চট্টগ্রাম শনিবার, ২৩ নভেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৭ অক্টোবর, ২০১৯ | ১:২০ পূর্বাহ্ন

সিআইইউর টক শোতে ফারজানা, চাই বৃত্তের বাইরে উদ্ভাবনী চিন্তা

অনেকের কাছে আকাশ ছোট হলেও স্বপ্ন কিন্তু অনেক বিশাল। তাই সাফল্য পেতে হলে চাই বেশি-বেশি স্বপ্ন দেখা। ভয়কে পেছনে ফেলে বৃত্তের বাইরে গিয়ে বাড়াতে হবে চিন্তা। নিজের ইচ্ছাশক্তিই পারে নিজেকে বদলে দিতে। চিটাগং ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটিতে (সিআইইউতে) অনুষ্ঠিত কর্পোরেট টক অনুষ্ঠানে কথাগুলো বলেন, গ্রিন ডেল্টা ইন্সুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও নির্বাহী কর্মকর্তা ফারজানা চৌধুরী।

গতকাল বুধবার সকালে নগরের জামাল খান ক্যাম্পাসের অডিটোরিয়ামে সিআইইউ বিজনেস স্কুল ‘ভয়েস অব অ্যান ইন্সুরার’ শীর্ষক এই কর্পোরেট টক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এতে বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্য, বিভিন্ন স্কুলের ডিন, ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। সামাজিক জড়তাকে দূর করে নিজের প্রতিষ্ঠিত হওয়ার গল্প তুলে ধরতে গিয়ে ফারজানা চৌধুরী বলেন, ব্যাংকের চাকরির অভিজ্ঞতা ছেড়ে সাধারণ মানুষের সুযোগ সুবিধা ও সামাজিক মর্যাদা নিশ্চিত করার তাড়না আমাকে প্রায়ই ভাবাতো। শুরুতে অনেক প্রতিবন্ধকতা আসলেও চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে এখন জয়ী হয়েছি। তিনি বলেন, তরুণদের উদ্ভাবনী শক্তি বাড়াতে হবে। পড়ালেখা কিংবা কর্মক্ষেত্র- সবখানেই গবেষণায় ডুবে থাকা চাই। সভাপতির বক্তব্যে সিআইইউর উপাচার্য ড. মাহফুজুল হক চৌধুরী বলেন, আমাদের শিক্ষাব্যবস্থায় কর্মমুখী শিক্ষার গুরুত্ব বাড়াতে হবে। পাঠ্যসূচির সঙ্গে বাইরের জগতের পড়ার সমন্বয় হলে ছেলে মেয়েদের দক্ষতা বাড়বে। রাজধানী ঢাকার বাইরে চট্টগ্রামের প্রতিষ্ঠিত তরুণ উদ্যোক্তারা এখন আন্তর্জাতিক পরিম-লে সুনাম বয়ে আনছে বলে জানান তিনি।অনুষ্ঠান আয়োজনের বিষয়ে সিআইইউর বিজনেস স্কুলের সহযোগী অধ্যাপক ও কর্পোরেট টক অনুষ্ঠানের আহ্বায়ক ড. সৈয়দ মনজুর কাদের বলেন, এই ধরণের কর্পোরট টক অনুষ্ঠান থেকে শিক্ষার্থীরা একজন সফল ব্যক্তির গল্পগুলো শুনে অভিজ্ঞতা অর্জনের সুযোগ পায়। আগামীতে বড়পরিসরে সহশিক্ষা কার্যক্রম, মেধা বৃত্তি ও গবেষণা বৃদ্ধিতে সিআইইউর সঙ্গে তিনি যৌথভাবে কাজ করতে আগ্রহ প্রকাশ করেন।-বিজ্ঞপ্তি

The Post Viewed By: 54 People

সম্পর্কিত পোস্ট