চট্টগ্রাম বুধবার, ২০ নভেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৬ অক্টোবর, ২০১৯ | ৩:২১ পূর্বাহ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক

চট্টগ্রামে অপরাধ সভায় আইজিপি

থানার আইনি সহায়তায় লেনদেনের সুযোগ নেই

থানায় সাধারণ ডায়েরি-মামলা কিংবা যেকোনো প্রকার আইনি সহায়তার ক্ষেত্রে আর্থিক লেনদেনের কোনো সুযোগ নেই। প্রত্যেক থানায় এমন লিখা সম্বলিত সাইনবোর্ড টাঙানোর নির্দেশনা দিয়েছেন বাংলাদেশ পুলিশের আইজি ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী। গতকাল মঙ্গলবার চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) মাসিক অপরাধ সভায় তিনি এ কথা বলেছেন। নগরীর দামপাড়া সিএমপির সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. মাহাবুবর রহমান, চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক, সিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার (অপরাধ ও অভিযান) আমেনা বেগম, অতিরিক্ত কমিশনার (ট্রাফিক) এসএম মোস্তাক আহমেদসহ পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। উপস্থিত পুলিশ কর্মকর্তাদের উদ্দেশে আইজিপি বলেন, সকল থানার ওসিদের আন্তরিকতার সাথে কাজ করতে হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ভিশন অনুযায়ী ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে একটি উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত করার লক্ষ্যে আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। সেই ভিশনের

গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হিসাবে বাংলাদেশ পুলিশের প্রত্যেক সদস্যকে নিজেদের গড়ে তুলতে হবে। সকল পুলিশ সদস্যদের কার্যক্রম জনবান্ধব এবং গণমুখী হতে হবে। আইজিপি বলেন, প্রত্যেক থানার কার্যক্রম সিনিয়র কর্মকর্তাদের নিবিড়ভাবে মনিটরিং করতে হবে। সাধারণ মানুষ যাতে হয়রানির শিকার না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। থানা হলো সেবা প্রাপ্তির স্থান। সাধারণ মানুষ থানায় যেতে ভয় পায়। সাধারণ একটি জিডি করতে পুলিশকে টাকা দিতে হয়- এমন অভিযোগ রয়েছে। এ অভিযোগ থেকে মুক্ত হতে হবে। সিএমপিকে নির্দেশ দিচ্ছি- জিডি, মামলা কিংবা যে কোন আইনি সহায়তার ক্ষেত্রে টাকা নেওয়া হয় না এমন লিখা সংবলিত সাইনবোর্ড প্রত্যেক থানায় বড় করে টাঙাতে হবে। শুধুমাত্র সাইনবোর্ড টাঙালে হবে না। এ নিদের্শনা যথাযথভাবে পালন করা হচ্ছে কী না তা সিনিয়র কর্মকর্তাদের মনিটরিং করতে হবে। সভা শুরুর আগে মেট্রোপলিটন পুলিশ লাইন্সে নবনির্মিত ম্যুরাল প্রতিরোধ-৭১ এর উদ্বোধন করেন আইজিপি।

The Post Viewed By: 191 People

সম্পর্কিত পোস্ট