চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ১৪ নভেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৪ অক্টোবর, ২০১৯ | ২:৫০ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব সংবাদদাতা হ চবি

চবিতে শেখ হাসিনা হল খুলে দেওয়ার দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি প্রশাসনের আশ্বাস

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) জননেত্রী শেখ হাসিনা হল খুলে দেওয়ার দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে ওই হলের সংযুক্তিপ্রাপ্ত ছাত্রীরা। গতকাল (রবিবার) সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে হলের মূল ফটক অবরোধ করে এই কর্মসূচি পালন করেন তারা। পরে প্রশাসনের আশ্বাস পেয়ে বিকেল ৩ টার দিকে আন্দোলন থেকে সরে আসেন।

আন্দোলনরত ছাত্রীরা বলেন, চার বছর আগে হল উদ্বোধন করা হয়। চার বছর পরেও এখনো হলে আসন বরাদ্দ দেওয়া হয়নি। সাবেক উপাচার্য আশ্বাস দিয়েছিলেন দুই মাসের মধ্যে হলের ফরম ছেড়ে দিবেন অথচ এখনো পর্যন্ত আমরা হলের সিট বরাদ্দ পাইনি।’ এই বিষয়ে জানতে চাইলে শেখ হাসিনা হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ হেলাল উদ্দীন বলেন, সামনে ২৪ অক্টোবরের মধ্যে রেজাল্ট দেওয়ার চেষ্টা করব। যদি সম্ভব না হয় ৩ নভেম্বরের মধ্যে রেজাল্ট দেওয়া হবে। তারপর ব্যাংকে টাকা জমা দিয়ে ৪ নভেম্বর থেকে ১২ নভেম্বরের মধ্যে হলে উঠতে পারবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর রেজাউল করিম বলেন, ২৪ অক্টোবরের মধ্যে সাক্ষাৎকারের রেজাল্ট দেওয়ার চেষ্টা করা হবে। যদি না হয় ৩ নভেম্বরের মধ্যে দেয়া হবে। এর নোটিশ এক ঘণ্টার মধ্যে দেওয়া হবে। প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালের ৮ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই হলের উদ্বোধন করেন। ওই বছর থেকেই হলে সংযুক্তি প্রদান করা শুরু হয় ছাত্রীদের। পরের বছরগুলোতে সে ধারাই অব্যাহত থাকে। পরপর চার বছর ধরে সংযুক্তি দেওয়া হলেও শিক্ষার্থীদের আসন বরাদ্দের বিষয়ে প্রশাসন চরম উদাসীন। এ বছরের এপ্রিল মাসে প্রবল আন্দোলনের মুখে প্রশাসন হলের আসন বরাদ্দের আবেদন ফরম দিতে বাধ্য হয়। কিন্তু পরবর্তী ধাপ সাক্ষাৎকারের তারিখ পিছানো হয় একাধিকবার। প্রথম দফায় তারিখ নির্ধারণ করা হয় চলতি বছরের ২৩ জুন থেকে ২৫ জুন, কিন্তু সেই তারিখ পিছিয়ে আবার চলতি বছরের ৯ জুলাই থেকে ১১ জুলাই পর্যন্ত ধার্য করা হয়। এরপরের ধাপে উল্লেখিত তারিখের উপর আবার স্থগিতাদেশ দেওয়া হয়। এ অবস্থায় পুনরায় শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে ১৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সাক্ষাতকার গ্রহণ সম্পন্ন করা হয়।

বর্তমানে অক্টোবরের মাঝামাঝি সময় তথা প্রায় এক মাস অতিবাহিত হলেও সাক্ষাৎকারের ফলাফল দেওয়া হয়নি। বিগত চার বছর ধরে সংযুক্তি থাকা সত্ত্বেও কোনোরকম আবাসনের সুবিধা পাচ্ছে না ছাত্রীরা।

The Post Viewed By: 83 People

সম্পর্কিত পোস্ট