চট্টগ্রাম রবিবার, ০৭ মার্চ, ২০২১

সর্বশেষ:

১১ অক্টোবর, ২০১৯ | ২:৩৯ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব সংবাদদাতা , বাঁশখালী

বাঁশখালী পৌরসভার বাজেট অধিবেশনে যোগ দেয়নি ৬ কাউন্সিলর

বাঁশখালী পৌরসভার ২০১৯-২০ অর্থ বছরের জন্য ঘোষিত বাজেটে যোগ দেয়নি পৌরসভার নির্বাচিত ৬ কাউন্সিলর। গত বুধবার অনুষ্ঠিত এ বাজেট অধিবেশনে বাঁশখালীর নির্বাচিত সাংসদ মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী উপস্থিত থাকার কথা ছিল। বাজেট অনুষ্ঠানে যোগ না দেয়া কাউন্সিলররা হলেন প্যানেল মেয়র ও ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. দেলোয়ার, ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর দীলিপ চক্রবর্তী, ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নজরুল কবির সিকদার, ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বাবলা কুমার দাশ, ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. হারুন, কাউন্সিলর রোজিয়া আক্তার। এ নিয়ে পৌর এলাকার ভোটারদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে।

তবে বাঁশখালী পৌরসভার মেয়র শেখ সেলিমুল হক চৌধুরী ৯ ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের উপস্থিতিতে আগামী অর্থ বছরের জন্য ২০১৯-২০ অর্থ বছরে ১০৫ কোটি ২১ লাখ ৮৫ হাজার টাকার বাজেট ঘোষণা করেন। বাজেট অধিবেশনে পৌরসভার রাজস্ব আয় ধরা হয়েছে ৪ কোটি ৫৯ লাখ ৮৫ হাজার টাকা। বাজেটে উন্নয়ন খাতে ধরা হয়েছে ১০০ কোটি ৬২ লাখ ২০ হাজার টাকা। উন্নয়ন হিসেবে বিশেষ প্রকল্প খাতে অনুদান ৯৮ কোটি টাকা। বাজেট অধিবেশনে যোগ না দেয়া কাউন্সিলর নজরুল কবির সিকদার, দিলীপ চক্রবর্তী ও বাবলা দাশ জানান, বাজেট অধিবেশনে যোগ দেয়ার ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও গত বছরের উন্নয়ন কাজে কোন অগ্রগতি না হওয়ায় অধিবেশনে অংশগ্রহণ করিনি। কেননা এলাকার মানুষদের জবাবদিহিতা করতে হবে।

স্থানীয় বাসিন্দা মো. আমিন, আবদুর জব্বার, নুরুল আলম, বদি আলম, অসিত চৌধুরী ও প্রকৌশলী প্রসূন দাশ জানান, পৌরসভার অধিকাংশ রাস্তাঘাটের অবস্থা একেবারেই নাজুক হয়ে পড়েছে। দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন রাস্তায় গর্ত হয়ে পড়ে থাকায় বৃষ্টি হলেই পানি জমে গিয়ে জনসাধারণ চলাচলে চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছে।

বাঁশখালী পৌরসভার মেয়র সেলিমুল হক চৌধুরী গত ৯ অক্টোবর পৌরসভার বাজেট বক্তব্যে বলেন, বাঁশখালী পৌরসভার উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রয়েছে। বাজেটের বরাদ্দ অনুযায়ী রাস্তাঘাট, ব্রিজ, কালভার্টের উন্নয়ন কাজ চলছে। এখানে কাজের কোন অনিয়ম হচ্ছে না।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 170 People

সম্পর্কিত পোস্ট