চট্টগ্রাম বুধবার, ২০ নভেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৬ অক্টোবর, ২০১৯ | ৩:৩৪ পূর্বাহ্ন

ইমাম হোসাইন রাজু

দ্বিগুণ ক্ষমতায় চমেক সিসিইউ

দ্বিতীয় ইউনিটের উদ্বোধন আজ

সিসিইউ প্রতিষ্ঠার পর গত ৩০ বছর ধরে মাত্র ১৬টি শয্যা দিয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের হৃদরোগ বিভাগের কার্যক্রম চলে আসছিল যা রোগীদের চাহিদার তুলনায় ছিল খুবই অপ্রতুল। অবশেষে চট্টগ্রামের একটি ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের অনুদানে হৃদরোগ বিভাগে নতুন করে যোগ হল আরও ১৫টি করোনারি কেয়ার ইউনিট (সিসিইউ)। নতুন এই ইউনিট স্থাপনের কাজ ইতিমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। রোগীর চাপে ইতিমধ্যে এই ইউনিটে রোগীদের সেবাও প্রদান করা হচ্ছে। আজ বুধবার আনুষ্ঠানিকভাবে সিসিইউ-২ নামের নতুন এই ইউনিটের উদ্বোধন করা হবে। সকাল ১১টায় সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এই ইউনিটের উদ্বোধন করবেন।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, চমেক হাসপাতালের হৃদরোগ বিভাগে চিকিৎসা নিতে আসা এক-তৃতীয়াংশ রোগীর জন্য প্রয়োজন হয় সিসিইউ’র শয্যার। তবে এতদিন রোগীদের সিসিইউ’র শয্যা পেতে কষ্টকর হলেও বর্তমানে কিছুটা লাঘব হবে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। যদিও রোগীর তুলনায় সিসিইউ শয্যা কম, তবে এ সংখ্যা আরও বৃদ্ধি করতে সরকারের পাশাপাশি ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানানো হয় সেবা সংশ্লিষ্টদের।

সরেজমিনে দেখা যায়, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের হৃদরোগ বিভাগের পোস্ট সিসিইউ কক্ষটিকেই রূপান্তর করা হয়েছে পূর্ণাঙ্গ এই সিসিইউ। যাতে নতুন ১৫টি শয্যাসহ ৩১টি শয্যা রয়েছে। শুধু শয্যাই নয়, পূর্ণাঙ্গ শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কক্ষ হিসেবেও রূপান্তর করা হয়েছে একে। জানা যায়, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের রোগী কল্যাণ সমিতির উদ্যোগ আর ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান তাহের ব্রাদার্সের অনুদানে এসব শয্যা স্থাপন করা হয়। ১৫টি শয্যার মনিটর, বেড, এসি ও আনুষঙ্গিক ব্যয় হয়েছে প্রায় ২৪ লাখ টাকা যার সবগুলোই ব্যবস্থা করেছে হাসপাতালের রোগী কল্যাণ সমিতি। হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের হৃদরোগ বিভাগে মোট শয্যা সংখ্যা এক শ’। তবে প্রতিদিন বিভাগটিতে কমপক্ষে তিন শ’ থেকে সাড়ে তিন শ’ রোগী ভর্তি থাকে। শয্যার চেয়ে তিনগুণ রোগী ভর্তি থাকলেও প্রাথমিকভাবে সিসিইউতে রেখে চিকিৎসা দিতে হয় এর এক-তৃতীয়াংশ রোগীকে । তবে এতদিন শয্যা নিয়ে হাসপাতালের চিকিৎসকরা হিমশিম খেলেও বর্তমানে নতুন করে স্থাপিত হওয়া ১৫টি শয্যায় কিছুটা হলেও সংকট নিরসন হবে বলে জানিয়েছেন বিভাগের চিকিৎসকরা।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের হৃদরোগ বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডা. প্রবীর কুমার দাশ পূর্বকোণকে বলেন, ‘এখানে প্রতিদিন যে পরিমাণ রোগী ভর্তি হয়, তার বেশি অংশকেই সিসিইউতে রেখে চিকিৎসা দিতে হয়। হৃদরোগে আক্রান্ত রোগীকে যদি কমপক্ষে এক ঘণ্টার মধ্যে সিসিইউতে রেখে চিকিৎসা দেয়া সম্ভব হয়, তাহলে রোগীর অবস্থা অনেকাংশেই ভালো থাকে। কিন্তু তা খুবই অপ্রতুল। তবে নতুন করে এসব শয্যা যোগ হওয়ায় অনেকাংশেই রোগীর জন্য ভালো হয়েছে। অন্তত এখন থেকে আরও কিছু রোগী সেবা নিতে পারছেন।’

এদিকে রোগীদের সেবায় সরকারের পাশাপাশি ব্যবসায়ীদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে রোগী কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক অভিজিৎ সাহা পূর্বকোণকে বলেন, ‘শয্যাসহ বিভিন্ন সংকটের মধ্যেই চলতে হচ্ছে। তবে এ ক্ষেত্রে চট্টগ্রামের ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানগুলো যদি এগিয়ে আসে, তাহলে এমন আরও কিছু করা যাবে।’

The Post Viewed By: 388 People

সম্পর্কিত পোস্ট