চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ১৪ নভেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

২০ অক্টোবর, ২০১৯ | ৩:০১ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব সংবাদদাতা হ সীতাকু-

বিএমএ চট্টগ্রাম’র উদ্বেগ

সীতাকু-ে ডা. শাহআলম হত্যার ঘটনায় স্ত্রীর মামলা

সীতাকু-ে শিশু বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডা. শাহআলম খুনের ঘটনায় তার স্ত্রী বাদি হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। গতকাল শনিবার রাতে অজ্ঞাত পরিচয় আসামিরা তার স্বামীকে হত্যা করেছে বলে উল্লেখ করে এজাহার দায়ের করেন তিনি। এর আগে বিকালে চান্দগাঁও আবাসিক এলাকায় নিহতের লাশ দাফন করা হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সীতাকু-ের কুমিরা ইউনিয়নের ছোটকুমিরা গ্রামের মরহুম মাস্টার আজিজুল হকের পুত্র শিশু রোগ বিশেষজ্ঞ ডা. শাহআলম চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করে সৌদি প্রবাসী হয়ে সেখানে দীর্ঘ ৩০ বছর চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত ছিলেন। কিন্তু তার স্বপ্ন ছিলো দেশে এসে শিশুদের চিকিৎসা সেবা প্রদান করবেন। সে লক্ষে গত বছর দেশে এসে নিজ বাড়ি ছোটকুমিরায় বেবী কেয়ার ডায়াগনস্টিক সেন্টার নামক একটি ক্লিনিক খোলেন তিনি। সেখানে মাত্র ৩০০ টাকা ভিজিটে রোগী দেখতেন তিনি। এখানে রোগী দেখা শেষ হলে রাত ৯টার পর লোকাল গাড়িতে চট্টগ্রামের চান্দগাঁও এলাকার বাসায় স্ত্রী-সন্তানদের কাছে যেতেন। প্রতিদিন রাতে তাকে গাড়িতে তুলে দিতেন ভাগিনা ইজব আলী। একইভাবে গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে ডা. শাহআলমকে একটি লোকাল নাভানা (লেগুনা) বাসে তুলে দেন ভাগ্নে। কিন্তু শাহআলম ঘরে ফিরে যাননি। এদিকে পরদিন শুক্রবার সকালে ক্লিনিক থেকে মাত্র এক-দেড় কি.মি. দূরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ঢাকামুখী লেনের পাশে ডা. শাহআলমের রক্তাক্ত লাশ দেখতে পায় এলাকাবাসী। কিন্তু তার মুখম-ল এসিডে দ্বগ্ধ বিকৃত ছিলো। ফলে এলাকাবাসী তাকে শনাক্ত করতে পারেনি। তবে রাতে তার আত্মীয়রা লাশটি দেখে তিনি ডাক্তার শাহআলম বলে শনাক্ত করে। এরপর তার খুনের খবরে এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়।

মামলাটির তদন্তকারী অফিসার সীতাকু- থানার এসআই রবি চরম চৌহান বলেন, নিহত শাহআলমের মুখে এসিড দিয়ে ঝলসে দেওয়া হয়েছে। এছাড়া তার হাতের কুনুইয়ের কাছে ধারালো অস্ত্রের আঘাত ছিলো। এ থেকে ধারণা করছি কেউ হত্যা করে তার লাশ বিকৃত করতে চেয়েছিলো। তার স্ত্রীও সে আশংকা করেছেন। তিনি অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন।
সীতাকু- থানার ওসি (তদন্ত) শামীম শেখ বলেন, একথা ঠিক যে এই হত্যাটি রহস্যজনক। এ বিষয়ে তার স্ত্রী বাদি হয়ে মামলা করেছেন। তারমত একজন লোককে কে কেন খুন করল? গাড়ি চালক-হেল্পার নাকি অন্য কেউ দায়ী তা তদন্ত করে বের করা হবে বলে জানান তিনি।

বিএমএ, চট্টগ্রামের উদ্বেগ : সীতাকু- উপজেলার কুমিরার বাসিন্দা শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. মো. শাহ আলমকে বৃহস্পতিবার রাতে অজ্ঞাতনামা দুর্বৃত্ত কর্তৃক নির্মমভাবে হত্যার ঘটনায় মেডিকেল এসোসিয়েশন চট্টগ্রাম শাখার সভাপতি ডা. মুজিবুল হক খান ও সা. সম্পাদক ডা. মো. ফয়সল ইকবাল চৌধুরী যুক্ত বিবৃতিতে গভীর উদ্বেগ ও খুনিদের অনতিবিলম্বে গ্রেপ্তারের জোর দাবি জানান।

বিবৃতিতে বলা হয়, স্বনামধন্য শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. মো. শাহ আলমের অনাকাক্সিক্ষত মৃত্যুতে চিকিৎসকদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে এবং সর্বস্তরের চিকিৎসকরা ক্ষুদ্ধ। চিকিৎসকরা উদ্বিগ্ন হয়ে নিরাপদ কর্মস্থল ও নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে সরকারের আশু পদক্ষেপের দাবি জানান। এছাড়াও মেডিকেল এসোসিয়েশন চট্টগ্রাম শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. এস এম মুইজ্জুল আকবর চৌধুরী স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতাপূর্বক ঘটনার দ্রুত ও সুষ্ঠু তদন্ত করে অনতিবিলম্বে খুনিদের গ্রেপ্তার, দ্রুত বিচার ও সর্বোচ্চ সাজা নিশ্চিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানান। বিবৃতিতে বলা হয়, বিএমএ চিকিৎসকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় যেকোন কর্মসূচি গ্রহণে দ্বিধা করবেনা।

The Post Viewed By: 198 People

সম্পর্কিত পোস্ট