চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯

১০ অক্টোবর, ২০১৯ | ১:১৮ পূর্বাহ্ন

মফস্বল ডেস্ক

সনাতনী সম্প্রদায়ের নানা অনুষ্ঠান বিভিন্ন স্থানে অনুদান ও বস্ত্র বিতরণ

উপজেলার বিভিন্ন সংগঠনের উদ্যোগে হিন্দু সম্প্রদায়ের মাঝে অনুদান প্রদান করা হয়েছে। এ উপলক্ষে সভায় বক্তারা বলেন, অনুদান প্রদানের মাধ্যমে সম্প্রীতি-ভ্রাতৃত্ববোধ ও পারস্পরিক সৌহার্দ্য উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পায়।

পটিয়া পৌরসভা: নিজস্ব সংবাদদাতা জানান, পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক হারুনুর রশিদের উদ্যোগে ১৪টি মন্দিরে অনুদান প্রদান করা হয়েছে। পৌরসভা থেকে ৫ হাজার, ব্যক্তিগত অর্থ থেকে মেয়র ৫ হাজার টাকা প্রদান করেন। তাছাড়া পটিয়া পৌরসভার কাউন্সিলর গোফরানা রানা ৪ নং ওয়ার্ডের পুণ্যার্থীদের মাঝে ৫ হাজার টাকা করে প্রদান করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন পৌরসভা আ.লীগ সভাপতি আলমগীর আলম, সাধারণ সম্পাদক এমএনএ নাছির, সহ-সভাপতি ফজলুল হক আল্লাই, কাউন্সিলর গোফরান রানা, সাংগঠনিক সম্পাদক নুরুল করিম, ৪ নং ওয়ার্ড আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন, শাহজাহান চৌধুরী, হাবিবুল্লাহ পিবলু, শেখ মো. বেলাল, তারেকুর রহমান তারেক, শাহরিয়ার শাহজাহান, ইকবালুর রহমান ওপেল, তানিম, ইয়াসমিন আকতার চৌধুরী, শাহনাজ বেগম প্রমুখ।

রাঙামাটি: নিজস্ব প্রতিনিধি জানান, বসবাসরত ক্ষুদ্র-নৃতাত্ত্বিক জনগোষ্ঠী গুর্খা সম্প্রদায়ের টিকা লাগানোর (বড়রা ছোটদেরকে আশির্বাদ দেয়া) উৎসব গত মঙ্গলবার সকালে অনুষ্ঠিত হয়েছে। দশমীর অঞ্জলী প্রদান শেষে গুর্খা সম্প্রদায়ের বাড়িতে বাড়িতে এই উৎসব চলে। রাঙামাটি জেল রোডের সুর নিকেতন ভবনে উৎসবের উদ্বোধন করেন প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি ও দৈনিক ইত্তেফাক রাঙামাটি প্রতিনিধি প্রবীণ সাংবাদিক একেএম মকছুদ আহমদ। গুর্খা সম্প্রদায়ের নেতা ও সুর নিকেতন প্রতিষ্ঠাতা মনোজ বাহাদুর গুর্খা’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রেস ক্লাবের সভাপতি সাখাওয়াৎ হোসেন রুবেল, কবি ও সাহিত্যিক মৃত্তিকা চাকমা, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউটের পরিচালক রনেল চাকমা, প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি এসএম শামসুল আলম, সাংবাদিক ফোরামের সাধারণ সম্পাদক মিল্টন বাহাদুর, বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলার সভাপতি মনসুর আহম্মেদ প্রমুখ। সভাশেষে গুর্খা সম্প্রদায়ের পক্ষ থেকে নিজস্ব আচার অনুষ্ঠান পালনের মধ্যদিয়ে সকলকে কপালে টিকা লাগানোর মাধ্যমে বিজয়া দশমী ফোটা প্রদান করা হয়।

পটিয়া: নিজস্ব সংবাদদাতা জানান, এম.এন.ডি মজুমদার ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে তিনশ বস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। গত রবিবার পটিয়া পৌর সদরের গৌরাঙ্গ নিকেতন এলাকায় গরীব ও দুস্থদের মাঝে বস্ত্র বিতরণ করেন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ও পূজা উদযাপন পরিষদের জেলার সাবেক সভাপতি দিলীপ কুমার মজুমদার। গীতা শিক্ষা কমিটির সভাপতি পুলক চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও পূজা কমিটি সভাপতি রূপক শীলের পরিচালনায় বস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন পূজা উদযাপন পরিষদ জেলার যুগ্ম সম্পাদক বিশ্বজিৎ পালিত, সাংগঠনিক সম্পাদক কল্লোল সেন, সমাজসেবক দেবুপ্রসাদ দে, অধ্যাপক অজিত কুমার মিত্র, রাজিব দাশ গুপ্ত ছোটন, ইন্দ্রজিত চৌধুরী লিও, শম্ভু সেন, বনমালী নাথ, রূপসী দাশ, দেবাশীষ বাপন, মিলন কান্তি দাশ, রাসনা ধর, রাজিব চৌধুরী, সজল চৌধুরী, জুয়েল চৌধুরী, এডভোকেট সনজয় দে ও সনজয় রক্ষিত বাবলা সর্দার।

The Post Viewed By: 55 People

সম্পর্কিত পোস্ট