চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৭ অক্টোবর, ২০১৯ | ১:৫৮ পূর্বাহ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক

অফডকে অতিরিক্ত মাশুল আদায় স্থগিতের নির্দেশ

বেসরকারি আইসিডি (অফডক) থেকে নীতিমালা উপেক্ষা করে বাংলাদেশ ইনল্যান্ড কনটেইনার ডিপোটস এসোসিয়েশন (বিকডা) যে বর্ধিত হারে মাশুল আদায় করছে তার উপর স্থগিত করেছে নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়। গতকাল দুপুরে নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত বৈঠকে আলোচনার পর এই স্থগিতের নির্দেশ দেয় মন্ত্রণালয়।

বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়- শীঘ্রই ট্যারিফ কমিশন আইসিডির বর্ধিত হার সুপারিশের পর বিজিএমইএ, বিকেএমইএ, এফবিসিসিআই, সিএন্ডএফ এজেন্ট এসোসিয়েশন, বাফা ও বিকডার প্রতিনিধিগণের উপস্থিতিতে সর্বসম্মতিক্রমে বর্ধিত হার পুননির্ধারণ করা হবে। তার আগ পর্যন্ত বেসরকারি আইসিডি থেকে কোনভাবে বর্ধিত হরে মাশুল আদায় করা যাবে না।

নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আবদুস সামাদ এর সভাপতিত্বে বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল জুফিকার আজিজ, বিকেএমইএ এর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোহাম্মদ হাতেম, বিজিএমইএ এর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফয়সাল সামাদ, এফবিসিসিআই এর সহসভাপতি সিদ্দিকুর রহমান, সিএন্ডএফ এজেন্ট এসোসিয়েশনের এর সভাপতি এ কে এম আক্তার হোসেন, বাফার পরিচালক অমিয় শংকর বর্মণ এবং বিকডার বোর্ড সদস্য ক্যাপ্টেন কামরুল ইসলাম মজুমদার।

উল্লেখ্য, আইসিডি নীতিমালা ২০১৬-এর নিয়ম-নীতি উপেক্ষা করেই গত ১অক্টোবর থেকে বর্ধিত হারে মাশুল আদায় করছে বাংলাদেশ ইনল্যান্ড কনটেইনার ডিপোটস এসোসিয়েশন (বিকডা)। চলতি বছরের ১ এপ্রিল ২০১৯ থেকে মাশুল বাড়াতে অনুরোধ জানিয়েছিল বিকডা। পরে ট্যারিফ নির্ধারনের লক্ষ্যে গত ২১ এপ্রিল ২০১৯ তারিখে সভার মাধ্যমে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের হারবার ও মেরিন সদস্যকে আহবায়ক করে ১৩ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করে। পরবর্তীতে গত ১ আগস্ট নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর এক সভায় ট্যারিফ কমিটির প্রতিবেদন দাখিল না করা পর্যন্ত আইসিডি/সিএফএস সমূহের বর্ধিত ট্যারিফ কার্যকর হবেনা বলে সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু তারপরও ১অক্টোবর থেকে বর্ধিত হারে মাশুল আদায় করছে বিকডা।

এ বিষয়ে গত ৪ অক্টোবর বিজিএমইএ থেকে ট্যারিফ বৃদ্ধির প্রতিবাদ জানিয়ে বিষয়টি পূনরায় বিবেচনায় নেয়ার অনুরোধ করেন এবং বর্ধিত ট্যারিফ ১০% এর পরিবর্তে ৩% করার অনুরোধ জানান। এই ট্যারিফ ১ নভেম্বর ২০১৯ থেকে কার্যকর করে দুই বছরের জন্য স্থায়ী করারও অনুরোধ জানান। একই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়ে গত ৭ অক্টোবর নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বরারব চিঠি দেয় বাংলাদেশে শিপিং এজেন্টস এসোসিয়েশন এবং একই দিনে এই বিষয়ে বন্দর চেয়ারম্যান বারাবর চিঠি দেয় বাংলাদেশ ফ্রেইট ফরওয়ার্ডাস এসোসিয়েশন (বাফা)।

এসব জোর আপত্তি ও প্রতিবাদের প্রেক্ষিতে গতকাল রাজধানী নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ে বৈঠক করে বিকডা’র বর্ধিত হারে মাশুল আদায়ের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়।

The Post Viewed By: 290 People

সম্পর্কিত পোস্ট