চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৬ অক্টোবর, ২০১৯ | ৩:২১ পূর্বাহ্ন

আ. লীগের দুই এমপির বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদের অনুসন্ধানে দুদক

ক্ষমতার অপব্যবহার, সরকারি সম্পত্তি আত্মসাৎ চাঁদাবাজি ও দুর্নীতি এবং ক্যাসিনো ব্যবসার মাধ্যমে আওয়ামী লীগের দুই সংসদ সদস্য শত শত কোটি টাকার মালিক হয়েছেন বলে অভিযোগ পেয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। তাদের বিষয়ে অনুসন্ধানও শুরু করেছে সংস্থাটি। দুদকের ঊর্ধ্বতন সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। এই দুজন হলেন জাতীয় সংসদের হুইপ ও চট্টগ্রাম-১২ আসনের সংসদ সদস্য সামশুল হক চৌধুরী ও ভোলা-৩ আসনের সংসদ সদস্য নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন। দুদক পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেনের নেতৃত্বে একটি টিম তাদের সম্পদ অনুসন্ধান করছে। সূত্র জানায়, ক্যাসিনো ব্যবসার সঙ্গে জড়িত ৪৩ জনকে এরই মধ্যে চিহ্নিত করেছে দুদক। তাদের মধ্যে সামশুল ও শাওনের নামও আছে। গত ১৮ সেপ্টেম্বর ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান শুরু হয়।

ক্যাসিনো ব্যবসার সঙ্গে সংসদ সদস্য শাওনও জড়িত আছেন বলে অভিযোগ ওঠে। এর পরিপ্রেক্ষিতে শাওন ও তার স্ত্রী ফারজানা চৌধুরীর ব্যাংক হিসাব স্থগিত করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।-ফোকাস বাংলা

আর ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান শুরুর পর চট্টগ্রামে চালানো অভিযান নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন সামশুল। চট্টগ্রাম আবাহনী ক্লাবে জুয়ার আসর চালিয়ে বিপুল পরিমাণ অর্থের মালিক হওয়ার অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে।

প্রসঙ্গত, ক্যাসিনো-কা-ে জড়িতদের সম্পদ অনুসন্ধানে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) অনুসন্ধানে এখন পর্যন্ত নতুন কারও নাম আসেনি। এ পর্যন্ত যে ৪৩ জনের বিরুদ্ধে অনুসন্ধান শুরু হয়েছে তাদের মধ্যে দুজন সাংসদ, গণপূর্তের সাবেক তিনজন প্রকৌশলী ও ক্ষমতাসীন দলের সঙ্গে যুক্ত বেশ কয়েকজন নেতা রয়েছেন।

The Post Viewed By: 124 People

সম্পর্কিত পোস্ট