ভোলার বোরহান উদ্দিনে মিছিলে পুলিশের গুলিতে চার জন নিহত হওয়ার ঘটনায় হাটহাজারীতে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে। মিছিলে পুলিশি হামলার প্রতিবাদে হেফাজতের প্রধান কেন্দ্র দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম মাদ্রাসার ছাত্রদের বিক্ষোভ মিছিল থেকে থানায় ইট-পাথর নিক্ষেপ করে থানার গ্লাস ভাঙচুর, থানা ঘেরাও ও চট্টগ্রাম-হাটহাজারী-খাগড়াছড়ি-রাঙ্গামাটি মহাসড়ক অবরোধের ঘটনা ঘটেছে।

রাত সোয়া ৮টায় পর্যন্ত তিন ঘণ্টা মহাসড়ক অবরোধ থাকায় দুই পার্বত্য জেলাসহ উত্তর চট্টগ্রামের শত শত গাড়িতে আটকা পড়ে হাজার হাজার যাত্রী অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাতে দেখা গেছে। হাটহাজারী মাদ্রাসা কর্তৃপ্েক্ষর উদ্যোগে রাত সোয়া আটটার দিকে অবরোধ প্রত্যাহার করে বিক্ষোভকারীরা। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পরিস্থিতি ছিল থমথমে। রাত ৯টা পর্যন্ত এ ঘটনায় থানায় কোন মামলা হয়নি বলে থানা সূত্র জানিয়েছে। পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে বলে জানিয়েছেন হাটহাজারী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বেলাল উদ্দিন জাহাঙ্গীর।

আজ রবিবার (২০ অক্টোবর) বিকেল ৫টার দিকে হাটহাজারী মাদ্রাসার ছাত্রদের এই প্রতিবাদী বিক্ষোভ শুরু হয়। বিক্ষোভ মিছিল খাগড়াছড়ি সড়কে হাটহাজারী বাজার হয়ে হাটহাজারী মডেল থানা ভবন প্রদক্ষিণের সময় বিক্ষোভকারীরা থানা ভবন লক্ষ্য করে ইট পাটকেল ছুড়তে থাকে। এ সময় পুলিশকে কোন প্রতিরোধ করতে দেখা যায়নি। হামলায় থানার সামনের বেশ কিছু গ্লাস ভেঙে যায়। এরপর থেকে হাটহাজারী বাজারসহ সদরের প্রায় দোকানপাট বন্ধ হয়ে যায়।

বিক্ষোভকারীদের দুইজন আহত হয়েছে বলে জানা গেলেও তাদের নাম-পরিচয় পাওয়া যায়নি। বিক্ষোভকারীরা মিছিল নিয়ে উপজেলা সদরের বাস স্টেশন কাচারী সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এ সময় মহাসড়কের উপর দাঁড়িয়ে মাগরিবের নামাজ আদায় করে বিক্ষোভকারীরা। এরপর হাটহাজারী বাস স্টেশনের জিরো পয়েন্টে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভকারীরা চট্টগ্রাম হাটহাজারী-খাগড়াছড়ি-রাঙ্গামাটি মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখায় বিক্ষোভকারীরা। এ সময় মহাসড়কে পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রকাশ্য কোন অভিযান দেখা যায়নি।

এদিকে, দফায় দফায় হাটহাজারী মাদ্রাসা থেকে মাইকে ঘোষণা দিয়ে হেফাজত মহাসচিব মাওলানা জোনায়েদ বাবুনগরী বিক্ষোভকারী ছাত্রদের মাদ্রাসার ভিতরে চলে যাওয়ার জন্য বারবার ঘোষণা দিলেও বিক্ষোভকারীরা মহাসড়ক ছেড়ে যায়নি। একপর্যায়ে মাদ্রাসার সিনিয়র শিক্ষকদের উদ্যোগে বিক্ষোভকারীরা রাত প্রায় সোয়া ৮টার দিকে মহাসড়কের অবরোধ ছেড়ে স্থান ত্যাগ করে। এরপর আস্তে আস্তে পরিস্থিতি স্বাভাবিকের দিকে যায়।

হাটহাজারী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বেলাল উদ্দিন জাহাঙ্গীর রাত ৯টায় ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে দৈনিক পূর্বকোণকে বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। বিক্ষোভকারীরা থানায় ইট-পাটকেল মেরেছে। কেউ আহত কিংবা গ্রেপ্তার হয়নি।

 

পূর্বকোণ/জাহাঙ্গীর-রাশেদ

The Post Viewed By: 552 People

সম্পর্কিত পোস্ট