চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৫ অক্টোবর, ২০১৯ | ৩:১৯ পূর্বাহ্ন

আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভায় জেলা প্রশাসক

পেঁয়াজের মূল্য নিয়ন্ত্রণে মোবাইল কোর্টের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন বলেছেন, পার্শ্ববর্তী ভারত ও অন্যান্য দেশ থেকে কয়েকদিন পেঁয়াজ না আসার কারনে এখানকার পাইকারী ও খুচরা বাজারে পেঁয়াজের মূল্য হঠাৎ করে বৃদ্ধি পেয়েছে।

সরকারকে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলতে কিছু কিছু অসাধু আড়তদার তাদের গুদামে পেঁয়াজ মজুদ রেখে অস্বাভাবিক হারে মূল্য বাড়িয়ে দিয়েছে। খাতুনগঞ্জ ও অন্যান্য বাজারে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকায় পেঁয়াজের মূল্য কিছুটা স্বাভাবিক হয়েছে। বর্তমানে ভারত ও মিয়ানমারসহ অন্যান্য দেশ থেকে আবার পেঁয়াজ আসার কারণে পাইকারি বাজারে এর মূল্য কেজিপ্রতি ৪০ টাকায় নেমে এসেছে। কিন্তু খুচরা বাজারগুলোতে এখনো ৮০ থেকে ৯০ টাকা কেজিতে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে। অসাধু ব্যবসায়ীদের দৌরাত্ম্য রোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। পেঁয়াজের মূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে নগরী ও উপজেলার বাজারগুলোতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকবে। আইন-শৃংখলা বাহিনীকে সাথে নিয়ে নগরে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটগণ ও উপজেলা পর্যায়ে ইউএনও এবং সহকারী কমিশনারগণ (ভূমি) পেঁয়াজসহ অন্যান্য নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। এছাড়া সুস্থ জাতি গঠনে মাদক ও ভেজাল খাবার রোধে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত জেলা আইন- শৃঙ্খলা কমিটির সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) নুরে আলম মিনা বলেন, জেলার সকল উপজেলায় আইন-শৃংখলা পরিস্থতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পুলিশ বাহিনী কাজ করে যাচ্ছে। সন্ত্রাসী-জঙ্গি গ্রেপ্তারের পাশাপাশি খুন, ধর্ষণ, মাদক, চুরি, ডাকাতি ও ছিনতাই রোধে পুলিশের প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। সড়ক ও নৌ পথে ইয়াবা পাচার রোধে সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন বলে তিনি জানান।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভায় মাল্টিমিডিয়ার মাধ্যমে গত সেপ্টেম্বর মাসের খাতওয়ারী অপরাধচিত্র, সভার সিদ্ধান্ত ও অগ্রগতি তুলে ধরেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এজেডএম শরীফ হোসেন। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার নুরেআলম মিনা, সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ আজিজুর রহমান সিদ্দিকী, মহানগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ইউনিট কমান্ডার মোজাফফর আহমদ, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ইউনিট কমান্ডার মো. সাহাবউদ্দিন, কোস্টগার্ড প্রতিনিধি লেফটেন্যান্ট এএসএম লুৎফর রহমান, জেলা পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) এডভোকেট একেএম সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, উপজেলা চেয়ারম্যান এহছানুল হায়দার চৌধুরী বাবুল (রাউজান), আবদুল জব্বার চৌধুরী (চন্দনাইশ), নুরুল আলম (বোয়ালখালী), তৌহিদুল হক চৌধুরী (আনোয়ারা), হোসাইন মোহাম্মদ আবু তৈয়ব (ফটিকছড়ি), মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরী (পটিয়া), খলিলুর রহমান (রাঙ্গুনিয়া), চৌধুরী মোহাম্মদ গালিব (বাঁশখালী), উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ রুহুল আমীন (হাটহাজারী), মোমেনা আক্তার (বাঁশখালী), আছিয়া খাতুন (বোয়ালখালী), শেখ জোবায়ের আহমদ (আনোয়ারা), মিল্টন রায় (সীতাকু-), সায়েদুল আরেফিন (ফটিকছড়ি), সৈয়দ শামসুল তাবরীজ (কর্ণফুলী), আ.ন.ম বদরুদ্দোজা (চন্দনাইশ), তৌছিফ আহমেদ (লোহাগাড়া), হাবিবুল হাসান (পটিয়া), মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম মেট্রো অঞ্চলের উপ-পরিচালক শামীম আহমেদ, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর চট্টগ্রামের উপ-পরিচালক একেএম শওকত ইসলাম, বিজয় স্মরণী ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর, জেলা আনসার কমান্ডার মোহাম্মদ সাইফুজ্জামান, সমাজ সেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. শহীদুল ইসলাম, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. মমিনুল হক, চিটাগাং চেম্বারের পরিচালক সৈয়দ জামাল আহমদ, মিরসরাই সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. সাসছুদ্দিন ছালেহ, হাটহাজারী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ আল মাসুম, সিনিয়র জেল সুপার মো. কামাল হোসেন ও সিএমপির এসি (প্রসিকিউশন) কাজী শাহাবুদ্দিন আহমদ। সভায় সরকারের বিভিন্নস্তরে কর্মরত কর্মকর্তা, আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সদস্য, জনপ্রতিনিধিসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

The Post Viewed By: 65 People

সম্পর্কিত পোস্ট