চট্টগ্রাম রবিবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১১ অক্টোবর, ২০১৯ | ২:১৪ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব সংবাদদাতা হ বোয়ালখালী

সাত মাস মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারহীন বোয়ালখালী !

বোয়ালখালী মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারের পদটি খালি গত সাত মাস! এতে নানাবিধ সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন উপজেলার মাধ্যমিক শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। জেলা শিক্ষা অফিসার বোয়ালখালীর অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করলেও তাঁর অনুপস্থিতিতে কাজে-কর্মে স্থবিরতার শেষ নেই। তাঁর মৌখিক নির্দেশনাগুলো পালন করছেন উপজেলা শিক্ষা অফিসের একাডেমিক সুপারভাইজার। কাগজে-কলমে দায়িত্ব না থাকায় তাতেও নানা অসুবিধে পোহাতে হচ্ছে শিক্ষক ও প্রতিষ্ঠানগুলোকে। দায়িত্ব না থাকার কারণে একাডেমিক সুপারভাইজার গুরুত্বপূর্ণ

সিদ্ধান্তগুলো যথাযথভাবে অফিসিয়ালি দিতে পারছেন না এমন অভিযোগ শিক্ষকদের। জেলা শিক্ষা অফিসে দৌড়াদৌড়ি করতে গিয়ে সময় ও অর্থ দু’টিই নষ্ট হচ্ছে এমন অভিযোগ প্রায় সকলেরই।

নানান সমস্যার কথা জানিয়ে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি মো. আলী জানান, অফিসে কর্তা না থাকলে যা হওয়ার তাই হচ্ছে, বিশৃঙ্খল অবস্থা। চেইন অব কমান্ড নেই। কাজ-কর্মেতো অসুবিধে বলে শেষ করা যাবে না। যতদূর জানি এমপিও মৌখিকভাবে জেলাকে বলেছেন অফিসার দিতে। কই কাজতো কিছুই হলো না ?
এ বষিয়ে সাংসদ মঈন উদ্দিন খান বাদলের বরাত দিয়ে তাঁর ব্যক্তিগত সহকারী এস এম হাবিব বাবু বলেন, বিষয়টি এমপির নলেজে আছে। দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হবে। নিয়োগে দেরির বিষয়টি খতিয়ে দেখছি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আছিয়া খাতুন বলেন, একটি অফিসের দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসার না থাকলে নানাবিধ সমস্যা লেগেই থাকে। আমার পক্ষ থেকে মাওশিকে বারবার বলা হয়েছে। সময়ক্ষেপণের বিষয়টি আমার জানা নেই।

জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. জসিম উদ্দিন জানান, বোয়ালখালীতে মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার না থাকাতে কাজগুলো আমাকে দেখতে হচ্ছে। এছাড়া একাডেমিক সুপারভাইজার দিয়ে যতটুকু সম্ভব কাজ করাতে হচ্ছে। তাও সন্তোষজনক বলা যাবে না। আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে একজনকে নিয়োগ দেয়া হতে পারে। বিষয়টি গুরুত্বের সাথে নেয়া হয়েছে।
উল্লেখ্য, এ বছরের ২৮ ফেব্রুয়ারি বোয়ালখালীর দায়িত্বে থাকা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ ইউনুছের নানা অনিয়মের অভিযোগ এনে তাঁর বিরুদ্ধে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালককে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। ৩ মার্চ মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এক প্রজ্ঞাপনে তাঁকে বদলীর আদেশ দিয়েছেন। সে সময় থেকে মূলতঃ শিক্ষা অফিসারের পদ শূন্য অবস্থায় পার করছে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস।

The Post Viewed By: 122 People

সম্পর্কিত পোস্ট