চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ০২ মার্চ, ২০২১

সর্বশেষ:

১৩ অক্টোবর, ২০১৯ | ২:৪২ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

জলাবদ্ধতায় জনদুর্ভোগ হচ্ছে এজন্য আমরাও দায়ী : মেয়র

ষ ‘সিডিএ’র মাধ্যমে হাজার হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন কর্মকা- সম্পাদিত হচ্ছে’ ষ ‘শেখ হাসিনা বাঘের পিঠে চড়েছেন, এই বাঘ না মারলে তাঁকেই মেরে ফেলবে’

 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাঘের পিঠে চড়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম সুজন। নিজ দলের কর্মীদের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এখন বাঘের পিঠে চড়ছেন। এই বাঘ না মারলে, বাঘ শেখ হাসিনাকে মেরে ফেলবে। দলের মধ্যে কিছু নেতাকর্মী আছে যারা বাঘের চেয়েও হিং¯্র। যাদের কারণে সবসময় সমালোচনা সহ্য করতে হয় দলকে’। গতকাল (শনিবার) নগরীর সিম্যান্স হোস্টেলের একটি ক্লাবে ৩৭, ৩৮, ৩৯, ৪০ ও ৪১নং ওয়ার্ডের নাগরিক সমস্যা নিরসনে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় সভাপতির বক্তেব্যে তিনি এসব কথা বলেন। মহানগর আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক হাজি জহুর আহমদ কোম্পানির সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও চসিক মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দীনসহ বিভিন্ন সেবা সংস্থার প্রতিনিধিরা। এসময় উপস্থিত ওয়ার্ড ও থানা আওয়ামীলীগ নেতারাসহ এলাকাবাসীরা নিজ নিজ ওয়ার্ডের সমস্যা তুলে ধরেন। অভিযোগে ৩৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান বলেন, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ময়লার ভাগাড়টি অত্র ওয়ার্ডে অবস্থিত। প্রতিদিন হাজার হাজার ময়লাবাহী ট্রাক, ড্রাম ট্রাক ঐ এলাকায় চলাচল করে। এতে সড়কটি চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। তাছাড়া ময়লার ভাগাড়ের ফলে জনগণের স্বাস্থ্য সেবাও হুমকির মুখে। এসব বিষয় বিবেচনা করে ঐ এলাকার হোল্ডিং ট্যাক্স মওকুফ করার জন্য সিটি মেয়রের প্রতি অনুরোধ জানান তিনি। ইপিজেড থানা মহিলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক শারমিন সুলতানা ফারুক বলেন, বন্দর এলাকায় দুই দুটি রপ্তানি প্রক্রিয়াজাতকরণ অঞ্চলে কর্মরত রয়েছে দুই লক্ষাধিক কর্মজীরী নারী। এদের চিকিৎসা এবং প্রসূতি মা’দের চিকিৎসার সুবিধার্থে ঐ এলাকায় একটি ডে-কেয়ার, মাতৃসদন হাসপাতালসহ একটি পূর্ণাঙ্গ হাসপাতাল নির্মাণের দাবি জানান তিনি।

৩৮নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি এম. হাসান মুরাদ অভিযোগ করে বলেন, শুক্রবারসহ বিভিন্ন সরকারি ছুটির দিন এলাকায় গ্যাস সরবরাহ পাওয়া যায় না। এছাড়া গ্যাসের চাপও খুব কম। বেশির ভাগ সময়ই রাত ১০টার পর গ্যাস পাওয়া যায়, তাও অপ্রতুল। তিনি মহেশখালের মুখে সিডিএ কর্র্তৃক নির্মাণাধীন স্লুইসগেটটি নির্মাণে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ গ্রহণ করার জন্য সিডিএ চেয়ারম্যানের প্রতি অনুরোধ জানান।

৩৯ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজি শফিউল আলম সিমেন্ট ক্রসিং সংলগ্ন রেললাইনটি দখলমুক্ত করে একটি বিকল্প সড়ক নির্মাণ করার আহ্বান জানান। এছাড়া নিউমুরিং ৫নং খাল এবং মাটিয়া খালটি পুনরুদ্ধার করে জলাবদ্ধতা নিরসনের উদ্যোগ গ্রহণ করার অনুরোধ জানান। এছাড়া এম.এ.আজিজ সড়কটি বিভিন্ন কন্টেইনার ইয়ার্ড কেন্দ্রিক যানজটের কারণে এলাকাবাসী ঘণ্টার পর ঘণ্টা অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি।

৪০নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চৌধুরী আজাদ আউটার রিং রোডের কাজটি দ্রুততার সাথে সম্পন্ন করার আহ্বান জানান। এছাড়া ৭নং এবং ৯নং খালটি অবৈধ দখলমুক্ত করে জলাবদ্ধতা নিরসনে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করার অনুরোধ জানান। ৪১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি কাউন্সিলর ছালেহ আহমদ চৌধুরী দ্রুততার সাথে বৃহত্তর হালিশহর-পতেঙ্গা এলাকায় ওয়াসার সঞ্চালন লাইন স্থাপনের অনুরোধ জানান। এছাড়া ভুতুড়ে বিল, গড় বিল এবং যান্ত্রিক ত্রুটি মেরামতে দীর্ঘসূত্রিতা রোধ করার আহ্বান জানান। কন্টেইনার ইয়ার্ডের লরি, কাভার্ড ভ্যান, ট্রাক রাস্তায় ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থাকে যার ফলে বিমান বন্দর সড়কটি প্রায়শই অবরুদ্ধ হয়ে পড়ছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।
ওয়ার্ডের বিভিন্ন সমস্যা অনুধাবন শেষে জনগণের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখেন সেবা সংস্থার প্রতিনিধিরা।

চট্টগ্রাম ওয়াসার তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী আরিফুল ইসলাম বলেন, ‘সরকারের গৃহীত প্রকল্পের ফলে ওয়াসা ক্রমান্বয়ে জনগণের আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে। ইতিমধ্যে ৮০০ কিলোমিটার নতুন পাইপ লাইন স্থাপন করা হয়েছে। শহরের প্রায় ৮৬ ভাগ জনগণকে পানি সরবরাহের আওতায় নিয়ে আসা হয়েছে। এছাড়া জাইকার অর্থায়নে বারিকবিল্ডিং থেকে কাস্টম হয়ে পতেঙ্গা পর্যন্ত ওয়াসার নতুন পাইপ লাইন স্থাপনের কাজ চলছে। এ সকল উন্নয়ন কাজ সম্পন্ন হলে অত্র অঞ্চলে ওয়াসার পানি সমস্যার সমাধান হবে বলে আশ^স্ত করেন তিনি।

বিদ্যুৎ বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ নিউমুরিং এর নির্বাহী প্রকৌশলী শেখ মোহাম্মদ মফিজুর রহমান বলেন, মেরামতজনিত কারণে কিছু কিছু এলাকার গ্রাহক বিদ্যুৎ সরবরাহ পাচ্ছেন না। যেটা সাময়িক। এছাড়া আন্ডারগ্রাউন্ড ক্যাবল লাইন স্থাপনের কাজ চলছে বলে জানান তিনি। তিনি বলেন, গ্রাহকের ভুতুড়ে বিল এবং গড় বিল শুন্যের কোটায় নিয়ে আসার জন্য কাজ করছে বিদ্যুৎ বিভাগ। জনগণ যাতে নিরবচ্ছিন্নভাবে বিদ্যুৎ সরবরাহ পেতে পারে সেজন্য সদা সচেষ্ট বিদ্যুৎ বিভাগের সকল পর্যায়ের কর্মকর্তা কর্মচারীগণ।

এদিকে উপস্থিত নেতৃবৃন্দের নানান সমস্যা ও অভিযোগ শোনার পর তাদের সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দেন প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকা সিটি মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দীন এবং চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান জহিরুল আলম দোভাষ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র বলেন, ‘বিভিন্ন সেবা সংস্থা একযোগে নগরীতে হাজার হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। জলাবদ্ধতার কারণে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি হচ্ছে একথা অস্বীকার করার কোন উপায় নেই। তবে একথাও ঠিক এসব জলাবদ্ধতার জন্য আমরাও অনেকাংশে দায়ী। চট্টগ্রামে একসময় অনেকগুলো পুকুর ও দিঘি ছিলো। কিন্তু কালের ব্যবধানে চট্টগ্রাম শহর থেকে সেইসব পুকুর ও দিঘি হারিয়ে গিয়েছে। খালগুলো দখল হয়ে সংকুচিত হয়ে পড়েছে। চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নগরবাসীর স্বাস্থ্যসেবায় ডোর টু ডোর পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম চালু করেছে। তারপরও নগরবাসী প্রতিনিয়ত নালা নর্দমায় ময়লা আবর্জনা ফেলে পানি চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে। নাগরিক সমাজের মনমানসিকতাও উন্নত করার অনুরোধ জানান তিনি।

মেয়র আরো বলেন, ‘এ শহর আপনার আমার সকলের। এ শহরকে যদি আমরা পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করতে পারি তাহলে এ সুনাম সমগ্র চট্টগ্রামবাসীর। তিনি নাগরিকবৃন্দকে নিয়মিত হোল্ডিং ট্যাক্স পরিশোধ করে সিটি কর্পোরেশনের উন্নয়ন কর্মকা-ের অংশীদার হওয়ার আহ্বান জানান।

আবরার হত্যা ইস্যু নিয়ে মেয়র বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যাতে নোবেল পুরস্কার না পান, সেই ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে বুয়েটের ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যাকা- ঘটানো হয়ে থাকতে পারে। অতি উৎসাহীরা এই কাজ করেছেন বলে মন্তব্য করেন তিনি। তিনি বলেন, আবরার হত্যাকা- অবশ্যই দুঃখজনক। তাকে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। কিন্তু এটা যারা করেছেন, তাদের কাছে তো দলের কোনো নির্দেশনা ছিল না। তারা অতি উৎসাহী হয়ে করেছেন। এখন খুঁজে বের করতে হবে তাদের দিয়ে এ কাজটা কেউ করিয়েছেন কি না। কারণ, শান্তিতে নোবেল প্রাইজ পাওয়ার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামটিও সক্রিয়ভাবে বিবেচনায় ছিল। যেদিন নোবেল কমিটি নোবেল প্রাইজ ঘোষণার জন্য বসেছে, সেদিন কিন্তু এ কাজটি হয়েছে। এখানে দুরভিসন্ধি থাকতে পারে। ষড়যন্ত্র, চক্রান্ত থাকতে পারে। যাতে উনি নোবেল প্রাইজটা না পান।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তপক্ষের চেয়ারম্যান ও নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জহিরুল আলম দোভাষ ডলফিন বলেন, ‘সিডিএ’র মাধ্যমে হাজার হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন কর্মকা- সম্পাদিত হচ্ছে চট্টগ্রামে। ইতিমধ্যে আউটার রিং রোডের কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। লালখান বাজার থেকে পতেঙ্গা পর্যন্ত এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের নির্মাণকাজও শুরু হয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই উন্নয়ন কর্মকা-সমূহ বাস্তবায়ন করতে গিয়ে জনগণের সাময়িক ভোগান্তি হচ্ছে। তিনি জনদুর্ভোগ লাঘবে আউটার রিং রোডের কাজ পুরোপুরি সম্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত বারিক বিল্ডিং থেকে সিমেন্ট ক্রসিং পর্যন্ত এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের নির্মাণকাজও সাময়িক বন্ধ রেখেছেন বলে নেতৃবৃন্দকে জানান। এছাড়া আউটার রিং রোডের কাজও দ্রততার সাথে সম্পন্ন করার আশ^াস দেন তিনি। তিনি জনগণকে যে কোন সমস্যায় তার সাথে সরাসরি সাক্ষাত করার অনুরোধ জানান।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 305 People

সম্পর্কিত পোস্ট