চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর, ২০১৯

১৮ অক্টোবর, ২০১৯ | ২:২৪ পূর্বাহ্ণ

সিভাসুর আন্তর্জাতিক বৈজ্ঞানিক সম্মেলন কাল

চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ে (সিভাসু) ১৬তম আন্তর্জাতিক বৈজ্ঞানিক সম্মেলন শুরু হচ্ছে। আগামীকাল শনিবার থেকে শুরু হওয়া দুইদিনব্যাপী এবারের সম্মেলনের প্রতিপ্রাদ্য বিষয় হচ্ছে, ‘ইন্টেন্সিফিকেশন অব লাইভস্টক এন্ড ফিশারিজ ফর এচিভিং ফুড সেইফটি এন্ড নিউট্রিশনাল সিকিউরিটি: চ্যালেঞ্জেস এন্ড অপরচুনিটিস’।

আন্তর্জাতিক এ সম্মেলনে বাংলাদেশ, যুক্তরাজ্য, মালয়েশিয়া এবং ভারতসহ দেশ-বিদেশের ৩০০ বিজ্ঞানী, গবেষক, শিক্ষাবিদ, পরিবেশবিদ, উন্নয়ন সহযোগী ও দাতা সংস্থার প্রতিনিধিরা অংশ গ্রহণ করবেন। সকালে আন্তর্জাতিক বৈজ্ঞানিক সম্মেলন উদ্বোধন করবেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি থাকবেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের সদস্য প্রফেসর ড. মো. সাজ্জাদ হোসেন এবং বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান সৈয়দা সারওয়ার জাহান। গতকাল বৃহস্পতিবার সিভাসুর অডিটরিয়ামে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. গৌতম বুদ্ধ দাশ।

সংবাদ সম্মেলনে উপাচার্য আরো জানান, প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় (সিভাসু) শিক্ষা ও গবেষণা কার্যক্রমের উন্নয়ন ও অগ্রগতিতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় এবারও দুই দিনব্যাপী ১৬তম আন্তর্জাতিক বৈজ্ঞানিক

সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। সম্মেলনে মোট ৬টি টেকনিক্যাল সেশনে ৪টি মূল প্রবন্ধ এবং ৫২টি গবেষণা প্রবন্ধ উপস্থাপিত হবে। এ ছাড়া, বিষয় সংশ্লিষ্ট ৫২টি পোস্টার প্রদর্শন করা হবে।

তিনি আরো বলেন, একটি বিশ^বিদ্যালয়ের মূল কাজ হলো গবেষণার মাধ্যমে নতুন জ্ঞান সৃষ্টি করা। আর এই জ্ঞান যথেষ্ট পর্যালোচনা ও মূল্যায়নের পর তা ছাত্রছাত্রী ও জ্ঞান-পিপাসুদের মাঝে বিতরণের ব্যবস্থাকরণ। এ ধরণের বৈজ্ঞানিক সম্মেলনে গবেষকগণ দেশ-বিদেশের অন্যান্য বরেণ্য গবেষক ও বিশেষজ্ঞদের উপস্থিতিতে নিজেদের গবেষণালব্ধ জ্ঞানকে উপস্থাপনার মাধ্যমে সঠিকভাবে যাচাই করার সুযোগ পেয়ে থাকেন। আর এ বিশ^বিদ্যালয় প্রতি বছর গবেষকদের জন্য সেই সুযোগটিই তৈরি করে আসছে।

সিভাসুর সহকারী অধ্যাপক এস এম মোকাদ্দেস আহমেদ দিপুর সঞ্চালনায় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, সম্মেলনের মিডিয়া উপ-কমিটির আহ্বায়ক প্রফেসর ড. এ কে এম সাইফুদ্দীন, ফুড সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. জান্নাতারা খাতুন, ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. আবদুল আহাদ, গবেষণা ও সম্প্রসারণ পরিচালক প্রফেসর ড. মো. আলমগীর হোসেন। এছাড়া, আরো উপস্থিত ছিলেন, ওয়ান হেল্থ ইনস্টিটিউটের পরিচালক প্রফেসর ড. শারমীন চৌধুরী, প্রক্টর প্রফেসর গৌতম কুমার দেবনাথ, আইকিউএসি’র অতিরিক্ত পরিচালক প্রফেসর ডা. মো. রায়হান ফারুক, জনসংযোগ ও প্রকাশনা দপ্তরের উপ-পরিচালক খলিলুর রহমান।

The Post Viewed By: 88 People

সম্পর্কিত পোস্ট