চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৯

সর্বশেষ:

৮ অক্টোবর, ২০১৯ | ৩:২১ এএম

জাহেদুল আলম, রাউজান

পূজার আনন্দশেষে বিষাদের যন্ত্রণা

মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় রাউজানে যুবকের মৃত্যু

পূজায় ধুমধাম আনন্দ করেছেন। সবার সঙ্গে নাচে-গানে হৈ-হুল্লোড়ে মেতে উঠেছিলেন। কে জানতো সেই আনন্দই হবে তার শেষ আনন্দ। আনন্দ উল্লাসের কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানেই সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন রাউজান পৌরসভার এক যুবক। পূজার আনন্দ ভাগাভাগিশেষে বন্ধুকে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি পৌঁছে দিতে যাওয়ার পথে দুর্ঘটনায় ওই যুবকের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন মোটরসাইকেল আরোহী তার দুই বন্ধু। এরমধ্যে একজনের অবস্থা আশংকাজনক। গত রবিবার রাত প্রায় তিনটার দিকে চট্টগ্রাম-রাঙামাটি সড়কের রাউজান পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের জানালীহাট এলাকায় একটি ব্রিজের পাশে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত যুবক জয়দেব ধর প্রকাশ জয়ব্রত (২৩) পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের বণিক পাড়ার সনাতন মাস্টারের বাড়ির মৃত লক্ষ্মীকান্ত ধরের ছেলে। আহতরা হলেন একই পাড়ার রাজেশ ধর (২২) ও কুন্ডেশ্বরী এলাকার জনি ধর (২২)।
স্থানীয় কাউন্সিলর জানে আলম জনি গতকাল সোমবার দুপুরে বলেন, ‘৫ নম্বর ওয়ার্ডের শ্রী শ্রী জগন্নাথ বিগ্রহ মন্দিরের পূজাম-পে রবিবার রাতে জয়দেব, রাজেশ ও জনি তিন বন্ধু মিলে বেশ উৎসব পালন করেন। রবিবার সন্ধ্যায় এ মন্দিরে পূজা পরিদর্শনে আসেন স্থানীয় সাংসদ এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি। তাকে অভ্যর্থনা জানান ফুল দিয়ে। অন্যরকম উৎসবের আমেজ সৃষ্টি হয় ওই ম-পে। এনিয়ে তাদের মধ্যে উৎফুল্লটা আরো বেশি ছিল। গভীর রাতে (তিনটার দিকে) পূজার উৎসবশেষে কুন্ডেশ্বরী এলাকা থেকে আসা বন্ধু জনি ধরকে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি দিতে যাওয়ার পথে রাঙ্গামাটি সড়কের জানালী হাটস্থ ব্রিজের পাশে অজ্ঞাত একটি গাড়ী চাপায় (কেউ বলছে আরেকটি মোটরসাইকেলের ধাক্কায়, কেউ বলছে ট্রাকচাপায়) তিনজনই গুরুতর আহত হন। স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক জয়দেব ধরকে মৃত ঘোষণা করেন। মোটরসাইকেলটি চালাচ্ছিলেন জয়দেব ধর। মোটরসাইকেলের পেছনে বসা অপর দুই বন্ধু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এরমধ্যে রাজেশ ধরের অবস্থা আশংকাজনক। এই ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। তার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি, স্থানীয় কাউন্সিলর জানে আলম জনি। উল্লেখ্য যে, জয়দেবের বাবাও মারা গিয়েছিলেন সড়ক দুর্ঘটনায়।

The Post Viewed By: 139 People

সম্পর্কিত পোস্ট