চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৫ অক্টোবর, ২০১৯ | ৩:১৯ পূর্বাহ্ন

নিজস্ব সংবাদদাতা, সীতাকু-

সীতাকু-ে আ. লীগের সভায় সংঘর্ষ, আহত ৮

বারৈয়াঢালায় সভা প- বাড়বকু-ে মুলতবি

সীতাকু-ের বারৈয়াঢালা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভায় দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ৮ জন আহত হয়েছেন। ফলে সভাটি প- হয়ে যায়। অন্যদিকে চরম হট্টগোল হয়েছে বাড়বকু- ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাতেও। সেখানেও সংঘর্ষের আশংকা দেখা দিলে বাধ্য হয়ে সভাটি মুলতবি করে দিয়েছেন জেলা আ. লীগ নেতৃবৃন্দ।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, আওয়ামীলীগের ওয়ার্ড সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণের লক্ষে উপজেলার ৯টি ইউনিয়ন ও পৌরসভায় গতকাল (সোমবার) বিকালে একযোগে বর্ধিত সভা আহ্বান করা হয়। প্রত্যেক সভায় উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের একজন নেতা সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করেন। এদিকে ৭টি ইউনিয়ন ও পৌরসভায় সুশৃঙ্খলভাবে সভা শেষ হলেও বারৈয়াঢালা ইউনিয়নের সভায় দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ সৃষ্টি হওয়ায় সভাটি প- হয়ে যায়। এছাড়া তুমুল হট্টগোল ও মারামারির পরিস্থিতি সৃষ্টি হওয়ায় মুলতবি করা হয় বাড়বকু- ইউনিয়নের সভাও। বারৈয়াঢালা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও থানা আ. লীগের যুগ্ম সম্পাদক রায়হান উদ্দিন রেহান জানান, ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সম্মেলনের তারিখ চূড়ান্ত করার লক্ষে স্থানীয় কলাবাড়িয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বর্ধিত সভাটি শুরু হয় বিকাল ৫টার দিকে। এতে উপস্থিত ছিলেন উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও থানা আওয়ামী লীগের নির্বাচন সমন্বয়কারী মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট ফকরুদ্দিন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও আ. লীগ নেতা আলাউদ্দিন ছাবেরী, বারৈয়াঢালা ইউনিয়নের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সমন্বয়ক সাঈদ মিয়াসহ ওয়ার্ড ও ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ। সভাটি শুরুর অল্প কিছুক্ষণ পরেই পূর্ব থেকে প্রস্তুতি নিয়ে রাখা যুবলীগ-ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা হামলা চালিয়ে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. ইসমাইল হোসেন সিরাজী, ১নং ওয়ার্ডের সভাপতি হান্নান ভূঁইয়া, সাধারণ সম্পাদক দিদারুল আলম, ৮নং ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক শাহনেওয়াজ উদ্দিন কাজলসহ কয়েকজনকে আহত করে। ঐ ইউনিয়ন কাউন্সিল সমন্বয়কারীদের একজন থানা আওয়ামীলীগ নেতা মো. সাঈদ মিয়া বলেন, সভা চলাকালে এক পর্যায়ে উক্ত ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বলেন, বিগত নির্বাচনে যারা দলের জন্য অবদান রেখেছে তেমন লোকদেরই পদ পাবার কথা। অন্যদের কথা আসবে কেন? এ কথার সাথে সাথে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। তাতে তিনি নিজেসহ ৭-৮ জন আহত হলে সভাটি প- হয়ে যায়। অন্যদিকে প্রায় একই সময়ে অনুষ্ঠিত বাড়বকু- স্কুল এন্ড কলেজে ইউনিয়নের সম্মেলন চলাকালে কমিটির নেতৃত্ব নিয়ে সাবেক চেয়ারম্যান মো. মহসিন গ্রুপ ও বর্তমান চেয়ারম্যান মো. ছাদাকাত উল্লাহ গ্রুপের মধ্যে তুমুল হট্টগোল শুরু হয়।

একপর্যায়ে সভায় উপস্থিত স্থানীয় এমপি আলহাজ দিদারুল আলম, উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো. ইসহাক, উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক মহিউদ্দিন বাবলু, এডভোকেট ভবতোষ প্রমুখ নেতারা সভাটি মুলতবি করে দেন।

উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক মো. মহিউদ্দিন বাবলু বলেন, বাড়বকু- ইউনিয়নের পূর্ণাঙ্গ কমিটি সাবেক চেয়ারম্যান মহসিন জাহাঙ্গীর এখন মানছেন না। এ নিয়ে হট্টগোল শুরু হওয়ায় আমরা সভাটি স্থগিত করে দিয়েছি। এছাড়া অন্যান্য ৭টি ইউনিয়ন ও পৌরসভায় সুন্দর পরিবেশে বর্ধিত সভায় সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড সম্মেলনের তারিখও চূড়ান্ত করা হয়েছে বলে জানান তিনি। প্রসঙ্গত আগামী ১৬ নভেম্বর থানা কমিটির সম্মেলনের তারিখ চূড়ান্ত হয়েছে। এর আগে ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন কমিটির সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণের লক্ষে এই সভাটি অনুষ্ঠিত হয়।

The Post Viewed By: 78 People

সম্পর্কিত পোস্ট