চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১০ অক্টোবর, ২০১৯ | ১:৫৪ এএম

গলায় ওড়না পেঁচিয়ে কিশোরীর আত্মহত্যা সাতকানিয়ায়

সাতকানিয়ায় গলায় ওড়না পেঁচিয়ে মাইমুনা সোলতানা মেহেরুন (১২) নামে এক কিশোরী আত্মহত্যা করেছে। গতকাল বুধবার সকাল সাড়ে ১১টা থেকে ১২টার মধ্যে উপজেলার বাজালিয়া ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গতকাল বুধবার বাজালিয়া ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড বড়দুয়ারা ঘিলাতলী আদর্শ গ্রাম এলাকায় বসবাসরত সাজেদা আক্তার সাজুর প্রথম সংসারের মেয়ে মাইমুনা সোলতানা ও বর্তমান সংসারের আরেক ছোট মেয়েকে ঘরে রেখে বর্তমান স্বামী সিরাজুল ইসলাম ও সাজেদা আক্তার সাজু মিলে দিনমজুর কাজ করার জন্য সকালে ঘর থেকে বের হয়। ৬ বছর বয়সী ছোট মেয়েটি খেলার জন্য ঘর থেকে বের হলেও ঘরে থেকে যায় বড় মেয়ে মাইমুনা। স্থানীয় ইউপি সদস্য মোহাম্মদ আলী বলেছেন, সকাল সাড়ে ১১টা থেকে ১২টার মধ্যে মাইমুনা সোলতানা সিল্কের কাপড়ের ওড়না গলায় পেঁচিয়ে ঘরের টিনের চালার লোহার এঙ্গেলে ঝুলে আত্মহত্যা করে। পরে ছোট মেয়েটি ঘরে ঢুকে দেখে বড়বোন মাইমুনা ওড়না দিয়ে এঙ্গেলের সাথে ঝুলে আছে। এ অবস্থা দেখে চিৎকার দিয়ে সে ঘর থেকে বের হয়ে কান্নাকাটি শুরু করে দেয় এবং স্থানীয়দের বিষয়টি বললে তারা ঘরে ঢুকে ঝুলন্ত অবস্থা থেকে মাইমুনার লাশ মাটিতে নামিয়ে রাখে। খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশকে খরব দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। এ ব্যাপারে লাশ উদ্ধারকারী সাতকানিয়া থানার উপ-পরিদর্শক নজরুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে লাশটি উদ্ধার করে লাশের সুরতহাল শেষে চমেক হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। তিনি আরও বলেছেন, কিশোরী মাইমুনা একজন মানসিক রোগী। স্থানীয় বৈদ্য দিয়ে তাকে অনেকবার চিকিৎসা করালেও সে সুস্থ হয়ে উঠেনি। সে প্রায় সময় পাগলের মত আচরণ করত। গতকালও তার বাবা-মা ঘরে না থাকায় সুযোগ বুঝে গলায় ওড়না পেচিয়ে ঘরের টিনের চালার এঙ্গেলে ঝুঁলে আত্মহত্যা করেছে সে। এ ঘটনায় কিশোরীর মা সাজেদা আক্তার সাজু বাদি হয়ে গতকাল বিকালে সাতকানিয়া থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করেছেন।

The Post Viewed By: 44 People

সম্পর্কিত পোস্ট