চট্টগ্রাম রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

সর্বশেষ:

১৩ অক্টোবর, ২০১৯ | ২:৪২ পূর্বাহ্ণ

জাহেদুল আলম হ রাউজান

চুয়েটে ভর্তিযুদ্ধ

৯০১ আসনে লড়েছেন ১০ হাজার ৯৭২ শিক্ষার্থী

অপরূপ সুন্দর প্রকৃতির পাদদেশে অবস্থিত চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (চুয়েট) ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) লেভেল-১ কোর্সের প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা উৎসবমুখর পরিবেশে সুষ্ঠুভাবে গতকাল শনিবার সম্পন্ন হয়েছে। এবারের ভর্তি পরীক্ষায় ১২টি বিভাগে ভর্তির জন্য নিয়মিত ৮৯০ আসনের (১১টি উপজাতি কোটাসহ সর্বমোট ৯০১ আসন) বিপরীতে মোট ১০ হাজার ৯৭২ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ‘ক’ গ্রুপের (ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগসমূহ এবং নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা

বিভাগ) লিখিত পরীক্ষা নির্ধারিত সময় সকাল ১০টা থেকে ভর্তি পরীক্ষা আরম্ভ হয়ে একটানা বেলা ১টায় শেষ হয়। অপরদিকে দুপুর আড়াইটা থেকে বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত ‘খ’ গ্রুপের (ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগসমূহ, নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ এবং স্থাপত্য বিভাগ) মুক্তহস্ত অংকন পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

সকাল ১১টায় চুয়েটের ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম ভর্তি পরীক্ষার বিভিন্ন কেন্দ্র পরিদর্শন করেন। এ সময় ভর্তি পরীক্ষা কমিটি-২০১৯ এর সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. সাইফুল ইসলাম এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অধ্যাপক ড. ফারুক-উজ-জামান চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে ভর্তি পরীক্ষা উপলক্ষে চুয়েটে নিñিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয়। এ প্রসঙ্গে রাউজান থানার ওসি কেপায়েত উল্লাহ বলেন, ‘পরীক্ষা উপলক্ষে চুয়েটে থানার পুলিশসহ অতিরিক্ত ৩ ৮০ জন পুলিশ মোতায়েন ছিল। চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক, এসপি নুরে আলম মিনা, এএসপি সার্কেল মশিউদ্দৌলা রেজা, ডিএসবি, আনসার, ডিবি, বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার লোকজন, ফায়ার সার্ভিসসহ সরকারের বিভিন্ন আইন প্রয়োগকারী সংস্থার লোকজন এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
একটি সূত্রে জানা গেছে, বুয়েটে ছাত্রহত্যার ঘটনাকে কেন্দ্র করে চুয়েটের ভর্তি পরীক্ষায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়। ভর্তিচ্ছুদের ক্যাম্পাসে অভ্যর্থনা জানাতে শিক্ষার্থীরা আলপনা একে ক্যাম্পাসের সৌন্দর্য্য বৃদ্ধি করেন। এছাড়া বর্ণিল সাজে সজ্জিত করা হয় পুরো ক্যাম্পাস। চুয়েট কর্তৃপক্ষ এবং বিভিন্ন এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে করা হয় বিভিন্ন প্যান্ডেল। শনিবার ভোর হতেই বিভিন্নভাবে আসতে থাকেন ভর্তি পরীক্ষার্থী ও তাদের অভিভবাকরা। এতে পুরো ক্যাম্পাস মুখর হয়ে উঠে।
ভর্তি পরীক্ষা উপলক্ষে চুয়েট ছাত্রলীগ শিক্ষার্থীদের সার্বিক সহায়তার জন্য নগরীর আটটি স্থানে হেল্পডেস্ক বসিয়ে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের সাহায্য করে। এছাড়া যে সব পরীক্ষার্থী পরীক্ষার আগের দিন অর্থাৎ ১১ অক্টোবর ক্যাম্পাসে উপস্থিত হয়েছিলেন তাদের জন্য ক্যাম্পাসের ছয়টি আবাসিক হলে আবাসনের ব্যবস্থা করা হয়। হেল্প ডেস্ক থেকে শিক্ষার্থীদের পানি ও কলম বিতরণ করা হয়। এ ছাড়া মেডিকেল ট্রিটমেন্টের ব্যবস্থাও ছিল।

এদিকে রাউজানের সাংসদ এবিএম ফজলে করিম চৌধুরীর পক্ষ থেকে পাহাড়তলী ইউপি চেয়ারম্যান রোকন উদ্দিনের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কর্মীরা চুয়েটের পরীক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকদের জন্য দশ হাজারেরও বেশি মিনারেল ওয়াটার পান করান।

এদিকে ভর্তি পরীক্ষার সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করে চুয়েটের ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম বলেন, ‘সকলের সার্বিক সহযোগিতায় অত্যন্ত সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সরকারের বিভিন্ন সেবাপ্রদানকারী সংস্থা, প্রশাসন এবং চুয়েট পরিবারের সকল শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীর পাশাপাশি সংশ্লিষ্টদের সকলের সহযোগিতার মাধ্যমে এটি সম্ভব হয়েছে।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 136 People

সম্পর্কিত পোস্ট