চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৮ অক্টোবর, ২০১৯ | ২:০৮ পূর্বাহ্ন

রাঙ্গুনিয়ায় মুক্তিযোদ্ধার মুখে রণাঙ্গনের গল্প শুনল শিক্ষার্থীরা

মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের নির্দেশে রাঙ্গুনিয়ার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৭ম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা শুনেছে মুক্তিযোদ্ধাদের মুখে রণাঙ্গনের নানা গল্প। ৭ম শ্রেণির বাংলা পাঠ্য বইয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মুক্তিযুদ্ধকে জানি একটি অধ্যায় রয়েছে। এর আলোকে সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের কয়েকটি দলে ভাগ করে একজন শিক্ষকের নেতৃত্বে স্থানীয় এলাকার মুক্তিযোদ্ধা, শহীদ বা প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধার নিকটজন বা মুক্তিযুদ্ধের প্রত্যক্ষ অভিজ্ঞতা আছে এমন ব্যক্তিদের কাছে যাচ্ছে তারা। রণাঙ্গনের গল্প শুনে শিক্ষার্থীদের দেয়া হচ্ছে নম্বর। এজন্য মুক্তিযোদ্ধাদের মুখ থেকে ৭ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের শোনাতে তিনজন মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে এ আয়োজন করছে উপজেলার বিভিন্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়।

গতকাল বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) দুপুরে রাঙ্গুনিয়ার বঙ্গবন্ধু সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ‘বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধকে জানি’ শীর্ষক এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। রণাঙ্গনের নানা কাহিনী শোনাতে এদিন বিদ্যালয়ে আসেন বাংলাদেশ পুলিশের সাবেক অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক ও মুক্তিযুদ্ধকালীন রাঙ্গুনিয়ার কমান্ডার মো. নুরুল আলম। তিনি ছাড়াও শিক্ষার্থীদের রণাঙ্গনের নানা কাহিনী শোনান মুক্তিযুদ্ধের প্রত্যক্ষ অভিজ্ঞতা অর্জনকারী ও বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা জহির আহমদ চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা, মাস্টার নুরুল হুদা, শামসুল আলম ও মুক্তিযোদ্ধা আবু তাহেরের মেয়ে শামীমা সুলতানা।

গল্প শোনাতে গিয়ে মুক্তিযোদ্ধারা বলেছেন, ‘বঙ্গবন্ধুর মতো আদর্শিক নেতা হতে হবে। সত্যবাদী হতে হবে, তার আদর্শ ধারণ করে তার মতো দৃঢ়চেতা, ঈমানদার, দূরদর্শী নেতৃত্বের গুণাবলী অর্জন করতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বুকে লালন ও ধারণ করে নিজেকে দেশপ্রেমিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে।
এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নুরুল ইসলাম চৌধুরী, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ নুরুল আবছার ।

The Post Viewed By: 46 People

সম্পর্কিত পোস্ট