চট্টগ্রাম বুধবার, ১৩ নভেম্বর, ২০১৯

১৯ অক্টোবর, ২০১৯ | ৩:০০ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

রোজভ্যালিতে শুরু শিল্পী রূপালির একক চিত্র প্রদর্শনী

ছবিতেই ফুটে উঠে মনের কথা। শিল্পীর মনে যত রং আর গল্প আছে তার আঁকা ছবিই তা বলে দেয়। চিত্র শিল্পী রূপালি রায় তাঁর আঁকা ছবিতেই তুলে ধরেছেন তাঁর মনের আঁকা দেবী দুর্গার নানারূপ। গত বৃহস্পতিবার নগরীর খুলশীর রোজভ্যালিতে অবস্থিত চিত্রভাষা গ্যালারিতে তিনদিনের ‘অন্তর্গত অবয়ব’ শিরোনামে কলকাতার শিল্পী রূপালি রায়ের একক চিত্র প্রদর্শনী শুরু হয়েছে।

চিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন শিল্প সমালোচক অধ্যাপক আবুল মনসুর। শিল্পী রূপালি রায় এক অপ্রতিরোধ্য সৃষ্টিশীল সত্তার নাম। ছেলেবেলায় ছবি আঁকার প্রতি ঝোঁক থাকা সত্ত্বেও স্বীয় শিল্পী সত্তাকে প্রকাশ করবার মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছিলেন নাচকে। হঠাৎ দুর্ঘটনায় শারীরিকভাবে আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে নৃত্য জীবন থেকে সরে দাঁড়াতে হয় তাকে। তবে তা সাময়িক। পথ খুঁজছিলেন নিজেকে প্রকাশের। ছেলেবেলার ছবি আঁকার আগ্রহকে পুনরায় সঞ্চারিত করলেন। এক সময় বন্ধুর উৎসাহে চিত্রশিল্পেই পুরোদমে যাত্রাশুরু করলেন। চিত্রশিল্পের তথাকথিত প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার বাইরে থেকে নিজেকে চিত্রশিল্পী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করাটা এখনো তেমন সহজ নয়। ফলে নিজেকে বিকশিত করতে নিজের ভেতরে-বাইরের নানা প্রস্তুতি সম্পন্ন করতে হয়েছে তাকে। শিল্পী অসিত পালের কাছে তার শিক্ষার শুরু, এরপরে নিজেকে তিনি ছবির জগতে নিমগ্ন করেছেন অনেকটাই ধ্যানির মতো। ছবিতে তার স্বতন্ত্রধারা বা আপনভঙ্গিমা তৈরির চেষ্টা করে চলেছেন একযুগেরও বেশি সময় ধরে। রবীন্দ্রনাথ আর সকল বাঙালি মানসকে যেমন আবিষ্ট করে রাখেন, রূপালি রায়ের ক্ষেত্রেও তার ব্যতিক্রম হয়নি। বিশেষ করে রবীন্দ্রনাথের চিত্রকলা। রূপালির ছবিগুলোতে রবীন্দ্রনাথের রং এবং আকারের প্রভাব আমরা অনুভব করব। তার আঁকা কোন কোন প্রতিকৃতির সামনে দাঁড়িয়ে রবীন্দ্রনাথকে মনে পড়ে যেতে পারে দর্শকদের! ছেলেবেলায় দেয়ালের গায়ে শ্যাওলার আস্তরণ জমতে দেখে যেমন নানা আকার কল্পনা করে নিই কিংবা আকাশ জুড়ে মেঘের হরেক রকম আকার তারও আভাস মেলে রূপালি রায়ের ছবিতে। মূলত রূপালির ছবি তারই মনোজাগতিক অভিঘাতেরই প্রতিরূপ। সম্প্রতি তিনি দুর্গা শিরোনামে কিছু ধারাবাহিক ছবি এঁকেছেন। প্রচলিত লোকজ রেখা এবং আকারের সাথে তার নিজস্ব প্রকাশভঙ্গির সাজুয্য ঘটিয়ে দুর্গা শিরোনামের কাজগুলোতে রূপালি যুক্ত করেছেন নতুন মাত্রা। তার আঁকা দুর্গায় নারী শক্তিকে উদযাপনের আভাস যেমন আছে তেমনি আছে নানা অবস্থায় দ্বিধাবিভক্ত নারীর মনন, আছে অশুভ শক্তির বিনাশিনী দুর্গার চিরকালীন মাতৃরূপ। আঁকারক্ষেত্রে, তার প্রিয় মাধ্যম কালি-কলম হলেও মাটি-রঙ এবং একরেলিকেও কাজ করেন একই স্বাচ্ছন্দ্যে। বরাবরের মতোই চিত্রভাষা গ্যালারি পুরোন-নতুন সব ধরনের সৃজনশীল প্রকাশকে স্বাগত জানিয়ে এসেছে। এবারে আয়োজন করছে কলকাতার তথা ভারতীয় শিল্পী রূপালি রায়ের চিত্রপ্রদর্শনী। শিল্প-সংস্কৃতি সবসময়ই দেশ-কালের সীমানা ছাড়িয়ে যাওয়ার চিরকালীন পন্থা হিসেবে কাজ করেছে। সেই পন্থাকে উৎসাহিত করে পথ দেখানোর কাজটা চিত্রভাষা গ্যাল্যারি করতে চায় পরম আন্তরিকতায়।

রূপালি রায়ের প্রদর্শনী সেই আন্তরিক প্রয়াসেরই প্রতিচ্ছবি।

The Post Viewed By: 41 People

সম্পর্কিত পোস্ট